শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ২৩:৫৩

‘করোনাভাইরাস ঠেকানোর সুযোগ সংকুচিত হচ্ছে’

‘করোনাভাইরাস ঠেকানোর সুযোগ সংকুচিত হচ্ছে’

করোনাভাইরাস নিয়ে বিশ্ববাসী এখন খুবই ভীতিকর অবস্থায় রয়েছে। বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের সঙ্গে চীনের দৃশ্যমান কোনো সংযোগ না থাকার কারণে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান ড. তেদ্রোস আধানম গ্যাব্রিয়েসুস। তিনি বলেছেন, ভাইরাসটির বিস্তার ঠেকানোর সুযোগ সংকুচিত হয়ে আসছে।

ড. তেদ্রোস বলেছেন, চীনের বাইরে করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের সংখ্যা কম। কিন্তু যেভাবে আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা ঘটছে তা উদ্বেগজনক। তিনি বলেন, চীনে ভ্রমণ বা আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শের মতো স্পষ্ট মহামারীর সংযোগ না থাকার কারণে বিভিন্ন দেশে আক্রান্তের সংখ্যা নিয়ে আমরা উদ্বিগ্ন। ইরানে মৃত্যু ও নতুন আক্রান্ত শনাক্ত হওয়া খুব উদ্বেগজনক বলে উল্লেখ করেছেন স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান। তবে তিনি মনে করেন, চীনসহ অপর দেশগুলো যেসব পদক্ষেপ নিয়েছে তাতে এখনো ভাইরাসটির আরও বেশি ছড়িয়ে পড়া ঠেকানোর সুযোগ রয়েছে। তিনি সম্ভাব্য মহামারী ঠেকাতে আরও বেশি প্রস্তুতি নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

গতকাল চীনের স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ মৃত্যুর সংখ্যা কমে যাওয়া ও করোনাভাইরাসে নতুন রোগী আক্রান্ত হওয়ার কথা জানিয়েছে। তবে দক্ষিণ কোরিয়া, ইতালি, ইরান ও অন্যান্য দেশে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, চীন ছাড়া বিশ্বের অন্তত ২৬টি দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের শনাক্ত করা হয়েছে এবং মৃত্যু হয়েছে অন্তত ৮ জনের। মৃতদের মধ্যে দক্ষিণ কোরিয়ায় দুজন। চীনের বাইরে এই দেশেই সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত শনাক্ত করা হয়েছে। গতকাল  দক্ষিণ কোরিয়া নতুন করে ১৪২ জন আক্রান্তকে শনাক্ত করার কথা জানিয়েছে। ফলে দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৪৬ জনে। শুক্রবার ইতালির চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, দেশটিতে ৭৮ বছরের এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে। এর আগে দেশটিতে ১৬ জন আক্রান্তকে শনাক্ত করা হয়েছিল। চীনে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৭৬ হাজার ২৮৮ জন। এদের মধ্যে মারা গেছেন ২ হাজার ৩৪৫ জন।


আপনার মন্তব্য