শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ২৩:৩৯

শেখ হাসিনা হত্যাচেষ্টা হামলার ডেথ রেফারেন্স শুনানি শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক

২০০০ সালে গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হত্যাচেষ্টা মামলার ডেথ রেফারেন্সের (মৃত্যুদ- নিশ্চিতকরণ) ওপর শুনানি শুরু হয়েছে। গতকাল বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন সেলিম ও বিচারপতি মো. বদরুজ্জামানের সমন্বয়ে গঠিত ভার্চুয়াল হাই কোর্ট বেঞ্চে এ মামলার শুনানি শুরু হয়। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ড. মো. বশির উল্লাহ, সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল এম এম জি সারোয়ার পায়েল। আসামিপক্ষে ছিলেন মোহাম্মদ আহসান। পরে ড. মো. বশির উল্লাহ বলেন, বুধবার রাষ্ট্রপক্ষে পেপারবুক (মামলার বৃত্তান্ত) থেকে বিচারিক আদালতের রায়ের অপারেটিং অংশ উপস্থাপন করেছি। এ ছাড়া একজন আসামির জবানবন্দিও উপস্থাপন করা হয়েছে। আদালত পরবর্তী শুনানির জন্য ২৩ সেপ্টেম্বর দিন রেখেছেন।

২০০০ সালে কোটালীপাড়া সফরের অংশ হিসেবে শেখ লুৎফর রহমান সরকারি আদর্শ কলেজ মাঠে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভাষণ দেওয়ার কথা ছিল। সমাবেশের দুই দিন আগে ২০ জুলাই কলেজ প্রাঙ্গণে জনসভার প্যান্ডেল তৈরির সময় শক্তিশালী বোমার অস্তিত্ব পাওয়া যায়। ওই কলেজের উত্তর পাশে সন্তোষ সাধুর দোকান ঘরের সামনে থেকে সেনাবাহিনীর একটি দল ৭৬ কেজি ওজনের বোমাটি উদ্ধার করে। পর দিন ২১ জুলাই গোপালগঞ্জ সদর থেকে ৮০ কেজি ওজনের আরও একটি শক্তিশালী বোমা উদ্ধার করা হয়। এসব ঘটনায় পৃথক দুটি মামলা দায়ের করা হয়। ২০১০ সালে মামলা দুটি ঢাকার ২ নম্বর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে স্থানান্তর করা হয়। ২০১৭ সালের ২০ আগস্ট দুই মামলার একটিতে ১০ আসামিকে মৃত্যুদ-াদেশ দেয় আদালত। এ ছাড়া একজন আসামির যাবজ্জীবন কারাদ- ও তিনজনের ১৪ বছর করে কারাদ-ও দেন ঢাকার ২ নম্বর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মমতাজ বেগম। অন্য মামলায় ৯ জনকে ২০ বছর করে কারাদ- দেওয়া হয়। রায় ঘোষণার পর মৃত্যুদ- অনুমোদন ও আসামিদের আপিল শুনানির জন্য মামলাটি হাই কোর্টে আসে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর