শিরোনাম
প্রকাশ : ৯ জুলাই, ২০২০ ০৯:০৬
আপডেট : ৯ জুলাই, ২০২০ ১২:০৯

ট্রাম্প প্রশাসনের বিরুদ্ধে হার্ভার্ড ও এমআইটির মামলা

যুক্তরাষ্ট্র প্রতিনিধি

ট্রাম্প প্রশাসনের বিরুদ্ধে হার্ভার্ড ও এমআইটির মামলা

করোনাভাইরাসের আতঙ্কে যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটিসমহের সকল ক্লাসই যদি অনলাইনে নেয়া হয়, তাহলে আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীদের অবিলম্বে যুক্তরাষ্ট্র ত্যাগের নির্দেশ পালন না করলে গ্রেফতারের পর বহিষ্কারের ঘোষণা দেয়া হয়েছে। সেই ঘোষণাকে চ্যালেঞ্জ করেছে বিশ্বখ্যাত বস্টনের দুই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ম্যাসেচুসেটস ইন্সটিটিউট অব টেকনোলজি (এমআইটি) এবং হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটি।

৮ জুলাই বস্টনে ইউএস ডিস্ট্রিক্ট কোর্টে দায়েরকৃত এ মামলায় ট্রাম্প প্রশাসনের ৬ জুলাইয়ের নির্দেশকে স্থগিতের আবেদন জানানো হয়েছে। ভিসা কেড়ে নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র থেকে বহিষ্কার এবং যারা সেপ্টেম্বরে শুরুতে নতুন শিক্ষাবর্ষের ক্লাস করতে আসতে অপেক্ষমান, তাদেরকে না আসতে দেয়ার যে নির্দেশনা জারি করা হয়েছে তা একেবারেই ‘বেআইনি’ বলে অভিহিত করা হয়েছে মামলার আবেদনে।

এ মামলার বিবাদী হোমল্যান্ড সিকিউরিটি ডিপার্টমেন্ট। এই ডিপার্টমেন্টের অধীনেই অভিবাসন দফতর। ট্রাম্প প্রশাসনের নির্দেশে ওই বিধি কার্যকর করার কথা ইমিগ্রেশন এ্যান্ড কাস্টমস এনফোর্সমেন্ট (আইস) এর। তাদেরকেও বিবাদি করা হয়েছে।

অন্তত: ১৪ দিনের অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা জারির আবেদন জানানো হয়েছে দায়েরকৃত মামলায়। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানদ্বয়ের আর্জিতে উল্লেখ করা হয়েছে, গত মার্চে করোনা তাণ্ডবের শুরুতেই ফেডারেল প্রশাসনের যাবতীয় বিধি-নিষেধ মেনে চলছে তারা। সেখানেও বলা হয়নি আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীদের যুক্তরাষ্ট্র ত্যাগ করতে হবে কিংবা সেপ্টেম্বরের কোর্সে নতুন করে কেউ আসতে পারবে না।

উল্লেখ্য, এই মামলার সাথে নীতিগত সমর্থন রয়েছে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের। খুব শীঘ্র ট্রাম্প প্রশাসনের বিরুদ্ধে আরও কয়েকটি মামলার হতে পারে বলেও সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন।

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর