শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২৩:০৫

খাশোগিকে যেভাবে হত্যা করা হয়

সৌদি আরবের প্রখ্যাত সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যাকান্ডের ঠিক আগের মুহূর্তে ধারণ করা একটি অডিও রেকর্ডিং প্রকাশ করেছে তুরস্কের পত্রিকা ‘দ্য ডেইলি সাবাহ’।

দৈনিকটি বলছে, খাশোগিকে হত্যা করে কীভাবে তার দেহ কনস্যুলেটের বাইরে নেওয়া হবে, সেসব বিষয় উঠে এসেছে ওই অডিওতে। মাত্র ৩০ মিনিটের মধ্যে খাশোগিকে হত্যা ও তার দেহ টুকরো টুকরো করা হয়। প্রতিবেদনে বলা হয়, খাশোগি কনস্যুলেটে ঢোকামাত্রই পরিচিত কোনো ব্যক্তি তাকে অভ্যর্থনা জানান ও একটি কক্ষে নিয়ে যান। ওই ব্যক্তির নাম মেহের আবদুল আজিজ মুতরিব। মেহের একজন জ্যেষ্ঠ গোয়েন্দা সদস্য ও সৌদি যুবরাজ মুহাম্মদ বিন সালমানের দেহরক্ষী। মেহের খাশোগিকে বলেন, ‘বসুন খাশোগি। আপনাকে সৌদিতে ফেরত নেওয়া হবে। এতে রাজি হননি খাশোগি। এরপর মুতরিব খাশোগিকে একটি মোবাইল বার্তা লেখার জন্য চাপ দেন। বলেন, ‘আপনার ছেলের কাছে এই কথাগুলো লিখুন, ‘যদি আমার (খাশোগির) সঙ্গে যোগাযোগ না করতে পারো, তাহলে চিন্তা করো না।’ খাশোগি ওই বার্তা লিখতে অস্বীকৃতি জানালে মুতরিব তাকে বলেন, ‘আমি বলছি, এটা লিখুন জনাব খাশোগি। নাহলে কী ঘটবে তা বুঝতেই পারছেন।’ এরপর খাশোগিকে টেনে নেওয়ার শব্দ শোনা যায়। চেতনা হারানোর আগে খাশোগির শেষ কথা শোনা যায়, ‘আপনারা কী করছেন। আমার হাঁপানির সমস্যা আছে। আমি নিঃশ্বাস নিতে পারছি না।’ এরপর সালাহ মোহাম্মদ আবদাহ তুবাইগি নামে খ্যাতিমান সৌদি ফরেনসিক চিকিৎসক করাত দিয়ে খাশোগির দেহ কেটে টুকরো টুকরো করে প্লাস্টিকে মুড়ে স্যুটকেসে ঢুকিয়ে বাইরে নেওয়ার ব্যবস্থা করেন।


আপনার মন্তব্য