শিরোনাম
প্রকাশ : ১ অক্টোবর, ২০২০ ২০:২০
আপডেট : ২ অক্টোবর, ২০২০ ০০:৪১

আইসিএসডি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বাংলাদেশ

অনলাইন ডেস্ক

আইসিএসডি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বাংলাদেশ

ইন্টারন্যাশনাল কনসোর্টিয়াম ফর সোস্যাল ডেভলপমেন্ট (আইসএিসডি) অস্ট্রেলিয়ার নির্বাচনে ভাইস-প্রেসিডেন্ট পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে বাংলাদেশ। সামাজিক উন্নয়ন বিষয়ক আন্তর্জাতিক এই থিঙ্কট্যাঙ্ক প্রতিষ্ঠানটির ডিজিটাল মিডিয়া এডভাইজার ও ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ফোকলোর স্টাডিজ বিভাগের চেয়ারম্যান ড. মিঠুন মোস্তাফিজ এ পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

ড. মোস্তাফিজ নোবেল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি-ইউএস’এর ভিজিটিং প্রফেসর এবং পিএইচডি গবেষণা তত্ত্বাবধায়ক । তার মনোনয়নপত্র এরইমধ্যে আইসিএসডি নির্বাচন কমিশন কর্তৃক গৃহীত হয়েছে।

সামাজিক উন্নয়ন চিন্তক, গবেষক, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক ও আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা সংশ্লিষ্ট বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বিশেষজ্ঞদের নিয়ে গঠিত আইসিএসডি’র প্রায় দু’শো সদস্যের ভোটে নির্বাচিত হবেন প্রার্থীরা।

এরিমধ্যে আইসিএসডি’র স্বাধীন নির্বাচন কমিশন গঠিত হয়েছে। নরওয়েজিয়ান ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলোজি- এনটিএনইউ- এর অধ্যাপক রোর সান্ডবাইকে প্রধান নির্বাচন কমিশনার নিযুক্ত করা হয়েছে। কমিশনের অন্য দুই সদস্য হলেন- যুক্তরাষ্ট্রের শিক্ষা ও সামাজিক উন্নয়ন বিশারদ ড. ফ্রেড্ডি উইলসন এবং ভারতের উন্নয়ন বিশেষজ্ঞ ড. পারমিতা রায়।

আইসিএসডি সদস্যরা ইন্টারনেটের মাধ্যমে বিশেষায়িত সফটওয়্যার ব্যবহার করে ভোট দিতে পারবেন। আগামী ১০ অক্টোবর পর্যন্ত দূর নিয়ন্ত্রিত এ পদ্ধতিতে ভোট দিতে পারবেন বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের ভোটাররা।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার রোর সান্ডবাই বলেন, আমরা প্রার্থীদের মনোয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষ করেছি। এখন সর্বোচ্চ নিরপেক্ষতা নিয়ে ভোটারদের কাছে একটি সহজ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন উপহার দেবার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

এদিকে, সংস্থাটির প্রেসিডেন্ট ও অষ্ট্রেলিয়ার চার্লস স্টুয়ার্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের সোস্যালওয়ার্ক বিভাগের চেয়ারম্যান ড. মনোহর পাওয়ার বলেন, ‘'গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ বজায় রেখে এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আশা করি সদস্যরা সামাজিক উন্নয়ন বিষয়ে সংস্থাটির বৈশ্বিক নেতৃত্ব খুঁজে পাবেন।’’

আইসিএসডি প্রেসিডেন্ট বলেন, এশিয়া, ইউরোপ ও অস্ট্রেলিয়ায় ক্রমবর্ধমান সামাজিক অস্থিরতা, অর্থনৈতিক উন্নয়নের শ্লথ গতি সামাজিক উন্নয়ন ও শান্তির পথে বাঁধা সৃষ্টি করছে। জাতিগত নিধন, গণহত্যা এবং বর্ণ বৈষম্যের শিকার মানুষ শান্তি ও নিরাপত্তার খোঁজে হন্য হয়ে এক দেশ ছেড়ে আরেক দেশে আশ্রয় নিচ্ছে। চলমান বৈশ্বিক সামাজিক সঙ্কট হতে উত্তোরণের কার্যকরী পথ খুঁজতেই কাজ করে যাচ্ছে আইসিএসডি। সংস্থার মহৎ এসকল কর্মকান্ড এগিয়ে নেবে আইসিএসডির আগামী দিনের নতুন নেতৃত্ব।

আটটি শূন্য পদে অনুষ্ঠিত হচ্ছে আইসিএসডির এবারের নির্বাচন। প্রেসিডেন্ট এবং ভাইস- প্রেসিডেন্ট পদে মোট আটজন এবং মেম্বার এট লার্জ পদে দশ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

গত বছর সামাজিক উন্নয়ন বিষয়ক এশিয়-প্রশান্ত মহাসাগরীয় আন্তর্জাতিক জোট- আইসিএসডিএপি’র সর্ববৃহৎ আন্তর্জাতিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় বাংলাদেশে। এ সম্মেলনে সহযোগী আয়োজক ছিল সিঙ্গাপুর ও থাইল্যান্ড।

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর