শিরোনাম
প্রকাশ : ১৫ মে, ২০২১ ২২:৫০
প্রিন্ট করুন printer

গাজায় আল-জাজিরার কার্যালয় গুঁড়িয়ে দিল ইসরায়েল, যা বলল যুক্তরাষ্ট্র

অনলাইন ডেস্ক

গাজায় আল-জাজিরার কার্যালয় গুঁড়িয়ে দিল ইসরায়েল, যা বলল যুক্তরাষ্ট্র
Google News

দখলদার ইসরায়েলি বাহিনী কাতার ভিত্তিক আন্তর্জাতিক টিভি চ্যানেল আল-জাজিরার কার্যালয় মাটির সঙ্গে মিশিয়ে দিয়েছে। শনিবার (১৫ মে) ইসরায়েলি জঙ্গিবিমান থেকে উচ্চ ধ্বংস ক্ষমতাসম্পন্ন বোমা ফেলে গাজায় যে ভবনে আল-জাজিয়া টিভির কার্যালয় ছিল সেটি পুরোপুরি ধ্বংস করে ফেলা হয়েছে।

ভিডিও ফুটেজে দেখা যাচ্ছে, বোমা হামলার পর ভবনটি মাটিতে ভেঙে পড়ছে। ভবনটির ধ্বংসস্তূপ চারদিকে ছড়িয়ে পড়েছে। তবে এ হামলায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেছি কিনা, তা এখনো জানা সম্ভব হয়নি। ধারণা করা হচ্ছে, হুমকির পর ভবনটি সম্ভবত খালি করে দেওয়া হয়। 

এই ঘটনায় বিবৃতি দিয়েছে হোয়াইট হাউস। হোয়াইট হাউসের প্রেস সেক্রেটারি জেন সোসাকি টুইট বার্তায় বলেছেন, আমরা সরাসরি ইসরায়েলিদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছি। একই সঙ্গে জানিয়েছি, সাংবাদিক ও স্বাধীন গণমাধ্যমের নিরাপত্তা এবং সুরক্ষা নিশ্চিত করা প্রধান দায়িত্ব।

এদিকে, ইসরায়েলি বিমান হামলায় গাজায় অবস্থিত আল জাজিরার কার্যালয় গুঁড়িয়ে যাওয়ার পর কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যমটি বলেছে, তারা চুপ করে থাকবে না।

আল জাজিরার জেরুজালেম ব্যুরোর প্রধান ওয়ালিদ আল-ওমারি বলেছেন, এটা স্পষ্ট যে যারা যুদ্ধ করছে তারা গাজায় শুধু ধ্বংস আর মৃত্যুই বাড়িয়ে চলছে না, তারা গণমাধ্যমগুলোকেও চুপ করিয়ে দিতে চায় যারা এগুলো প্রত্যক্ষ করছে, তথ্য সংগ্রহ করছে ও সত্যের প্রতিবেদন করছে যে গাজায় ঠিক কী ঘটছে। কিন্তু এটি অসম্ভব। আমরা চুপ করে থাকব না। 

১৩ তলা বিশিষ্ট জালা টাওয়ার ভেঙে পড়ার পর এ কথাগুলো সরাসরি সম্প্রচারে বলেন ওয়ালিদ। এসময় তিনি আরও বলেন, ইসরায়েলি সেনারা গাজা উপত্যকায় যেসব অপরাধ নিয়মিত করে চলছে এটি তারই অংশ।

গাজার এই ভবনের কার্যালয়ে ১১ বছর ধরে কর্মরত ছিলেন আলজাজিরার সাংবাদিক সাফাওয়াত আল খালুত। তিনি ভবনটিতে হামলা প্রসঙ্গে বলছেন, দুই সেকেন্ডের মধ্যেই ভবনটি মাটির সঙ্গে মিশে যায়। উল্লেখ্য, ধ্বংস হওয়া ওই ভবনটিতে অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস বা এপি'র কার্যালয়ও ছিল। এছাড়া সেটি আবাসিক ভবন হিসেবেও ব্যবহার করা হত। 

এদিকে, টানা ষষ্ঠ দিনের মতো ইসরায়েলি হামলায় এখন পর্যন্ত মোট ১৪০ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া হামলায় আহত হয়েছেন হাজারের বেশি মানুষ। পাশাপাশি বহু ফিলিস্তিনিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।  অপরদিকে হামাসের রকেট হামলায় এ পর্যন্ত ৯ জন ইসরায়েলি নিহতের খবর পাওয়া গেছে।


বিডি-প্রতিদিন/তাফসীর আব্দুল্লাহ

এই বিভাগের আরও খবর