শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ১৯ মে, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৮ মে, ২০১৯ ২২:৫৮

বাস উল্টে প্রাণ গেল ছয়জনের

রাজধানীসহ বিভিন্ন স্থানে সড়কে আরও মৃত্যু

প্রতিদিন ডেস্ক

বাস উল্টে প্রাণ গেল ছয়জনের

বাগেরহাটে গতকাল চাকা ফেটে একটি বাস গাছের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে উল্টে গেলে চালকসহ ছয়জন নিহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে একজন নারীও রয়েছেন। এ ছাড়া এদিন রাজধানীসহ বেশ কয়েক স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় আরও কয়েকজনের প্রাণহানি ঘটেছে। আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধির পাঠানো খবর-বাগেরহাট : বাগেরহাটের ফকিরহাটে খুলনা-মাওয়া মহাসড়কে এক মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় বাসচালকসহ ছয়জন নিহত ও অন্তত ১৫ যাত্রী আহত হয়েছেন। গতকাল সকালে খুলনা-মাওয়া মহাসড়কের ফকিরহাট উপজেলার ফলতিতা বাজারের কাকডাঙ্গা নামক স্থানে যাত্রীবাহী বাসের চাকা ফেটে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কা লেগে এ দুর্ঘটনা ঘটে। ফকিরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু জিহাদ জানান, খুলনা থেকে মোল্লাহাটের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসা যাত্রীবাহী বাস (বগুড়া ব-৪৭৪৫) সকাল ১০টার দিকে ফকিরহাট উপজেলার ফলতিতার কাকডাঙ্গা নামক স্থানে পৌঁছালে সামনের চাকার টায়ার ফেটে গাছের সঙ্গে সজোড়ে ধাক্কা খায়। এ সময় বাসটি পড়ে উল্টে গেলে ঘটনাস্থলেই চালকসহ পাঁচজন ও পরে ফকিরহাট হাসপাতালে আরও একজনের মৃত্যু হয়। বাগেরহাট ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক সরদার মাসুদ ঘটনাস্থলে জানান, যাত্রীবাহী বাস দুর্ঘটনার পর হতাহতদের উদ্ধারে বাগেরহাট ও ফকিরহাট ফায়ার সার্ভিসের চারটি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার অভিযানে অংশ নেয়। এ সময় গুরুতর আহতদের উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। নিহতদের মধ্যে রয়েছেন বাগেরহাট সদর উপজেলার যাত্রাপুর ইউনিয়নের কোদলা গ্রামের হেকমোত আলী বিশ্বাস (৪৫), খুলনার কয়রা থানার অর্জুনপুর এলাকার কুদ্দুস সরদার (৬০), বাসের চালক খুলনা রূপসা থানার নৈহাটি এলাকার ফরহাদ শেখ (৪৫), চালকের সহকারী আবদুস সামাদের ছেলে সুমন (২৩), আড়পাড়া গ্রামের ইসারাত মল্লিকের ছেলে লিটু মল্লিক (৩০) ও ফকিরহাট উপজেলার বৈলতলি গ্রামের সেলিম  শেখের স্ত্রী হোসনেয়ারা (৩০)।

রাজধানী ঢাকা : রাজধানীতে দুটি প্রাইভেটকারের মধ্যে সংঘর্ষে ফুলবিবি (৫৫) নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। গতকাল সকালে এলিফ্যান্ট রোড বাটা সিগন্যাল মোড়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ সময় নিহতের পরিবারের ছয়জনসহ মোট সাতজন আহত হয়েছেন।

খুলনা : খুলনায় সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত মাদ্রাসার শিক্ষার্থী মাহিন আলম (১০) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে। এ নিয়ে একই সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতের সংখ্যা দাঁড়াল তিনে। গতকাল রাত আড়াইটার দিকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে সে মারা যায়। এর আগে শুক্রবার বেলা আড়াইটার দিকে তার যমজ অপর ভাই সাকিন আলম ও প্রতিবেশী মাজাহারুল ইসলাম হৃদয় (২৪) নিহত হন।

ফেনী : ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ফেনীর লেমুয়ায় কাভার্ড ভ্যান চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী প্রকৌশলী কামরুল ইসলাম রানা নিহত হয়েছেন। গত শুক্রবার বিকালে এই দুর্ঘটনা ঘটলে আহত অবস্থায় কামরুল ইসলামকে প্রথমে ফেনী জেলা সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাতে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানোর পথেই রাতে তার মৃত্যু হয়।

তিনি সদর উপজেলার লেমুয়া ইউনিয়নের সওদাগর পাড়ার মো. ইলিয়াছের ছেলে। তিনি পেশায় প্রকৌশলী (ডিপ্লোমা) ছিলেন।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর