Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৪ ০০:০০ টা
আপলোড : ৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৪ ০০:০০

কমছে বন্যার পানি, বাড়ছে দুর্ভোগ বানভাসিদের

কমছে বন্যার পানি, বাড়ছে দুর্ভোগ বানভাসিদের

দেশের সব প্রধান নদ-নদীর পানি কমতে শুরু করেছে। আগামী ২৪ ঘণ্টা এ ধারা অব্যাহত থাকবে। বগুড়া, সিরাজগঞ্জ, জামালপুর, টাঙ্গাইল, শরীয়তপুর, মাদারীপুর, মুন্সীগঞ্জ, ফরিদপুর ও মানিকগঞ্জের বন্যা পরিস্থিতির আরও উন্নতি হতে পারে। গতকাল পানি উন্নয়ন বোর্ডের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়। এদিকে নদীর পানি কমতে শুরু করলেও বানভাসি মানুষের দুর্ভোগ কোনোভাবেই কমছে না। রোগবালাই বাড়ছে। পর্যাপ্ত ত্রাণ পাচ্ছে না দুর্গত লোকজন। এদিকে পদ্মাগর্ভে বিলীন হওয়া মাওয়া ঘাটের রো রো ফেরিঘাটটি পুনঃ স্থাপন করা হচ্ছে।
সিরাজগঞ্জের চৌহালীর প্রায় ১৪ কিলোমিটার নদীতীরবর্তী এলাকায় ব্যাপক ভাঙন শুরু হয়েছে। আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-
মাওয়ার রো রো ফেরিঘাট পুনঃ স্থাপন : মাওয়ার পদ্মাগর্ভে বিলীন হওয়া ৩ নম্বর রো রো ফেরিঘাটটি উদ্ধারকারী জাহাজ রুস্তমের সাহায্যে পুনঃ স্থাপন করা হচ্ছে। আজকালের মধ্যে তা পুনঃ স্থাপন হবে। বর্তমানে এ রুটে রো রো ফেরি বন্ধ থাকায় উভয় ঘাটে দেখা দিয়েছে মারাত্মক যানজট। ভোগান্তিতে পড়েছে হাজার হাজার যাত্রী।
বিআইডব্লিউটিসি মাওয়া ফেরিঘাটের সহকারী মহাব্যবস্থাপক আশিকুজ্জামান জানান, নতুন নির্মিত রো রো ফেরিঘাটটি বিআইডব্লিউটিএর শক্তিশালী জাহাজ রুস্তমের সাহায্যে ভেঙে যাওয়া স্থানেই ১০ গজ নামায় সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে। যেহেতু এখানে পর্যাপ্ত পানি রয়েছে, তাই ঘাট স্থাপনে তেমন সময় লাগবে না বলেও জানান তিনি।
এছাড়া বন্যার পানি কমতে শুরু করলেও সিরাজগঞ্জের চৌহালীর প্রায় ১৪ কিলোমিটার নদীতীরবর্তী এলাকায় ব্যাপক ভাঙন শুরু হয়েছে। ব্রহ্মপুত্র, ধরলা, তিস্তা, দুধকুমোর, ফুলকুমোরসহ কুড়িগ্রামের ওপর দিয়ে প্রবাহিত ১৬টি নদ-নদীর পানি হ্রাস পেতে শুরু করায় জেলার বন্যা পরিস্থিতির সামান্য উন্নতি হয়েছে।

টাঙ্গাইলের পরিস্থিতির উন্নতি : টাঙ্গাইলের সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে। তবে জেলার আট উপজেলার লক্ষাধিক মানুষ এখনো পানিবন্দী অবস্থায় রয়েছে। জেলায় দুই শতাধিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্যার পানিতে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে।
রাজাপুরে আকস্মিক ভাঙন : ঝালকাঠির রাজাপুরে বিষখালী নদীতে আকস্মিক ভাঙনে স্থানীয় বাদুড়তলা বাজারের মান্নানের ফার্মেসি, ওহাব মিয়ার ফার্নিচারের দোকান, স-মিল, বাজারসংলগ্ন কালভার্ট ও বাজারের এলজিইডির পাকা সড়কটি বিলীন হয়ে গেছে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর

Works on any devices

সম্পাদক : নঈম নিজাম

ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের পক্ষে ময়নাল হোসেন চৌধুরী কর্তৃক প্লট নং-৩৭১/এ, ব্লক-ডি, বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা, বারিধারা, ঢাকা থেকে প্রকাশিত এবং প্লট নং-সি/৫২, ব্লক-কে, বসুন্ধরা, খিলক্ষেত, বাড্ডা, ঢাকা-১২২৯ থেকে মুদ্রিত।
ফোন : পিএবিএক্স-০৯৬১২১২০০০০, ৮৪৩২৩৬১-৩, ফ্যাক্স : বার্তা-৮৪৩২৩৬৪, ফ্যাক্স : বিজ্ঞাপন-৮৪৩২৩৬৫।

E-mail : [email protected] ,  [email protected]

Copyright © 2015-2019 bd-pratidin.com