শিরোনাম
প্রকাশ : ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৬:৫৪
প্রিন্ট করুন printer

এখন ঘরে ঘরে মানুষ ডিজিটাল সেবার সুবিধা পাচ্ছে: বাণিজ্যমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

এখন ঘরে ঘরে মানুষ ডিজিটাল সেবার সুবিধা পাচ্ছে: বাণিজ্যমন্ত্রী
বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। ফাইল ছবি

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, ‘বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম রফতানি খাত হবে আইসিটি। বছরে পাঁচ বিলিয়ন রফতানির লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে সরকার কাজ করছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার ঘোষণা দিয়ে দেশ পরিচালনার দায়িত্বভার গ্রহণ করেছিলেন। ডিজিটাল বাংলাদেশ আজ স্বপ্ন নয়, বাস্তব। দেশের মানুষ এখন ডিজিটাল সেবা গ্রহণ করছে। এখন ঘরে ঘরে মানুষ ডিজিটাল সেবার সুবিধা পাচ্ছেন।’ 

আজ বৃহস্পতিবার বাণিজ্য মন্ত্রণালয় পরিচালিত ‘ই-বাণিজ্য করব, নিজের ব্যবসা গড়ব’ শীর্ষক প্রকল্পের উদ্যোগে চট্রগ্রামে ই-কমার্স প্রশিক্ষণের সমাপনী ও সনদ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ই-কমার্স আজ বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। বাংলাদেশেও এর জনপ্রিয়তা বাড়ছে। করোনাকালিন মানুষ ঘরে বসে ই-কমার্সের সুবিধা গ্রহণ করেছেন। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ই-কমার্সের কর্মীরা মানুষের ঘরে প্রয়োজনীয় পণ্য পৌঁছে দিয়েছেন। আজ মানুষ ই-কমার্সের দিকে আগ্রহী হচ্ছে। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এ সম্ভাবনাময় সেক্টরের ওপর গুরুত্ব দিয়ে কাজ করছে। ই-কমার্সের সেবা বিশ্বমানের করার জন্য ব্যবসায়ীদের প্রশিক্ষণের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। এতে করে ব্যবসায়ীদের দক্ষতা বাড়বে এবং ই-বাণিজ্য সেবার মান বাড়বে।’

তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ দ্রুতগতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশের উন্নয়ন এখন দৃশ্যমান। দেশে বড় বড় প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে। বিশ্ববাসী বাংলাদেশের উন্নয়নের প্রশংসা করছে। প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ধারণ করে একের পর এক তা বাস্তবায়ন করছেন। দেশকে ভালোবেসে প্রধানমন্ত্রীর প্রচেষ্টাকে সফল করতে হবে।’

চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মো. মমিনুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন বাণিজ্যসচিব ড. মো. জাফর উদ্দীন, চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের প্রেসিডেন্ট মাহবুবুল আলম এবং ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট শমী কায়সার। 

বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৭:৩৮
আপডেট : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৭:৩৮
প্রিন্ট করুন printer

রোবটকে বাংলা বোঝানোর প্রযুক্তি আসছে

অনলাইন ডেস্ক

রোবটকে বাংলা বোঝানোর প্রযুক্তি আসছে
জুনাইদ আহমেদ পলক। ফাইল ছবি

‌‘বাংলা ভাষা সমৃদ্ধকরণ প্রকল্পে রোবটকে বাংলায় কথা বোঝানোর প্রযুক্তি তৈরি করা হচ্ছে’, বলে জানিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।  

আজ শুক্রবার ‘বাংলা ডট গভ ডট বিডি’ (banala.gov.bd) ও ‘ধ্বনি’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা জানান তিনি। আইসিটি বিভাগের উদ্যোগে ভার্চুয়াল প্লাটফর্মে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে ওয়েবসাইট ও সফটওয়্যারটির পরীক্ষামূলক উন্মুক্ত করা হয়।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাকে জাতিসংঘের ভাষা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে প্রয়োজনীয় সফটওয়্যার তৈরি হচ্ছে। প্রকল্পের আওতায় তৈরি করা হচ্ছে ভাষা-প্রযুক্তি ও কৃত্রিম-বুদ্ধিমত্তার অনেকগুলো সার্ভিস ও রিসোর্স।’

‘গবেষণা ও উন্নয়নের মাধ্যমে তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহার করে বাংলা ভাষা সমৃদ্ধকরণই এ প্রকল্পের উদ্দেশ্য। এ ছাড়া গ্লোবাল প্লাটফর্মে নেতৃস্থানীয় ভাষা হিসেবে বাংলা ভাষাকে প্রতিষ্ঠা করা। বিশেষ করে কম্পিউটিং ও আইসিটিতে বাংলা ভাষাকে অভিযোজিত করা বা খাপ খাইয়ে নেওয়া। বাংলাকে জাতিসংঘের ভাষা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে হলে রিয়েল-টাইম অটোমেটিক স্পিচ টু স্পিচ ম্যাশিন ট্রান্সলেশনসহ বিভিন্ন রিসোর্সের প্রয়োজন হয়।’

‘পৃথিবীর সকল বাংলা ভাষী যেমন এ থেকে প্রত্যক্ষ উপকার পাবে, তেমনি ক্ষুদ্র-নৃগোষ্ঠী সদস্য ও বাক-দৃষ্টি-শ্রবণ প্রতিবন্ধী জনগোষ্ঠী এর মাধ্যমে সুফল পাবে। এর মাধ্যমে ২০২১ সালের মধ্যে অধিকাংশ সার্ভিস জনগণের কাছে পৌঁছাতে পারব। এরই ধারাবাহিকতায় বাংলা ডট গভ ডট বিডি ও ধ্বনি সফটওয়্যারটির ‘পরীক্ষামূলক সংস্করণ’ প্রকাশ করা হলো। এই প্রকল্পের মধ্যে রয়েছে ২০টি পাবলিক ফেসিং সার্ভিস, ১৬টি রিসার্চ টুলস ও রিসোর্স, ৮ ধরনের স্ট্যান্ডার্ড ও প্রিন্টেড রিসোর্স এবং ১০ ধরনের করপাস/ডেটাসেট উল্লেখযোগ্য’,- বলেন জুনাইদ আহমেদ পলক। 

বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ 

 
 


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৬:১৭
আপডেট : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৯:১৯
প্রিন্ট করুন printer

'মুশতাকের মৃত্যুতে কারা কর্তৃপক্ষের গাফিলতি আছে কি-না তা তদন্ত করা হবে'

অনলাইন ডেস্ক

'মুশতাকের মৃত্যুতে কারা কর্তৃপক্ষের গাফিলতি আছে কি-না তা তদন্ত করা হবে'
সংগৃহীত ছবি

লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর ঘটনায় কারা কর্তৃপক্ষের কোনো গাফিলতি আছে কি-না তা তদন্ত করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। মুশতাক আহমেদ বিভিন্ন ব্যক্তির বিরুদ্ধে মানহানিকর লেখা লিখতেন বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

আজ শুক্রবার বেলা ১২টার দিকে চট্টগ্রাম নগরের ষোলশহর ২ নম্বর গেট মোড়ে চট্টগ্রাম জেলা পুলিশের নবনির্মিত কার্যালয় উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘এজন্য তার বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটা মামলা ছিল। সর্বশেষ ২০২০ সালে দায়ের হওয়া ডিজিটাল নিরাপত্তা মামলায় তিনি গাজীপুরের কাশিমপুর হাইসিকিউরিটি কারাগারে বন্দি থাকা অবস্থায় বৃহস্পতিবার মৃত্যুবরণ করেন। তবে তার মৃত্যুতে কারা কর্তৃপক্ষের কোনো গাফিলতি আছে কি-না তা তদন্ত করা হবে।’

প্রসঙ্গত, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে কারাবন্দি লেখক মুশতাক আহমেদ (৫৩) কাশিমপুর হাইসিকিউরিটি কারাগারে ছিলেন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে কারাগারের ভেতর হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাকে প্রথমে কারা হাসপাতালে নেয়া হয়। পরে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে মৃত ঘোষণা করেন।

সাংবাদিকদের আরেক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আল-জাজিরার প্রতিবেদন তৈরিতে জড়িত বাংলাদেশিদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। বাংলাদেশে থেকে কারা এই মিথ্যা প্রতিবেদন তৈরিতে সহযোগিতা করেছে সেটা নিয়ে তদন্ত করছে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র চলছে। সরকার এসব ষড়যন্ত্র মোকাবিলায় শক্তভাবে কাজ করছে।’

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৪:৪৮
প্রিন্ট করুন printer

নতুন প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে গড়ে তুলতে হবে: প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

নতুন প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে গড়ে তুলতে হবে: প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

নতুন প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম। শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) ঢাকার কেরাণীগঞ্জে ঢাকাস্থ খুলনার সাবেক ছাত্রলীগ ফাউন্ডেশনের বনভোজন ও মিলনমেলা ২০২১-এ প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ আহ্বান জানান। 

এসময় মন্ত্রী বলেন, সন্তানদের শেখাতে হবে  মুক্তিযুদ্ধের চেতনা কাকে বলে। কোমলমতি বাচ্চাদের শেখাতে হবে অসাম্প্রদায়িকতা কাকে বলে। তাদেরকে শেখাতে হবে বঙ্গবন্ধু একটা প্রতিষ্ঠান ছিল। তার জীবনালেখ্য পড়াতে হবে। বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা ঊনিশবার মৃত্যুর মুখোমুখি হয়েও কীভাবে অদম্য গতিতে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন, সেটাও এ প্রজন্মকে শেখাতে হবে।

