শিরোনাম
প্রকাশ : ২৫ অক্টোবর, ২০২০ ১২:২৭
আপডেট : ২৫ অক্টোবর, ২০২০ ১৩:৪০

হাজার হাজার কোটির সম্পদ এই শিশুদের!

অনলাইন ডেস্ক

হাজার হাজার কোটির সম্পদ এই শিশুদের!
ফাইল ছবি

প্রতিভা, পরিশ্রম এবং কর্মদক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে অনেকেই জীবনে প্রচুর সম্পত্তির মালিক হন। বিশ্বের বেশির ভাগ মানুষেরই সেই ভাগ্য হয় না। কেউ আবার জন্ম থেকেই পারিবারিক সূত্রে বিশাল সম্পত্তির মালিক হয়ে ওঠে। আজ আমরা দেখবে সে রকমই কিছু শিশুকে। শিশু বয়সেই যাদের মোট সম্পত্তি হয়তো আপনার কষ্টার্জিত বেতনের কয়েক লাখ গুণ বেশি। শুধু তাই নয় অনেক ছোট দেশের মোট বাজেটের থেকে এদের সম্পত্তির পরিমাণ বেশি।

প্রিন্স জর্জ আলেকজান্ডার লুইস। বয়স সবে ৭ বছর। এই বয়সেই তার মোট সম্পত্তি ৩০০ কোটি ডলার। রাজ পরিবারের ক্ষুদে লুইস ডিউক অব কেমব্রিজ প্রিন্স উইলিয়াম ও ডাচেস অব কেমব্রিজ ক্যাথরিনের সন্তান। সে এই বয়সেই বিশ্বের অন্যতম ধনী।

প্রিন্সেস শার্লট। প্রিন্স উইলিয়াম ও ক্যাথরিনের কন্যা। আলেকজান্ডার লুইসের বোন। বয়স ৫ বছর। এই বয়সেই তার মোট সম্পত্তি অনেক বড় কোম্পানির সিইও কয়েক গুণ। ছোট্ট শার্লট ইতোমধ্যেই ৫০০ কোটি ডলারের মালিক।

ড্যানিয়েলিন হোপ মার্শাল ব্রিকহেড। আমেরিকার মডেল এবং অভিনেতা অ্যানা নিকোলে স্মিথের মেয়ে। ড্যানিয়েলিনের বয়স যখন ১ বছর তখন তার মা অ্যানা মারা যায়। তারপর মায়ের বিপুল সম্পত্তির মালিক হয়েছে সে। পাশাপাশি ৬ বছর বয়স থেকেই মডেলিং করে সে। অনেক টিভি শো-তেও তাকে দেখা যায়। মাত্র ১৪ বছর বয়সেই সে ৩০ লাখ ডলারের মালিক। 

নক্স ও ভিভিয়েন জোলি পিট। অ্যাঞ্জেলিনা জোলি ও ব্র্যাড পিটের যমজ সন্তান। জন্মের আগেই তার ছবি বিক্রি হয়েছিল ১৪০ লাখ ডলারে। সেলিব্রিটি বাবা-মায়ের এই ছেলে-মেয়ের বয়স হয়েছে ১২ বছর। এই বয়সেই ৬ কোটি ৭৫ লাখ ডলারের মালিক তারা। 

ভ্যালেন্টিনা পালোমা পিনল্ট। ১৩ বছরের ভ্যালেন্টিনা মেক্সিকান-আমেরিকান অভিনেত্রী সালমা হায়েক ও ফরাসি কোটিপতি ফ্রানকোইজ অঁরি পিনল্টের কন্যা। বাবা-মা দু’জনেরই অগাধ সম্পত্তি। ভ্যালেন্টিনা বর্তমানে ১ কোটি ২০ ডলারের সম্পত্তির মালিক। 

রায়ান কাজি। ৯ বছরের এই ইউটিউবার বিভিন্ন খেলনার রিভিউ করে। ৩ বছর বয়স থেকেই এই কাজ শুরু করেছিল সে। তারপর আর ফিরে তাকাতে হয়নি। বর্তমানে ‘রায়ান ওয়ার্ল্ড’ চ্যানেলের সাবস্ক্রাইবার আড়াই কোটির বেশি। ইউটিউবের সূত্রে জনপ্রিয়তার পাশাপাশি এসেছে অর্থও। বর্তমানে সে ১০ কোটি ডলারের মালিক। 

ব্লু আইভি কার্টার। ৮ বছরের আইভি গায়ক-গায়িকা জে জে ও বিয়োন্সের কন্যা। আইভি নিজেও গায়ক হওয়ার পথেই এগোচ্ছে। ইতোমধ্যেই তার সম্পত্তির পরিমাণ ৪০ লাখ ডলারের সম্পত্তি রয়েছে। 

মোজিয়া ব্রিজেস। ১৫ বছরের এই কিশোর ‘মো’জ বোজ’ নামে বো টাই প্রস্তুতকারক সংস্থার সিইও। ছোটবেলায় বো টাই কিনতে গিয়ে পছন্দ হত না তার। দিদিমার কাছ থেকে টাই বানানো শিখে নিজেই খুলে ফেলে একটি সংস্থা। এখন তার সম্পত্তির পরিমাণ ১০ লাখ ডলার। 

ইভান হেরদিগ্রাম। ১৫ বছরের এই কিশোর নিজের ইউটিউব চ্যানেল শুরু করেছিল ৫ বছর বয়সে। খেলনার রিভিউ ও গেমিংয়ের ভিডিও পোস্ট করত সে। ১৯ লাখ ডলারের সম্পত্তি রয়েছে তার।

ইসাবেলা বারেট। ‘গ্লিটজি গার্ল’ সংস্থার অন্যতম মালিক সে। এক বছর আগে নিজের গয়নার ব্যবসাও শুরু করে সে। ১৪ বছরের ইসাবেলার মোট সম্পত্তির মূল্য ১৯ লাখ ডলার। 

নর্থ, সেইন্ট, শিকাগো এবং স্লাম ওয়েস্ট। তাদের বয়স যথাক্রমে ৭, ৪, ২, ১ বছর। এই চার ভাই-বোন কিম কার্দাশিয়ান ও কেনি ওয়েস্টের সন্তান। তাদের প্রত্যেকের সম্পত্তির পরিমাণ ১ কোটি ডলার করে। বয়স ১৮ হলেই এই ডলার হাতে পাবে তারা।

ম্যাক্সিমা এবং অগস্ট জাকারবার্গ। ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গের দুই মেয়ে। তাদের বয়য় যথাক্রমে ৪ এবং ৩ বছর। জাকারবার্গের দুই মেয়ের মিলিত সম্পত্তি ৭ হাজার ৪০০ কোটি ডলার।বাবার জন্যই যে তারা এই পরিমাণ সম্পত্তির মালিক তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

সূত্র : আনন্দবাজার

বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর