শিরোনাম
৮ ডিসেম্বর, ২০২১ ১৮:৪৮

হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত : ভারতীয় সশস্ত্র বাহিনীর প্রধান বিপিন রাওয়াত নিহত

অনলাইন ডেস্ক

হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত : ভারতীয় সশস্ত্র বাহিনীর প্রধান বিপিন রাওয়াত নিহত

হেলিকপ্টার বিধ্বস্তের ঘটনায় অগ্নিদগ্ধ ভারতের সশস্ত্র বাহিনীর প্রধান বিপিন রাওয়াত মারা গেছেন। তার স্ত্রীসহ হেলিকপ্টারের আরও ১১ আরোহী নিহত হন। আজ বুধবার দুপুরে তামিলনাড়ুতে ওই দুর্ঘটনা ঘটে।

রাশিয়ার তৈরি এমআই-১৭ভি৫ মডেলের হেলিকপ্টারটিতে ১৪ জন আরোহীর মধ্যে পাঁচজন ক্রু ও নয়জন যাত্রী ছিলেন। যাত্রীদের মধ্যে বিপিন রাওয়াত, তার স্ত্রী মাধুলিকা রাওয়াত ছাড়াও সেনা কমান্ডোরা ছিলেন। দুপুর ১২টা ২০ মিনিটে তামিলনাড়ুর নীলগিরি হিলস এলাকায় হেলিকপ্টারটি বিধ্বস্ত হয়। বেলা ২টার দিকে ভারতীয় বিমানবাহিনী ওই দুর্ঘটনার খবর জানায়। হেলিকপ্টারের ১৪ আরোহীর মধ্যে ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে কয়েক ঘণ্টা পর জানা যায়। তবে বিপিন রাওয়াতের অবস্থা সম্পর্কে কোনো খবর পাওয়া যাচ্ছিল না।

সন্ধ্যায় ভারতীয় বিমানবাহিনীর পক্ষ থেকে বিপিন রাওয়াতসহ ১৩ জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করা হয় বলে এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

বিপিন রাওয়াতকে বহনকারী হেলিকপ্টারটি তামিলনাড়ুর কাছে সুলুরের একটি বিমানঘাঁটি থেকে উড্ডয়ন করেছিল। তিনি রাজ্যের উরাহগামানরালামে অবস্থিত একটি ডিফেন্স সার্ভিস স্টাফ কলেজে যাচ্ছিলেন। 

ভারতীয় সেনাবাহিনীর সাবেক প্রধান জে জে সিং বলেন, ওই দুর্ঘটনায় নিহত ব্যক্তিদের পরিচয় শনাক্ত করা কঠিন হয়ে পড়েছে।

১৯৫৮ সালের ১৬ মার্চ ভারতের উত্তরাখণ্ডের পৌড়ীর এক গঢ়ওয়ালি রাজ পরিবারের জন্ম বিপিনের। তার পরিবারে সেনাবাহিনীতে যোগদানের ইতিহাস পুরুষানুক্রমিক। বাবা লক্ষ্মণ সিংহ রাওয়াত ছিলেন ভারতীয় সেনার লেফটেন্যান্ট জেনারেল।

সেই রীতি মেনেই সেনায় যোগদান রাওয়াতের। শিমলার সেন্ট এডওয়ার্ড স্কুলে পড়াশোনা শেষ করে তিনি যান পুণেতে। খড়কভাসলার ন্যাশনাল ডিফেন্স একাডেমিতে। এরপর দেরাদুনে ইন্ডিয়ান মিলিটারি একাডেমিতে প্রশিক্ষণ শেষে ১৯৭৮ সালের ডিসেম্বরে যোগ দেন সেনার ১১ গোর্খা রাইফেলস ব্যাটালিয়নে।

দীর্ঘ কর্মজীবনের বড় অংশ জম্মু ও কাশ্মীরে কাটিয়েছেন রাওয়াত। পেয়েছেন ভারতের উত্তম যুদ্ধ সেবা মেডেল, পরম বিশিষ্ট সেবা মেডেল-সহ একাধিক সেনা-সম্মাননা।

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর