Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ১১ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১০ অক্টোবর, ২০১৯ ২৩:৪০

সম্রাটের শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল

যাদেরকে টাকা দিতেন, তালিকা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে

নিজস্ব প্রতিবেদক

সম্রাটের শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল

ক্যাসিনোর গডফাদার হিসেবে গ্রেফতার হওয়া যুবলীগ নেতা ইসমাইল চৌধুরী সম্রাটের শারীরিক অবস্থা এখন স্থিতিশীল। গত দুই দিন ধরে তার শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে। পরীক্ষার সব রিপোর্ট হাতে এলে তার হার্টে পেসমেকার লাগানোর বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। গ্রেফতারের আগেই তার পেসমেকারের মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে। এ কারণে তার নতুন পেসমেকার লাগানো প্রয়োজন। আর সেটি বাংলাদেশেই সম্ভব বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। তবে স্বাস্থ্য পরীক্ষার রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পর তা চূড়ান্ত করা হবে।

ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট দীর্ঘদিন ধরে হৃদরোগী। এর আগে সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে তার হার্টে পেসমেকার বসানো হয়।

এদিকে সম্রাটের কাছ থেকে যারা নিয়মিত টাকা নিয়েছেন তাদের একটি তালিকা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে রয়েছে। এর মধ্যে আওয়ামী লীগের গুরুত্বপূর্ণ নেতারাও রয়েছেন। এ ছাড়া যুবদলের শীর্ষ দুই নেতাও সম্রাটের কাছ থেকে টাকা নিতেন। তাদের প্রত্যেকের বিষয়ে খোঁজ-খবর নিচ্ছে র‌্যাব। আর যুবদলের ওই দুই নেতা গোপনে এই সম্পর্ক বজায় রাখতেন রাজনৈতিকভাবে টিকে থাকার জন্য। ঢাকা সিটি যুবলীগের সাংগঠনিক কাজে সম্রাট একচেটিয়াভাবে টাকা খরচ করতেন। রাজধানীর কাকলাইলে ভূঁইয়া ট্রেড সেন্টারে তার অফিস ছাড়াও যুবলীগের গুরুত্বপূর্ণ আরও দুই নেতারও অফিস ছিল। এখান থেকেই যুবলীগের সব কাজ চলত। নিয়ন্ত্রণ করা হতো ক্যাসিনো ক্লাবগুলোও। এসব জায়গা থেকে পাওয়া সম্রাটের টাকা স্বেচ্ছাসেবক লীগের ও ছাত্রলীগের শীর্ষ নেতারাও নিতেন। তাদেরও তালিকা র‌্যাবের কাছে রয়েছে। সব তথ্যই র‌্যাবের তদন্ত কর্মকর্তারা যাচাই-বাছাই করে দেখছেন। পাশাপাশি জি কে শামীম এবং খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া যেসব তথ্য র‌্যাবের কাছে দিয়েছেন সেসব তথ্যও যাচাই করে দেখা হচ্ছে।

বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৬ মাসের সাজাপ্রাপ্ত যুবলীগের নেতা ইসমাইল চৌধুরী সম্রাটকে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় গত সোমবার রাতে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে সেখান থেকে তাকে জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে। এর পরই তার চিকিৎসার জন্য মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়। ১৫ বছর আগে হৃদরোগের সমস্যায় সম্রাটের হার্টের ভাল্ব প্রতিস্থাপন করা হয়।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর