শিরোনাম
প্রকাশ : ৯ মে, ২০২১ ১১:২৮
আপডেট : ৯ মে, ২০২১ ১১:৩২
প্রিন্ট করুন printer

চলছে গণস্বাক্ষর অভিযান

আমেরিকানদের মাসিক দুই হাজার ডলারের স্টিমুলাস চেক দাবি

লাবলু আনসার, যুক্তরাষ্ট্র

আমেরিকানদের মাসিক দুই হাজার ডলারের স্টিমুলাস চেক দাবি
Google News

করোনার প্রকোপ না কমা পর্যন্ত প্রতি মাসে দুই হাজার ডলার এবং শিশু-কিশোরের জন্যে এক হাজার ডলারের চেক প্রদানের দাবিতে গণস্বাক্ষর অভিযানে ২৪ লাখ আমেরিকান অংশ নিয়েছেন। এই দাবির সমর্থনে ডেমক্র্যাটিক পার্টির ৫৩ কংগ্রেসম্যান প্রেসিডেন্টের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন আমেরিকার অর্থনেতিক অবস্থাকে আরো চাঙ্গা করার অভিপ্রায়ে। সর্বশেষ গত ৩০ মার্চ ডেমক্র্যাটিক পার্টির ২১ জন সিনেটরও প্রেসিডেন্ট বাইডেন সমীপে এক পত্রে আরেকটি স্টিমুলাস বিলের রূপরেখা উপস্থাপনের আহবান জানিয়েছেন। 

তারা উল্লেখ করেছেন, ‘চলমান সংকট খুব সহজে দূর হবার নয়। তাই প্রতিটি মানুষের প্রয়োজনীয় খাদ্য পাবার অধিকার রয়েছে। একইসাথে তারা যাতে বাড়ি থেকে উচ্ছেদ না হয় সে ব্যবস্থাও করতে হবে অর্থাৎ বাসা ভাড়া বাবদ তাদেরকে অর্থ প্রদান করতে হবে।’

গণস্বাক্ষর অভিযান চলবে বলে ‘চ্যাঞ্জ ডট অর্গ’র (Change.org)পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। অনলাইনে সংগ্রহ করা হচ্ছে এই স্বাক্ষর। প্রায় একই দাবিতে আরো ৫টি টার্মিনালে স্বাক্ষর অভিযান চালানো হচ্ছে। ডেনভারের একটি রেস্টুরেন্টের মালিক স্টিফ্যানি বনিন এই স্বাক্ষর অভিযান শুরু করেছেন ট্রাম্পের আমলেই। তবে এই অভিযানে ব্যাপক সাড়া পড়ে জো বাইডেন দায়িত্ব গ্রহণের পর। ইতিমধ্যেই তৃতীয় স্টিমুলাস চেক তথা আমেরিকা উদ্ধার পরিকল্পনা বিল অনুযায়ী একেকজন ১৪শত ডলারের চেক পেলেও সার্বিক পরিস্থিতি উত্তরণে তেমন প্রভাব বিস্তারে সক্ষম হয়নি বলে মনে করেই স্বাক্ষর অভিযান অব্যাহত রাখার সংকল্প ব্যক্ত করা হয়েছে। এ দাবি উত্থাপন করা হয়েছে কংগ্রেসের প্রতি। 

বলার অপেক্ষা রাখে না যে, করোনায় বিপর্যস্ত অর্থনীতিকে সবল করতে প্রেসিডেন্ট বাইডেনও সাম্প্রতিক সময়ে ৪ ট্রিলিয়ন ডলারে বেশ কিছু পরিকল্পনার কথা জাতির সামনে উপস্থাপন করেছেন। সে সময় বাইডেন বিশেষভাবে উল্লেখ করেছেন, করোনায় লণ্ডভণ্ড অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়াতে আমেরিকানদের জন্যে আরো সহায়তা প্রয়োজন। সেজন্যে তিনি কংগ্রেসের সমর্থন চাইলেও রিপাবলিকানরা পুরোপুরি বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছেন। 

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষক মহলের ধারণা, সামনের বছরের মধ্যবর্তী নির্বাচনে সিনেটেও সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জনের অভিপ্রায়ে ডেমক্র্যাটিক পার্টির স্বার্থে বাইডেন উপরোক্ত পরিকল্পনা ঘোষণা করেছেন। তবে সারা আমেরিকায় চলমান এই স্বাক্ষর অভিযানের পরিপ্রেক্ষিতে রিপাবলিকান সিনেটর ও কংগ্রেসম্যানদের মধ্যেও এক ধরনের সহানুভূতির ঢেউ শুরু হয়েছে বলে জানা গেছে। 

কারণ, তাদেরকেও ভোট প্রার্থনা করতে হবে সামনের বছরের নভেম্বরের নির্বাচনে। স্মরণ করা যেতে পারে, ৩০ লাখের অধিক আমেরিকানের স্বাক্ষর সংগৃহীত হলেই বিষয়টি কংগ্রেসের কাছে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠবে।

প্রসঙ্গত: উল্লেখ্য যে, করোনার পর বিভিন্ন সময়ে এককালিন সহায়তা হিসেবে ১২০০, ৬০০ এবং ১৪০০ ডলার করে চেক ইস্যু করা হয়েছে। এই চেক গ্রহণকারিগণের মধ্যে ২০ লাখের অধিক মন্তব্য করেছেন যে, চাহিদার তুলনায় এ অর্থ একেবারেই অপ্রতুল ছিল। তাই অবিলম্বে মাসিক ভিত্তিতে প্রাপ্ত বয়স্কদের দুই হাজার ডলার এবং অপ্রাপ্ত বয়স্কদের জন্য এক হাজার ডলারের চেক ইস্যু করা জরুরী। সর্বশেষ ইউএস সেনসাস ব্যুরোর তথ্যেও উদঘাটিত হয়েছে যে, ৩০% আমেরিকানই নিত্য প্রয়োজনীয়  খরচের অর্থ সংগ্রহে সক্ষম হচ্ছেন না।  

এই স্বাক্ষর অভিযান প্রসঙ্গে জানতে চাইলে হোয়াইট হাউজের প্রেস সেক্রেটারি জেন সাকী মঙ্গলবার বলেছেন, ‘আমরা অপেক্ষায় রয়েছি, কংগ্রেসের কে কে এ ব্যাপারে বিল উত্থাপন করেন তা দেখার।’ 

বিডি প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন

এই বিভাগের আরও খবর