শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ১৩ জুন, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১২ জুন, ২০২১ ২৩:২৯

মঙ্গল থেকে সেলফি পাঠিয়েছে চীনের জুরং

প্রতিদিন ডেস্ক

মঙ্গল থেকে সেলফি পাঠিয়েছে চীনের জুরং
Google News

লাল গ্রহ মঙ্গল থেকে বেশ কিছু নতুন ছবি পৃথিবীতে পাঠিয়েছে চীনের রোবট যান ‘জুরং’। এর মধ্যে একটি সেলফিও আছে। সূত্র : বিবিসি।

এক প্রতিবেদনে বলা হয়, গত মে মাসে মঙ্গলে পৌঁছানো এই রোভার  সেলফি তোলার জন্য প্রথমে মাটিতে তারবিহীন একটি ক্যামেরা বসিয়েছে। তারপর ছয় চাকায় কিছুটা পিছিয়ে গিয়ে নিজের ছবিটি তুলেছে। ছবিতে জুরংয়ের ডান পাশে যে রকেটচালিত প্ল্যাটফরমটি দেখা যাচ্ছে, সেটার পিঠে চেপেই গত মাসে মঙ্গলের বুকে নেমে এসেছিল জুরং। রোভার আর প্ল্যাটফরম, দুই জায়গাতেই শোভা পাচ্ছে গণচীনের লাল পতাকা। জুরংয়ের পাঠানো দ্বিতীয় ছবিতে রোভারটির নিজের প্ল্যাটফরমকেই দেখা যাচ্ছে। ঢালু র‌্যাম্পটি ব্যবহার করেই প্ল্যাটফরম থেকে মঙ্গলের মাটি ছুঁয়েছিল এই রোবট যান। লাল ধুলোর ওপর রয়েছে তার ঘুরে বেড়ানোর চিহ্ন। মঙ্গলের উত্তর গোলার্ধের যে বিস্তৃত ভূখন্ডকে ইউটোপিয়া প্লানিশা নাম দেওয়া হয়েছে, গত ১৫ মে সেই এলাকায় অবতরণ করে সৌরবিদ্যুৎচালিত এই রোবট যান। সেই অবতরণের স্থান থেকে মঙ্গলের দিগন্ত দেখা যাচ্ছে জুরংয়ের পাঠানো আরেকটি ছবিতে। রোভার জুরংয়ের সাফল্য উদযাপনের জন্য এ ছবিগুলো প্রকাশ করেছে চীনা স্পেস এজেন্সি।

বিজ্ঞানীর আশা করছেন, মঙ্গলের বুক থেকে ৯০ দিন পর্যন্ত বিভিন্ন তথ্য পাঠাতে পারবে রোভার ‘জুরং’। চীনের পাঠানো এই রোবটটি দেখতে অনেকটা যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ সংস্থা নাসার রোভার স্পিরিট ও অপরচুনিটির মতোই। ২৪০ কেজি ওজনের জুরংয়ের নাম দেওয়া হয়েছে চীনের অগ্নিদেবতার নামে। এই রোভারে আছে ছয় ধরনের বৈজ্ঞানিক গবেষণার সরঞ্জাম। সৌরজগতের চতুর্থ গ্রহে কখনো প্রাণের সঞ্চার হয়েছিল কি না, তা খুঁজে বের করা এর অন্যতম লক্ষ্য। এর লম্বা মাস্তুলের মতো অংশে একটি ক্যামেরা বসানো আছে, যার সাহায্যে এ রোবট চলার পথ দেখে নেয় এবং ছবি তোলে। এ ছাড়া আরও পাঁচটি যন্ত্রের মাধ্যমে মঙ্গলের আবহাওয়া, পরিবেশ ও প্রকৃতির বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহের পাশাপাশি পাথরের খনিজ উপাদানের অনুসন্ধান করতে পারে ‘জুরং’।

নাসার পাঠানো সাম্প্রতিক রোভারগুলোর (কিউরিওসিটি ও পারসিভের‌্যান্স) মতোই শিলা পাথরের রাসায়নিক উপাদান নিরীক্ষা করার জন্য ‘জুরং’ এর সঙ্গে লেজার রয়েছে। তাছাড়া মাটির তলার পানি ও বরফের অস্তিত্ব খুঁজতে এ রোভারের নিচে আছে বিশেষ রেডার। এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অব অ্যারিজোনা বৃহস্পতিবার মঙ্গলের কক্ষপথ থেকে তোলা ‘জুরং’ এর একটি রঙিন ছবি প্রকাশ করেছে। মঙ্গলের কক্ষপথে ঘুরতে থাকা নাসার মার্স রিকন্যাইস্যান্স অরবিটারের গায়ে বসানো আছে ইউনিভার্সিটি অব অ্যারিজোনার ওই ক্যামেরা।