শিরোনাম
প্রকাশ : ১২ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০৮:২৮
আপডেট : ১২ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১০:২৮

খালেদা জিয়ার জামিন শুনানি ঘিরে দেশব্যাপী কঠোর নিরাপত্তা

অনলাইন ডেস্ক

খালেদা জিয়ার জামিন শুনানি ঘিরে দেশব্যাপী কঠোর নিরাপত্তা
সুপ্রিম কোর্ট এলাকায় কঠোর নিরাপত্তা

আজ বৃহস্পতিবার আবারও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলার জামিন শুনানি। বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার জামিনের আশায় আছেন দলীয় নেতা-কর্মীরা। তার জামিন আবেদন শুনানির জন্য কার্যতালিকার ১২ নম্বরে রাখা হয়েছে।

কারাবন্দী বেগম খালেদা জিয়ার ভাগ্যে কী ঘটছে তা নিয়ে বিএনপির নেতা-কর্মীসহ উৎসুক মানুষের দৃষ্টি আজ উচ্চ আদালতের দিকে। আদেশকে ঘিরে সুপ্রিম কোর্ট এলাকাসহ সারাদেশেই কঠোর নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। 

আন্দোলনের নামে কোনো সহিংসতা ভাঙচুর সহ্য করা হবে না বলে জানিয়েছেন রমনা বিভাগের উপ কমিশনার সাজ্জাদুর রহমান। তিনি বলেন, শাহবাগ থেকে শুরু করে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল ও মৎস্য ভবনের সামনে ও প্রেসক্লাব ও আদালতের পুরো এলাকায় বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

গত ২৫ নভেম্বর জামিন আবেদনের শুনানির জন্য প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন পাঁচ বিচারপতির আপিল বেঞ্চ ২৮ নভেম্বর দিন ঠিক করে। এর আগে গত ১৪ নভেম্বর আপিল বিভাগের সংশ্লিষ্ট শাখায় জামিন চেয়ে এ আপিল আবেদন করা হয়। গত বছরের ২৯ অক্টোবর পুরান ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগারের প্রশাসনিক ভবনের সাত নম্বর কক্ষে স্থাপিত ঢাকার পঞ্চম বিশেষ জজ আদালতের বিচারক মো. আখতারুজ্জামান (বর্তমানে হাই কোর্ট বিভাগের বিচারপতি) জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়াকে সাত বছরের সশ্রম কারাদন্ড দেয়। একই সঙ্গে তাকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ছয় মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয় রায়ে।

বিডি প্রতিদিন/এনায়েত করিম


আপনার মন্তব্য