শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২২ অক্টোবর, ২০২০ ২৩:৩৯

মামলা কাঁধে নিয়ে মানুষের পাশে

-কামরুজ্জামান রতন

মামলা কাঁধে নিয়ে মানুষের পাশে

বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সমাজ কল্যাণ সম্পাদক ও মুন্সীগঞ্জ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো. কামরুজ্জামান রতন বলেছেন, জেলা বিএনপির নেতা-কর্মীরা মামলা হামলার ভার কাঁধে নিয়েও করোনাকালে মানুষের পাশে থাকার চেষ্টা করেছি। নিজেদের ব্যক্তিগত অর্থে মানুষের পাশে ছিলাম। মুন্সীগঞ্জ জেলার ছয়টি উপজেলাতে আমাদের নেতা-কর্মীরাই নিজেদের অর্থ নিয়ে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। বাংলাদেশ প্রতিদিনকে তিনি বলেন, বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্দেশনানুযায়ী জেলা বিএনপির নেতা-কর্মীরা যে যার সাধ্যমতো অসহায় মানুষের পাশে থেকেছে। আমি আমার ব্যক্তিগত অর্থে ও জেলা বিএনপির আর্থিক ও সার্বিক সহযোগিতায় মুন্সীগঞ্জের ছয় উপজেলায় শীতবস্ত্র ও ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করি। এর মধ্যে গজারিয়া উপজেলায় মুন্সীগঞ্জ জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি, মো. ইদ্রিস মিয়াজী (ভিপিমহন) ও মুন্সীগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মোজাম্মেল হক মুন্নার নেতৃত্বে অন্তত ৩ হাজার ২০০টি পরিবারের মাঝে শীতবস্ত্র ও ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হয়। এ ছাড়াও মুন্সীগঞ্জ সদর ও পৌরসভায় জেলা যুবদলের সভাপতি মো. সুলতান আহাম্মেদ ও জেলা বিএনপির নেতা বাহাউদ্দীন এর নেতৃত্বে প্রায় ২ হাজার ৫০০ পরিবারের মাঝে শীতবস্ত্র ও ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়। শ্রীনগর উপজেলায় এস এম জাহাঙ্গীর, সাবেক সহসভাপতি কেন্দ্রীয় ছাত্রদল ও স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক, নুরুল ইসলাম পার্থর নেতৃত্বে প্রায় ১ হাজার ৫০০ পরিবারের মাঝে শীতবস্ত্র ও ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হয়।

 সিরাজদিখান উপজেলায় জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক, মো. সিদ্দিক মোল্লা ও উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি, অহিদুল ইসলাম অহিদ-এর নেতৃত্বে অন্তত ২ হাজার ২০০ পরিবারে শীতবস্ত্র ও ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হয়। এ ছাড়া টঙ্গীবাড়িতে উপজেলা বিএনপির সভাপতি, আমির হোসেন দোলন-এর নেতৃত্বে ১ হাজার ৮০০ পরিবারে শীতবস্ত্র ও ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হয়। লৌহজংয়ে উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অপুর নেতৃত্বে ২ হাজার ৩০০টি পরিবারের মাঝে শীতবস্ত্র ও ত্রাণ দেওয়া হয়। আমরা আমাদের সাধ্যমতো মানুষের পাশে থাকার চেষ্টা করেছি।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর