শিরোনাম
প্রকাশ : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০৯:০৬
আপডেট : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০৯:১০
প্রিন্ট করুন printer

মাদারীপুরের দুই পৌরসভায় ভোট গ্রহন চলছে

মাদারীপুর প্রতিনিধি

মাদারীপুরের দুই পৌরসভায় ভোট গ্রহন চলছে

মাদারীপুর ও শিবচর পৌরসভায় নির্বাচনে আজ রবিবার সকাল ৮টা থেকে ভোট গ্রহন শুরু হয়েছে। নির্বাচন করে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ দায়িত্ব পালনে স্ব স্ব কেন্দ্রে মোতায়েন রয়েছে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, বিজিবি, পুলিশ ও আনসার সদস্যরা। ভোট কেন্দ্রে ভোটারদের ভীড় লক্ষ্য করা গেছে।

নির্বাচন কার্যালয়ের সূত্র জানায়, মাদারীপুর ও শিবচর পৌরসভায় প্রথমবারের মতো ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) পদ্ধতিতে ভোট নেওয়া হবে। নির্বাচন শান্তিপূর্ণ করতে নির্বাচনী এলাকা জুড়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তৎপর রয়েছে। 

কেন্দ্রে কেন্দ্রে পৌঁছানো হয়েছে সরঞ্জামাদি। দুটি পৌর নির্বাচনে দুজন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ও ৯জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়াও, তিন প্লাটুন বিজিবি, অসংখ্য পুলিশ ও আনসার সদস্য দায়িত্ব পালন করবেন। এছাড়া প্রতিটি ভোট কেন্দ্রে ৯ থেকে ১০ জন করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী দায়িত্ব পালন করবেন। 

মাদারীপুর পৌরসভার ৯টি ভোটকেন্দ্রে ৫১ হাজার ৭৭৮ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। এদের মধ্যে পুরুষ ভোটার ২৪ হাজার ৭২৩ জন ও নারী ভোটারের সংখ্যা ২৬ হাজার ৭৫৫ জন। 

মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন চার জন। সাধারন কাউন্সিলর পদে লড়ছেন ২৭ জন ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৮ জন প্রার্থী। অন্যদিকে শিবচর পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী আওলাদ হোসেন খান বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ায় সাধারন কাউন্সিলর পদে লড়ছেন ৩১ জন ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৭ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। 

নির্বাচনে নয়টি কেন্দ্রে ৪৮ বুথে ইভিএমের মাধ্যমে ১৭ হাজার ৯১৮ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। এদের মধ্যে ৯ হাজার ১৭ জন নারী, ৮ হাজার ৯৬১ জন পুরুষ ভোটার। সকাল ৮টা থেকে বিকেলে ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে চলবে এই ভোট গ্রহণ।

জেলা রিটানিং ও নির্বাচন কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান বলেন, ‘নির্বাচন শান্তিপূর্ণ করতে আমরা সব ধরণের আয়োজন সম্পূর্ণ করেছি। শুক্রবার(২৬ ফেব্রুয়ারি) রাত থেকে ম্যাজিস্ট্রেট, বিজিবি, পুলিশ ও আনসার সদস্যরা টহলে আছেন। তবে র‌্যাব-৮ এর কাছে চিঠি দেওয়া হলেও তাদের কোন সদস্যকে আমরা মাঠে পাইনি।’ 

তিনি আরও বলেন, 'নির্বাচনের আগের দুই দিন আমরা কেন্দ্রে কেন্দ্রে মগ ভোটিংএর আয়োজন করেছি। এতে সাধারণ ভোটারগণ ইভিএমে ভোট সম্পর্কে সুষ্ঠু ধারণা পেয়েছে। নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণার দিনগুলোয় কোন প্রকার অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। আজ রবিবার সকাল থেকেও কোন ধরনের অপ্রিতীকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। আশা করছি দিন শেষে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ একটি নির্বাচন আমরা উপহার দিতে পারবো।’

 

বিডি প্রতিদিন / অন্তরা কবির 


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর