শিরোনাম
প্রকাশ : ৭ আগস্ট, ২০২০ ১২:২১

মেহনতি মানুষের প্রতিনিধিত্ব বাড়ছে মার্কিন কংগ্রেসে, জয়ী রাশিদা তাইয়্যেব

যুক্তরাষ্ট্র প্রতিনিধি

মেহনতি মানুষের প্রতিনিধিত্ব বাড়ছে মার্কিন কংগ্রেসে, জয়ী রাশিদা তাইয়্যেব

ডেমোক্র্যাটিক পার্টিতে প্রগতিশীল চিন্তা-চেতনায় উদ্বুদ্ধ মুসলিম নারী কংগ্রেস ওম্যান রাশিদা তাইয়্যেব (৪৪) বিপুল ভোটে দলীয় প্রার্থী বাছাইয়ের নির্বাচনে জয়ী হয়েছেন। গত মঙ্গলবার (৪ আগস্ট) অনুষ্ঠিত ঐ নির্বাচনে তার কাছে দ্বিতীয়বারের মত ধরাশায়ী হয়েছেন ডেট্রয়েট সিটি কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট ব্রেন্ডা জোন্স। 

মিশিগানের ত্রয়োদশতম কংগ্রেসনাল ডিস্ট্রিক্ট তথা বাংলাদেশী অধ্যুষিত ডেট্রয়েট সিটি নিয়ে গঠিত এই নির্বাচনী এলাকায় ভোটারের সিংহভাগই মুসলমান হলেও রাশিদাকে হটাতে ট্রাম্পের অনুসারীরাও মাঠে নেমেছিলেন। এছাড়া ডেমক্র্যাটিক পার্টিতে বিত্তশালী চাঁদাদাতারাও রাশিদার বিরুদ্ধে অর্থ বিনিয়োগ করার অভিযোগ রয়েছে। 
কারণ নিউইয়র্কের কংগ্রেসওম্যান আলেক্সান্দ্রিয়া ওকাসিয়ো-করটেজ’র নেতৃত্বে প্রতিনিধি পরিষদে ৪ সদস্যের যে গ্রুপ রয়েছে তার অন্যতম হলেন রাশিদা। এরা সবসময় খেঁটে খাওয়া মানুষের অধিকার ও মর্যাদার প্রশ্নে আপসহীন রয়েছেন। এরা মেহনতি মানুষের স্বার্থে ডেমক্র্যাটদের সমালোচনাতেও মুখর রয়েছেন। রাশিদার মত করটেজকেও ধরাশায়ী করতে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পসহ অনেকে কলকাঠি নেড়েছিলেন। 

গত ২৩ জুনের নির্বাচনে করটেজও বড় রকমের ব্যবধানে দলীয় প্রার্থী হিসেবে রায় সংগ্রহে সক্ষম হয়েছেন। এই টিমের অপর মুসলিম সদস্য মিনেসোটার ইলহান ওমরের নির্বাচন হবে সামনের মঙ্গলবার ১১ আগস্ট। উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের নির্বাচনে প্রথমবারের মত জয়ী এই গ্রুপেড় অপর সদস্য হলেন ম্যাসেচুসেট্স’র আয়ানা প্রেসলী। চলমান ডেমক্র্যাট প্রাইমারিতে বিজয় অর্জনকারিদের মধ্যে অন্তত আরো ৪ জন এই গ্রুপ অন্তর্ভুক্ত হবেন বলে জানা গেছে। 

২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমক্র্যাটিক পার্টির মনোনয়নের দৌড়ে থাকা ইউএস সিনেটর বার্ণি স্যান্ডার্স’র নির্বাচনী টিমের সদস্যগণের মধ্য থেকেই অনেকে কংগ্রেসে লড়ছেন। তারা সকলেই বামপন্থি চিন্তা-চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে ডেমক্র্যাটিক পার্টির বুর্জোয়া চরিত্র বিলুপ্ত করার আন্দোলনে রয়েছেন। এজন্যে অনেক সময় ট্রাম্পের সাথে কিছু ডেমক্র্যাটও এই গ্রুপকে নিশ্চিহ্ন করার অভিপ্রায়ে অভিন্ন সুরে কথা বলেন। 

২৩ জুনের প্রাইমারিতে নিউইয়র্কের অনেকদিনের কংগ্রেসম্যান ইলিয়ট এ্যাঙ্গেলকে ধরাশায়ী করেছেন জামাল ব্রাউন নামক আরেক প্রগতিশীল চিন্তা-চেতনার সংগঠক। ১৯৮৯ সাল থেকেই নির্বাচিত হয়ে আসা নিউইয়র্ক কংগ্রেসনাল ডিস্ট্রিক্ট ১৯ এর কংগ্রেসম্যান ইলিয়ট বর্তমানে প্রতিনিধি পরিষদে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত কমিটির চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছেন। নির্বাচনী এলাকার চেয়ে জাতীয় ইস্যুকে প্রাধান্য দেয়ার পাশাপাশি চলমান করোনা মহামারির সময়েও ওয়াশিংটন ডিসিতে অবস্থান করার অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। অপরদিকে, কমিউনিটির সকল ইস্যুতে সোচ্চার রয়েছেন জামাল ব্রাউন। তারই পুরস্কার পেলেন জামাল। 

মটর সিটি হিসেবে খ্যাত ডেট্রয়েট থেকে সাংবাদিক আশিক রহমান আরা জানিয়েছেন, সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী রাশিদা তাইয়্যেব ভোট পেয়েছেন ৬৬% এবং ভোট সংখ্যা ৭১৭০৩ এবং ব্রেন্ডা জোন্স পেয়েছেন ৩৪% অর্থাৎ ভোট সংখ্যা ৩৬,৪৯৩ । 

এক বিবৃতিতে রাশিদা বলেন, ভোটাররা একটি স্পষ্ট বার্তা পাঠিয়েছেন যে, তারা পরিবর্তনের জন্য অপেক্ষা করছেন, তারা এমন একটি অপ্রতিদ্বন্দ্বি যোদ্ধা চান যা স্থিতাবস্থা গ্রহন করবে এবং জিতবে। 

উল্লেখ্য, কংগ্রেসওম্যান রাশিদা হচ্ছেন ফিলিস্তিনী আমেরিকান, যিনি দু’বছর আগে কংগ্রেসে নির্বাচিত হয়ে ইতিহাস সৃষ্টি করেছেন। রাশিদার বিজয়ে প্রবাসীরাও উৎফুল্ল। কারণ রাশিদার মাধ্যমেই অভিবাসী সমাজের দাবি কংগ্রেসে সরব রয়েছে। তাই ৩ নভেম্বরের মূল নির্বাচনেও রিপাবলিকান প্রার্থীর বিরুদ্ধে রাশিদাকে বিপুল বিজয় প্রদানে সকলেই সংকল্পবদ্ধ। 
 


বিডি-প্রতিদিন/সিফাত আব্দুল্লাহ


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর