শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ২০ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৯ মার্চ, ২০২১ ২৩:৫৫

শাল্লায় রাতভর অভিযান

হামলা মামলায় গ্রেফতার ২৪, বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল ও সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি

সুনামগঞ্জের শাল্লায় ফেসবুক পোস্টের জের ধরে উপজেলার হিন্দু অধ্যুষিত নোয়াগাঁওয়ে বুধবার বাড়িঘরে হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনায় রাতভর অভিযান চালিয়ে পুলিশ ২৪ জনকে গ্রেফতার করেছে। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত থেকে গতকাল দুপুর পর্যন্ত দিরাই ও শাল্লা থানা এলাকায় পৃথক অভিযান চালিয়ে পুলিশ তাদের আটক করে বলে জানান শাল্লা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নাজমুল হক। হামলা-ভাঙচুরের ঘটনায় বৃহস্পতিবার পুলিশ ও স্থানীয় এক ইউপি চেয়ারম্যান বাদী হয়ে শাল্লা থানায় পৃথক দুটি মামলা করেন। ৮০ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও এক থেকে দেড় হাজার জনকে আসামি করা হয়েছে মামলা দুটিতে। শাল্লা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জানান, প্রত্যক্ষদর্শীদের বিবরণ ও ভিডিও ফুটেজ দেখে ওই ২৪ ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান বলেন, আটকদের এ মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে জেলহাজতে পাঠানো হবে। তিনি আরও জানান, গতকাল দুপুরে সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার মশিউর রহমান ও পুলিশের ডিআইজি মফিজ উদ্দিন আহমেদ হামলা-ভাঙচুরের শিকার নোয়াগাঁও পরিদর্শন করেন। এ সময় জেলা ও পুলিশ প্রশসনের কর্মকর্তা ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। ঘটনায় জড়িতদের বিচার নিশ্চিত করা হবে বলে গ্রামবাসীদের আশ্বস্ত করেন প্রশাসনের কর্মকর্তারা।

উল্লেখ্য, সুনামগঞ্জের শাল্লায় স্থানীয় এক যুবক কর্তৃক সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে হেফাজত নেতা আল্লামা মামুনুল হককে নিয়ে দেওয়া একটি পোস্টের জেরে বুধবার সকালে নোয়াগাঁওয়ে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজনের ঘরবাড়ি এবং উপাসনালয়ে হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাট হয়। ওই পোস্টের কারণে অভিযুক্ত যুবককে আগের রাতেই গ্রেফতার করেছিল শাল্লা থানা পুলিশ। এদিকে সুনামগঞ্জে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বাড়িঘরে হামলা-ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনায় বরিশালে পৃথক বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল হয়েছে। গতকাল বেলা ১১টায় বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ) বরিশাল জেলা শাখার উদ্যোগে মহানগরের সদর রোড অশ্বিনী কুমার হলের সামনে এবং প্রায় একই সময়ে একই স্থানে প্রগতিশীল ছাত্রসমাজের ব্যানারে পৃথক বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। জেলা বাসদ আহ্বায়ক প্রকৌশলী ইমরান হাবিব রুমনের সভাপতিত্বে বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য দেন জেলা বাসদ সদস্যসচিব ডা. মনীষা চক্রবর্তী, সদস্য কাজল দাস, মহানগর সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের প্রচার সম্পাদক বিজন সিকদার, সদস্য অদিতি ইসলাম, লামিয়া সাইমন ও শ্রমিক ফ্রন্টের শহীদুল ইসলাম। সমাবেশ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। অন্যদিকে প্রগতিশীল ছাত্রসমাজের সমাবেশে কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আলিসা মুনতাজের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন সামাজিক আন্দোলন নেতা কাজী এনায়েত হোসেন শিবলু ও বিশ্ববিদ্যালয় শাখা প্রগতিশীল ছাত্রসমাজের সংগঠক সুজয় শুভ প্রমুখ। সমাবেশ শেষে তাদের একটি বিক্ষোভ মিছিল প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। দুটি বিক্ষোভ সমাবেশই থেকে সুনামগঞ্জে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বাড়িঘরে হামলা-ভাঙচুর ও লুটপাটে অভিযুক্তদের দ্রুত গ্রেফতার করে কঠোর শাস্তির দাবি জানানো হয়।

চট্টগ্রাম হেফাজতের দাবি : চট্টগ্রাম থেকে নিজস্ব প্রতিবেদক জানান, শাল্লায় সংখ্যালঘুদের বাড়িতে হামলায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চায় হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ। তবে তারা এ হামলার ঘটনাকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে দাবি করেছে। গতকাল দুপুরে গণমাধ্যমে পাঠানো বিবৃতিতে এ দাবি করেন হেফাজতে ইসলামের সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী।


আপনার মন্তব্য