শিরোনাম
প্রকাশ : ১৫ আগস্ট, ২০২১ ১৮:৩৯
আপডেট : ১৫ আগস্ট, ২০২১ ১৯:১৭
প্রিন্ট করুন printer

বাঙালির হৃদয়ের সর্বশ্রেষ্ঠ অনুভূতির নাম বঙ্গবন্ধু : এনামুল হক শামীম

নিজস্ব প্রতিবেদক

বাঙালির হৃদয়ের সর্বশ্রেষ্ঠ অনুভূতির নাম বঙ্গবন্ধু : এনামুল হক শামীম
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান
Google News

পানি সম্পদ উপমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এ কে এম এনামুল হক শামীম এমপি বলেছেন, বাঙালির হৃদয়ের সর্বশ্রেষ্ঠ অনুভূতির নাম বঙ্গবন্ধু। তিনি বাংলাদেশের একজন স্বপ্নদ্রষ্টা। তিনি স্বপ্ন দেখেছিলেন বলেই আমরা একটা আলাদা মানচিত্র, পতাকা পেয়েছি। তিনি নিজের জন্য ভাবেননি, দেশের কথা, দেশের মানুষের কথা ভেবেছেন। নিঃস্বার্থভাবে দেশের জন্য কাজ করে গেছেন। এদেশের জন্য তিনি নিজের জীবন দিয়ে প্রমাণ করে গেছেন। তিনি আমাদের জাতির জনক সব দলমত মতের ঊর্ধ্বে। তার জন্ম না হলে বাংলাদেশ স্বাধীন হতো না। 

স্বাধীন বাংলার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর ৪৬তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে রবিবার চট্টগ্রামের পোর্ট সিটি ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি আয়োজিত আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল এবং কবিতা ও হামদ-নাথ প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশের অস্তিত্বে মিশে আছেন। যতদিন বাংলাদেশ থাকবে ততদিন জাতির মহানায়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মানুষের মনিকোটায় থাকবেন। যার জন্য আমরা এই স্বাধীন দেশে নিঃশ্বাস নিতে পারছি, তিনি আমাদের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু। বঙ্গবন্ধু মানেই বাংলাদেশ, বঙ্গবন্ধু মানেই স্বাধীনতা, বঙ্গবন্ধু মানেই মুক্তিযুদ্ধ। তাকে বাদ দিয়ে বাংলাদেশকে কল্পনা করা যায় না।

পোর্ট সিটি ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. নূরল আনোয়ারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন সাইফুজ্জামান শিখর এমপি, বিওটি’র চেয়ারম্যান তাহমিনা খাতুন শিলু, মাহফুজুল হায়দার চৌধুরী রোটন,  প্রফেসর ড. এম. মজিবুর রহমান, ডা. জাহানারা আরজু, প্রফেসর ড. গনেশ চন্দ্র রায়, প্রফেসর মফজল আহম্মেদ, আতাউস সামাদ রাজু।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রভাষক সানজিদা ওয়াদুদ উপমা। অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ ১৫ আগস্ট শহীদ হওয়া সকলের আত্মার মাগফিরাত কামনা এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করে বিশেষ দোয়া এবং মোনাজাত করা হয়।

অনুষ্ঠান শেষে বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী, কারাগারের রোজনামচাসহ বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্মের ওপর লিখিত বিভিন্ন বই উপহার দেয়া হয়।

বিডি-প্রতিদিন/শফিক

এই বিভাগের আরও খবর