শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ৩ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২ জুলাই, ২০২১ ২৩:২৪

ভারতে মৃতের সংখ্যা ছাড়াল ৪ লাখ

Google News

যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রাজিলের পর বিশ্বের তৃতীয় দেশ হিসেবে করোনাভাইরাস মহামারীতে ৪ লাখ মৃত্যুর দুঃখজনক মাইলফলক অতিক্রম করেছে ভারত। গতকাল সকালে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় কভিড-১৯ এ ৮৫৩ জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে; একই সময়ে নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে ৪৬ হাজার ৬১৭ জন। সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ের দাপটের মধ্যে এপ্রিলের শেষ সপ্তাহে দেশটিতে সরকারি হিসাবে করোনাভাইরাসে মৃত্যু ২ লাখ ছাড়িয়েছিল; তার ৯ সপ্তাহেরও কম সময়ে এ সংখ্যা ৪ লাখের ঘর অতিক্রম করল। তথ্য অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ কোটি ৪ লাখ ৫৮ হাজার ২৫১ জনে। এর মধ্যে ২ কোটি ৯৫ লাখ ৪৮ হাজার ৩০২ জনই সুস্থ হয়ে উঠেছেন; মৃত্যু আর সুস্থ হয়ে ওঠাদের বাদ দিয়ে দেশটিতে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা এখন ৫ লাখ ৯ হাজার ৬৩৭ জন।

কভিডে মৃত্যু তালিকায় বিশ্বের দেশগুলোর মধ্যে ভারতের পর আছে মেক্সিকো। উত্তর আমেরিকার এ দেশটিতে ভাইরাস এ পর্যন্ত ২ লাখ ৩০ হাজার মানুষের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে। পার্শ্ববর্তী যুক্তরাষ্ট্রে প্রাণ গেছে ৬ লাখের বেশি মানুষের, ব্রাজিল সাক্ষী হয়েছে ৫ লাখ ২০ হাজার মৃত্যুর।

এখন পর্যন্ত বিশ্বের ১০টি দেশে করোনাভাইরাসে মৃত্যু লাখ ছাড়িয়েছে। এ তালিকায় যুক্তরাষ্ট্র, ব্রাজিল, ভারত, মেক্সিকো ছাড়াও আছে পেরু, রাশিয়া, যুক্তরাজ্য, ইতালি, ফ্রান্স, কলম্বিয়া। এসব দেশের মধ্যে ভারতেই জনসংখ্যা অনুপাতে কভিডে মৃত্যু সবচেয়ে কম বলে জানিয়েছে টাইমস অব ইন্ডিয়া, প্রতি ১০ লাখে মাত্র ২৮৭ জন। রাশিয়ায় এ সংখ্যা ৯১৬; ফ্রান্স, মেক্সিকো, যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যে এক থেকে দুই হাজারের মধ্যে। পেরুতে প্রতি ১০ লাখে ৫ হাজার ৭৬৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। কলম্বিয়া, ইতালি ও ব্রাজিলে এ সংখ্যা ২ হাজারের বেশি, ৩ হাজারের কম। মৃতের সংখ্যায় শীর্ষ দশে থাকা দেশগুলোর মধ্যে ভারতে শনাক্ত রোগী অনুপাতে মৃত্যুও সবচেয়ে কম, প্রতি ১০০ জনে মাত্র ১ দশমিক ৩।

অবশ্য এশিয়ার অন্যান্য অনেক দেশ এবং নেপাল ছাড়া অন্য প্রতিবেশীদের তুলনায় ভারতে জনসংখ্যা অনুপাতে কভিডে মৃত্যু হার অনেক বেশি। নেপালে প্রতি ১০ লাখে ৩০৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। ফিলিপাইন ও ইন্দোনেশিয়ায় এ সংখ্যা ২০০-এর বেশি হলেও, মালয়েশিয়ায় তা ১৬০, শ্রীলঙ্কায় ১২২ এবং আফগানিস্তানে ১২২। পাকিস্তান, বাংলাদেশ, মিয়ানমার ও থাইল্যান্ডে প্রতি ১০ লাখে মৃত্যু ১০০-এর নিচে। শনাক্ত রোগীর সংখ্যা অনুপাতে মৃত্যুর ক্ষেত্রে ভারতের অবস্থান এ দেশগুলোর বেশিরভাগের চেয়ে ভালো হলেও শ্রীলঙ্কা, থাইল্যান্ড ও মালয়েশিয়ার তুলনায় খারাপ।

এই বিভাগের আরও খবর