তিনি আরও বলেন, '৭১ এ পাকিস্তানিদের নৃশংসতার কথা নতুন প্রজন্মকে জানাতে হবে। একদিন বাংলাদেশে আমরা ক্ষমতায় নাও থাকতে পারি, কিন্তু আমাদের সন্তানরা যেন বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বেড়ে উঠে।

ঐতিহাসিক ৭ মার্চকে স্মরণ করে শ ম রেজাউল করিম আরো বলেন, ৭ মার্চ প্রকৃতপক্ষে বাঙালির স্বাধীনতা ঘোষণার দিন। বঙ্গবন্ধু '৭১ এর ২৬ শে মার্চ প্রথম প্রহরে আনুষ্ঠানিকভাবে স্বাধীনতার ঘোষণা করেছিলেন। কিন্তু ৭ মার্চ বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম। এদিন তিনি যার যা কিছু আছে তাই নিয়ে প্রস্তুত থাকতে বলেছিলেন। তার মানে ৭ মার্চে স্বাধীনতার ঘোষণা হয়ে গিয়েছিল। এটাই বাস্তবতা।


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ সিফাত


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২০:১২
প্রিন্ট করুন printer

সকল ষড়যন্ত্রের ব্যুহ ভেদ করতে হবে: শ ম রেজাউল করিম

নিজস্ব প্রতিবেদক

সকল ষড়যন্ত্রের ব্যুহ ভেদ করতে হবে: শ ম রেজাউল করিম
শ ম রেজাউল করিম (ফাইল ছবি)

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, দেশী-বিদেশী ষড়যন্ত্রের ব্যাপারে আমাদের সতর্ক থাকতে হবে, যাতে কোন অপচেষ্টাকারী অপপ্রচার দিয়ে মানুষকে বিভ্রান্ত করতে না পারে। ক্ষমতায় থাকলে সব সময় ভালো আছি এ কথা ভাবার কোন কারণ নেই। শত্রুর ষড়যন্ত্র ভেতরে থেকেও আসে। 

তিনি বলেন, দেশে বঙ্গবন্ধু হত্যা ও যুদ্ধাপরাধের বিচার হয়েছে। এজন্য আমরা আনন্দিত। এর পাশাপাশি মনে রাখতে হবে ৭৫’র ১৫ আগস্টও আওয়ামী লীগ রাষ্ট্র ক্ষমতায় ছিল। দেশের ভেতর ও বাইরে তখনও ষড়যন্ত্র ছিল, এখনো আছে। ইতিহাসের মীর জাফরদের তালিকায় খন্দকার মোশতাক, জিয়াউর রহমানসহ অনেকেই আছেন। তাদের স্বরূপ বুঝতে হবে। ইস্পাত কঠিন আদর্শিক দৃঢ়তা দিয়ে সকল ষড়যন্ত্রের ব্যুহ ভেদ করতে হবে।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর ফার্মগেটে কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ মিলনায়তনে শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদের ৩৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে আয়োজিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। 

শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান রকিবুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চুয়ালি সংযুক্ত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। 

আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে আরও বক্তব্য প্রদান রাখেন শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদের মহাসচিব ও সংসদ সদস্য মাহমুদ উস্ সামাদ চৌধুরী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী বিপ্লব বড়ুয়া, সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু ও সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আবেদীন খান।


“বর্তমানে বাংলাদেশ দুইভাগে বিভক্ত। একটি বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার একটি পক্ষ। অপরটি মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী আওয়ামী লীগের বিরোধী পক্ষ।” 

এসময় বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা আর শেখ হাসিনার নেতৃত্বের জায়গায় থাকতে নতুন প্রজন্মকে আহ্বানও জানান মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৮:৫৫
আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৮:৫৬
প্রিন্ট করুন printer

আন্দোলনে ব্যর্থ একটি মহল শিক্ষার্থীদের ব্যবহার করতে চাইছে : শিক্ষামন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

আন্দোলনে ব্যর্থ একটি মহল শিক্ষার্থীদের ব্যবহার করতে চাইছে : শিক্ষামন্ত্রী
ফাইল ছবি

বিভিন্ন আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে একটি মহল শিক্ষার্থীদের ব্যবহার করতে চাইছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় একটি অনুষ্ঠানে শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

শিক্ষার্থীদের সরকারের এই সিদ্ধান্ত মেনে নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘দীর্ঘ সময় বন্ধ থাকার কারণে হলগুলোর সংস্কারকাজ এবং শিক্ষার্থীর সুরক্ষার কথা চিন্তা করে বিশ্ববিদ্যালয় খোলার জন্য সময় নেওয়া হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আগামী শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে আন্তমন্ত্রণালয় কমিটির বৈঠক হবে, সেখানে আগামী ১ মার্চ থেকে স্কুল খুলে দেওয়া হবে কী না, সেই বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানানো হবে।’

বিডি-প্রতিদিন/শফিক


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর