শিরোনাম
প্রকাশ : ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ১১:১৭
আপডেট : ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ১১:২৭

ভারত সফরে ট্রাম্প, নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তায় তিন শহর

অনলাইন ডেস্ক

ভারত সফরে ট্রাম্প, নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তায় তিন শহর

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ভারতে আসছেন আজ। দুই দিনের এই সফরে তার সঙ্গে থাকছেন স্ত্রী মেলানিয়া ট্রাম্প, কন্যা ইভাঙ্কা ও জামাতা জেরাড কুশনার। বাংলাদেশ সময় দুপুর ১২টা ১০ মিনিট নাগাদ উচ্চপর্যায়ের প্রতিনিধি দল নিয়ে আহমেদাবাদে নামবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

ট্রাম্পের সফরকে ঘিরে নিরাপত্তার চাদরে মুড়েছে ভারতের তিন শহর। সর্দার প্যাটেল মার্গের ডিপ্লোম্যাটিক এনক্লেভে পাঁচতারা হোটেল আইটিসি মৌর্যয় দফায় দফায় চলে নিরাপত্তার নজরদারি। এখানেই ‘চাণক্য’ স্যুইটে থাকবেন সস্ত্রীক ডোনাল্ড ট্রাম্প। থাকবেন ট্রাম্প-কন্যা ইভাঙ্কা এবং জামাই তথা ট্রাম্পের উপদেষ্টা জেরাড কুসনের। নিরাপত্তার খাতিরে হোটেলের ৪৩৮টি রুমই বুকড। লবি, পার্কিং, সুইমিং পুলে দিল্লি পুলিশের পাশাপাশি সাদা পোশাকে ঘুরছেন গোয়েন্দারা। রয়েছেন আমেরিকার সিক্রেট সার্ভিসের অফিসারও। রাজঘাটে মহাত্মা গান্ধীর সমাধিস্থলেও বসেছে বাড়তি সিসিটিভি ক্যামেরা। একই ছবি আগ্রাতেও।

মার্কিন প্রেসিডেন্টের সুরক্ষায় রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে প্রায় ১০ হাজার পুলিশকর্মীকে মোতায়েন করা হয়েছে আহমেদাবাদে। পালাম এয়ারপোর্ট থেকে রাষ্ট্রপতি ভবন, প্রায় পুরোটারই নিরাপত্তার চাদরে মোড়া রয়েছে। রয়েছে দিল্লি পুলিশও। আকাশ পথেও চলছে নজরদারি। এদিন দুপুরে মোতেরায় সর্দার বল্লভ ভাই প্যাটেল স্টেডিয়ামে নমস্তে ট্রাম্প ইভেন্টে যোগ দেবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। বক্তব্যও রাখবেন। মার্কিন প্রেসিডেন্টের আগমন উপলক্ষে বিমানবন্দর থেকে আহমেদাবাদ পর্যন্ত রাস্তার দুধারের রাস্তার একাধিক প্রাচীর রঙ করা হয়েছে। বস্তি ঢাকা হয়েছে প্রাচীর দিয়ে।

বিকেলে ট্রাম্প চলে যাবেন আগ্রায়। সেখানে মেলানিয়ার সঙ্গে তাজ দর্শন করবেন। ইতোমধ্যেই তাজের পাশে যমুনার দুর্গন্ধময় পানি সাফ করতে ৫০০ কিউসেক জল ছাড়া হয়েছে যাতে কোনও গন্ধ না পাওয়া যায়। তাজ দেখে বিকেলেই দিল্লি ফিরবেন ট্রাম্প। মঙ্গলবার সকাল ১০টায় রাষ্ট্রপতি ভবনের ফোরকোর্টে সেরিমোনিয়াল রিসেপশন। রাতে ব্যাঙ্কোয়েট হলে এলাহি নৈশভোজ। তার আগে নর্থ ড্রয়িংরুমে সাক্ষাৎ হবে রামনাথ কোবিন্দ ও ডোনাল্ড ট্রাম্পের। মার্কিন প্রেসিডেন্টকে অভ্যর্থনা জানাতে মৌসুমি ফুল আর আলোর সজ্জায় সেজে উঠছে ভারতের রাষ্ট্রপতি ভবন।


বিডি প্রতিদিন/ ওয়াসিফ


আপনার মন্তব্য