২৬ জানুয়ারি, ২০২২ ১১:৩৩

পার্টিগেট ইস্যুতে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে পুলিশি তদন্ত

অনলাইন ডেস্ক

পার্টিগেট ইস্যুতে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে পুলিশি তদন্ত

বরিস জনসন

করোনাভাইরাস মহামারি চলার সময় লকডাউনের মধ্যে ১০ ডাউনিং স্ট্রিটে পার্টি করা নিয়ে এবার তদন্তে নামলো যুক্তরাজ্যের পুলিশ। প্রশ্নের মুখে পড়তে পারেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনও।

করোনা লকডাউনের সময় একের পর এক পার্টি হয়েছে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের বাসভবন ১০ ডাউনিং স্ট্রিট এবং হোয়াইট হলে। গত কয়েকমাসে পার্টিগুলোর কথা সামনে এসেছে। যার জেরে ঘরে বাইরে চাপের মুখে পড়েছে বরিস জনসন। এতদিন সিভিল সারভেন্ট সু গ্রে বিষয়টি নিয়ে স্বাধীন তদন্ত করছিলেন। মঙ্গলবার তিনি তার রিপোর্ট জমা দিয়েছেন। তারপরেই যুক্তরাজ্যের মেট্রোপলিটন পুলিশ মামলাটির তদন্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

মঙ্গলবার পুলিশ কমিশনার ক্রেসিডা ডিক সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, গ্রে-র তদন্ত রিপোর্ট তাদের হাতে এসেছে। এবার পুলিশ নিজেদের মতো করে তদন্ত শুরু করবে। তবে গ্রে-র তদন্ত রিপোর্টে কী আছে, ক্রেসিডা তা জানাননি।

এদিকে, পুলিশ তদন্তভার হাতে নেওয়ার পরেই নতুন করে বরিস জনসনের পদত্যাগ দাবি করেছে লেবার পার্টি। তাদের বক্তব্য, করোনাবিধি না মানার জন্য যখন দেশের সাধারণ মানুষের বিরুদ্ধে চরম ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছিল, তখন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী সেই নিয়ম ভেঙেছেন। এর জন্য তার বিরুদ্ধেও দৃষ্টান্তমূলক ব্যবস্থা নেওয়া উচিত।

যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ, করোনার সময় তার বাসভবনে একাধিক পার্টি হয়েছে। যার বেশ কয়েকটিতে প্রধানমন্ত্রী নিজে যোগ দিয়েছেন বলে অভিযোগ। ২০২০ সালে নিজের মদ নিজে আনো পার্টিতে যোগ দেওয়ার কথা স্বীকার করেছেন প্রধানমন্ত্রী। তবে তিনি বলেছেন, ওই পার্টিগুলিকে তিনি কাজের অংশ হিসেবে দেখেছিলেন। লকডাউনের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনের পার্টি হয়েছে বলেও অভিযোগ।

মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রীর মুখপাত্র অবশ্য জানিয়েছেন, তিনি নির্দোষ। তাহলে কেন পুলিশ নতুন করে তদন্ত শুরু করল, সে উত্তর অবশ্য তিনি দেননি। পুলিশ প্রতিটি ঘটনার আলাদা আলাদা তদন্ত করবে, নাকি একসঙ্গে পুরো বিষয়টিকে দেখা হবে, সে বিষয়ে মঙ্গলবার কিছু জানানো হয়নি।

সূত্র: ডয়চে ভেলে।

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর