শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১৬ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৫ মার্চ, ২০২১ ২৩:৪৫

পিপলস লিজিংয়ের ১২২ ঋণখেলাপির দেশ ত্যাগে নিষেধাজ্ঞা

নিজস্ব প্রতিবেদক

এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংক ও রিলায়েন্স ফাইন্যান্স লিমিটেডের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রশান্ত কুমার (পি কে) হালদারের সহযোগী বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর এস কে সুর চৌধুরী ও বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক শাহ আলম এখনো গ্রেফতার না হওয়ায় বিস্ময় প্রকাশ করেছে হাই কোর্ট। গতকাল বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি আহমেদ সোহেলের সমন্বয়ে গঠিত হাই কোর্ট বেঞ্চ এ বিষয়ে প্রশ্ন তোলে। অন্যদিকে আদালতের তলব আদেশের পরও হাজির না হওয়ায় পিপলস লিজিংয়ের ১২২ ঋণখেলাপির বিদেশ গমনে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে হাই কোর্টের অন্য একটি বেঞ্চ।

বিচারপতি নজরুল ইসলাম তালুকদারের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ দুদক আইনজীবীকে উদ্দেশ করে বলেন, এস কে সুর চৌধুরী ও বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী শাহ আলমকে কেন গ্রেফতার করছেন না? অবশ্যই তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবেন। তখন দুদক আইনজীবী খুরশিদ আলম খান বলেন, তাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ইতিমধ্যে জব্দ করা হয়েছে। তাদের ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।

১২২ জনের বিদেশ যাত্রায় নিষেধাজ্ঞা : অন্যদিকে আদালতের তলব আদেশের পরও হাজির না হওয়ায় পিপলস লিজিংয়ের ১২২ ঋণখেলাপির বিদেশ গমনে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে হাই কোর্ট। বিচারপতি মুহাম্মদ খুরশীদ আলম সরকারের একক হাই কোর্ট বেঞ্চ গতকাল এ আদেশ দেয়। এর আগে গত ২১ জানুয়ারি আর্থিক প্রতিষ্ঠান পিপলস লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেড থেকে ৫ লাখ টাকা ও তার বেশি অর্থঋণ নিয়ে খেলাপি হওয়া এমন ২৮০ ব্যক্তিকে তলব করেছিল হাই কোর্ট। আদালতের তলবে গত ২৩ ও ২৫ ফেব্রুয়ারি ১৫৮ জন ঋণখেলাপি হাই কোর্টে হাজির হয়েছিলেন। বাকিদের পর্যায়ক্রমে আদালতে হাজির হয়ে ঋণ ও ঋণ পরিশোধের বিষয়ে ব্যাখ্যা জানাতে বলা হয়। কিন্তু ১২২ জন আদালতের আদেশের পরও হাজির হননি। গত বছরের নভেম্বরে আদালত পিপলস লিজিংয়ের ঋণগ্রহীতাদের তালিকা দাখিল করতে বলেন বলে জানান আইনজীবী মেজবাহুর রহমান।


আপনার মন্তব্য