শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ৩০ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৯ জুলাই, ২০২১ ২২:৩৪

বসুন্ধরা গ্রুপের সহায়তা

বগুড়ায় ৯০০ পরিবারে আনন্দের ছোঁয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া

বগুড়ায় ৯০০ পরিবারে আনন্দের ছোঁয়া
Google News

বগুড়ার তিনটি উপজেলার ৯০০ অসহায় পরিবারে আনন্দের ছোঁয়া এনে দিল বসুন্ধরা গ্রুপের সহায়তা। গতকাল জেলার শেরপুর, শাজাহানপুর ও ধুনট উপজেলার অসহায় পরিবারগুলো বসুন্ধরা গ্রুপের ১৬ কেজি ওজনের খাদ্যসামগ্রী পাওয়ার পর পরিবারের সদস্যদের মাঝে এই আনন্দ দেখা গেছে। খাদ্যসামগ্রী হাতে পেয়ে তাদের কারও চোখে জল, কারও চোখে প্রশান্তির প্রতিচ্ছবি দেখা গেল। বসুন্ধরা গ্রুপের খাদ্যসামগ্রী পেয়ে আনন্দের সঙ্গে বাড়ি ফিরতে দেখা গেছে সবাইকে।

দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্পপ্রতিষ্ঠান বসুন্ধরা গ্রুপ কালের কণ্ঠ শুভসংঘের মাধ্যমে সারা দেশে করোনাকালে অসহায় হয়ে পড়া পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী তুলে দিচ্ছে। গতকাল সকালে বগুড়া জেলায় বিতরণের দ্বিতীয় দিনে শেরপুর, শাজাহানপুর ও ধুনট উপজেলার ৩০০ করে ৯০০ পরিবারে স্বাস্থ্যবিধি মেনে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয়।

সকালে শেরপুর উপজেলার উলিপুর আমেরিয়া সমতুল্যা বালিকা সিনিয়র মাদরাসা মাঠে করোনায় কর্মহীন মানুষের মাঝে ১০ কেজি চাল, ৩ কেজি ডাল ও ৩ কেজি আটা তুলে দেওয়া হয়। বসুন্ধরা গ্রুপের খাদ্যসামগ্রী পেয়ে সেফাত আলী বলেন, ঈদের আগে কয়েক দিন কাজ পেলেও এখন হাতে কোনো কাজ নেই। বয়স বেড়ে যাওয়ায় অনেকে কাজও দিতে চায় না। তাই কর্মহীন হয়ে পড়েছি। অভাবের কারণে সন্তানরাও খোঁজ রাখে না। বসুন্ধরা গ্রুপের খাদ্যসামগ্রী পেয়ে তিনি খুশি হয়েছেন। তার বেশ কয়েক দিন চলে যাবে। তার চোখে ছিল আনন্দের অশ্রু। ভ্যানচালক হাকিম মিয়া জানান, কাজ কমে যাওয়ায় পরিবার-পরিজন নিয়ে ভালোভাবে খেতে পারছেন না। বসুন্ধরার চাল, ডাল ও আটায় তার ৯-১০ দিন চলে যাবে। ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমে উপস্থিত হয়ে বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও শেরপুর উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ মজিবুর রহমান মজনু বলেন, বসুন্ধরা গ্রুপ অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। শুভসংঘের মাধ্যমে পুরো বগুড়া জেলার প্রত্যেক উপজেলায় দুস্থ মানুষদের খাবার সহায়তা দিচ্ছে। মানবিক সহায়তা নিয়ে এগিয়ে আসায় বসুন্ধরা গ্রুপকে ধন্যবাদ জানাই। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন শেরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মঈনুল ইসলাম, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম, পৌরসভার মেয়র জানে আলম খোকা, শুভসংঘের পরিচালক জাকারিয়া জামান, কালের কণ্ঠের ব্যুরো প্রধান লিমন বাসার, শেরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুস সাত্তার প্রমুখ।

এদিকে ধুনট উপজেলায় ৩০০ অসহায় ও দুস্থ পরিবারকে খাদ্যসামগ্রী দিয়েছে বসুন্ধরা গ্রুপ। উপজেলার ধুনট এন ইউ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বসুন্ধরা গ্রুপের সহায়তায় এই ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হয়। ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমে ধুনট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সঞ্জয় কুমার মহন্ত বলেন, বসুন্ধরা গ্রুপ সারা দেশে ত্রাণসামগ্রী বিতরণের উদ্যোগ নিয়েছে। এরই অংশ হিসেবে বগুড়ার সবগুলো উপজেলায় শুভসংঘের মাধ্যমে অসহায় মানুষকে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করছে। বসুন্ধরা গ্রুপকে এজন্য ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই। এ সময় উপস্থিত ছিলেন পৌরসভার মেয়র এ জি এম বাদশাহ, ধুনট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কৃপা সিন্ধু বালা প্রমুখ। এ ছাড়া জেলার শাজাহানপুর উপজেলায় একই সময়ে ৩০০ পরিবারের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হয়। বসুন্ধরা গ্রুপের ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শাজাহানপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান প্রভাষক সোহরাব হোসেন ছান্নু, উপজেলা নির্বাহী অফিসার আসিফ আহমেদ ও শুভসংঘের সদস্যরা।