Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১৬ জুন, ২০১৯ ১১:৫৯

কৃতজ্ঞতা সমাবেশে পিপল এন টেকের আবু হানিপকে সম্মাননা

এনআরবি নিউজ, নিউইয়র্ক থেকে

কৃতজ্ঞতা সমাবেশে পিপল এন টেকের আবু হানিপকে সম্মাননা
ইঞ্জিনিয়ার আবু হানিপকে বিশেষভাবে সম্মান জানান সাবেক শিক্ষার্থীরা। ছবি : এনআরবি নিউজ।

উদ্যমী-মেধাবী প্রবাসীদের স্কিল্ড ডেভেলপমেন্টের মধ্যদিয়ে উচ্চ বেতনে মার্কিন আইটি কোম্পানীতে চাকরির পথ সুগম করায় ‘পিপল এন টেক’র কর্ণধার ইঞ্জিনিয়ার আবু হানিপকে সংবর্ধনা জানিয়েছেন বিভিন্ন কোম্পানীতে কর্মরতরা। 

শনিবার নিউইয়র্ক সিটির জ্যাকসন হাইটসের বেলজিনো পার্টি হলে ‘পিপল এন টেক’ এর সাবেক শিক্ষার্থীদের পুনর্মিলনী সমাবেশ হয়। ইঞ্জিনিয়ার আবু হানিপ এর প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন এবং পিপল এন টেক থেকে কোর্স গ্রহণ করে বর্তমানে যারা আইটি জগতে আমেরিকার বিভিন্ন কোম্পানীতে নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন, তাদের মধ্যে একটি দৃঢ় নেটওয়ার্ক স্থাপন করাই ছিল এ আয়োজনের মূল উদ্দেশ্য।

অনুষ্ঠানটির সার্বিক তত্বাবধানে ছিলেন প্রতিষ্ঠানটির সাবেক ছাত্র মোস্তাফিজুর রহমান (পারভেজ), মাসুদ আলম মিঠু ও দিলারা জেসমিন সুমি। তারা ছিলেন- ২০০৯ সালে কোর্স গ্রহণকারী এবং ৩ জনই খ্যাতনামা ৩টি কোম্পানীতে উচ্চপদে কর্মরত। 

আয়োজকবৃন্দ তাদের পিপল এন টেক এর শিক্ষাকালীন বন্ধুত্বের স্মৃতি, নেটওয়ার্কিং এর সামাজিক সুবিধা ও চাকরি জগতের সুবিধাসহ নানা বিষয়ে নিজ নিজ মতামত প্রদান পূর্বক উপস্থিত অন্যদের মতামত প্রদানের আহ্বান জানান। তারা আগামী দিনে নিজেদের সামনে এগিয়ে নিয়ে যাবার পাশাপাশি পরবর্তী প্রজন্মকেও একই ধারায় উচ্চ বেতনে চাকরির পথ সুগম রাখার ব্যাপারে আরও দৃঢ়ভাবে কাজ করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।
মতামত প্রদান পর্ব শেষে সপরিবারে অংশগ্রহণকারীরা আবু হানিপের প্রতি তাদের কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। 

উল্লেখ্য, গত ১০ বছরে ৫ সহস্রাধিক বাংলাদেশিকে মার্কিন আইটি কোম্পানিতে চাকরির সুযোগ তৈরি করে দিয়েছে পিপল এন টেক। বর্তমানে নিউইয়র্ক, নিউজার্সি, পেনসিলভেনিয়া, ভার্জিনিয়া, কানাডা এবং ঢাকায় মোট ৭টি ক্যাম্পাসে নিয়মিত কোর্স দিচ্ছে এই সংস্থাটি। প্রবাসের নারীদের কোর্স প্রদানে রয়েছে বিশেষ স্কলারশিপ। 

আবু হানিপ তার বক্তব্যে সবাইকে ধন্যবাদ প্রদানের পাশাপাশি পিপল এন টেক সমাজকে কিভাবে সামনে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে তার কিছু বিবরণ তুলে ধরেন। 

এ সময় পিপল এন টেকের কর্মকাণ্ডের প্রশংসাকালে ‘ফামাক্যাশ’ নামক নতুন একটি সংস্থার প্রধান ইঞ্জিনিয়ার সাইফুল খন্দকার বলেন, স্কীল্ড ডেভেলপমেন্টের মধ্য দিয়ে আমেরিকান স্বপ্ন পূরণের পথ সুগম করতে আবু হানিপের প্রক্রিয়া একটি মডেলে পরিণত হয়েছে। এটি এখন যুক্তরাষ্ট্র, কানাডার সীমানা পেড়িয়ে বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকাতেও ঘাঁটি গেড়েছে এবং উদ্যমী ও মেধাবী যুবক-যুবতীরা তার সুফলও পাচ্ছেন। 
শেষে পিপল এন টেক এর প্রেসিডেন্ট ফারহানা হানিপ সাবেক ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে উপহার প্রদান করেন। এ অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে আরও বক্তব্য দেন পিপল এন টেকের প্রশাসক সাঈদ আলম সুমন, বিথি, মাফী, নাসরীন সুলতানা প্রমুখ। 

বিশিষ্টজনদের মধ্যে ছিলেন- কমিউনিটি লিডার হাসানুজ্জামান হাসান, যুক্তরাষ্ট্র সেক্টর কম্পান্ডারস ফোরামের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা রাশেদ আহমেদ, আমেরিকা-বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা লাবলু আনসার, পেনসিলভেনিয়া অঙ্গরাজ্যের মিলবোর্ন সিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট নূরল হাসান প্রমুখ। 

জনপ্রিয় সব গানের মধ্য দিয়ে ‘স্টাডি বাডিজ রিইউনিয়ন’ শীর্ষক অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘটেছে। 

বিডি প্রতিদিন/এনায়েত করিম


আপনার মন্তব্য