শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ৫ ডিসেম্বর, ২০১৮ ২৩:৫৬

শিশুর মেরুদণ্ড ব্যথা!

শিশুর মেরুদণ্ড ব্যথা!

আজকের শিশু আগামী দিনের ভবিষ্যৎ। শিশুরা জাতির মেরুদণ্ড, তাই আমাদের শিশুদের সুস্থ ও সবল হওয়া খুবই প্রয়োজন। বর্তমানে অনেক রোগী পাচ্ছি যাদের বয়স ৮ থেকে ১৫ বৎসরের মধ্যে, তাদের প্রধান উপসর্গ হলো মেরুদণ্ডে ব্যথা। এই ব্যথার কারণ নির্ণয় করতে, রোগীর ইতিহাস থেকে জানা গেল- ১। তাদের প্রতিদিন সকালে ব্যাগ ভর্তি বই নিয়ে স্কুলে যেতে হয়, অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায়  বই ভর্তি  ব্যাগের ওজন  শিশুটির শরীরের ওজনের চেয়েও বেশি , যার ফলে এই অধিক ওজনের ব্যাগ বহন করতে শিশুর পিঠের  মাংসপেশিগুলো স্টিফ বা শক্ত হয়ে যায়। ২। তাদের দৈনন্দিন কাজের মধ্যে কোনো ফিজিক্যাল এক্সারসাইজ নেই। যেমন— সকালে ঘুম থেকে উঠে ব্যাগ ভর্তি বই নিয়ে স্কুলে যায়, তারপর বাসায় ফিরে একটু কম্পিউটার গেম, তারপর যথারীতি একের পর এক টিউটর আসে, তারপর স্কুলের হোমওয়ার্ক শেষ করতেই চলে আসে ঘুমানোর সময়, সব কিছু মিলিয়ে খেলাধুলা কিংবা শারীরিক ব্যায়াম করার জন্য সুযোগ নেই বললেই চলে। ৩। এরপর অনেকেই বাচ্চার আরামের কথা চিন্তা করে, ঘুমানোর সময় ফোমের বিছানা ব্যবহার করেন যা মেরুদণ্ডের  জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর, কারণ ফোমের বিছানায় শিশুর মেরুদণ্ডের স্বাভাবিক আকৃতি পরিবর্তন করে দিতে পারে।

পরামর্শ : স্কুল ব্যাগের ওজন যেন, শিশুর বহনযোগ্য হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। শিশুর নিয়মিত কিছু শারীরিক ব্যায়ামের ব্যবস্থা নিতে হবে। খেলাধুলার জন্য পর্যাপ্ত সময় দিতে হবে। শোবার বিছানা শক্ত হতে হবে, অন্যথায় মেরুদণ্ডের স্বাভাবিক গঠন বদলাতে পারে। এছাড়া বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

ডা. এম ইয়াছিন আলী, চিফ কনসালটেন্ট, ঢাকা সিটি ফিজিও- থেরাপি হাসপাতাল, ধানমন্ডি, ঢাকা।


আপনার মন্তব্য