শিরোনাম
রবিবার, ২৪ অক্টোবর, ২০২১ ০০:০০ টা

জমবে কুয়াকাটার পর্যটন

নিজস্ব প্রতিবেদক

সাগরকন্যা কুয়াকাটার পর্যটনশিল্প বিকাশে অপার সম্ভাবনার দ্বার উন্মোচন করেছে লেবুখালী পায়রা সেতু। সেতুটি নির্মাণে প্রথমবারের মতো বরিশাল থেকে কুয়াকাটা হতে যাচ্ছে ফেরিবিহীন যোগাযোগমাধ্যম। একই সঙ্গে পটুয়াখালী-কুয়াকাটার সঙ্গে বরিশালসহ সারা দেশের সরাসরি সংযোগ স্থাপিত হয়েছে। লেবুখালী সেতুর কারণে ঢাকা থেকে কক্সবাজারের চেয়েও কাছের দূরত্বে চলে এসেছে কুয়াকাটা সমুদ্রসৈকত, যা এ অঞ্চলের পর্যটন খাতের বিকাশে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে মনে করা হচ্ছে।

এদিকে পটুয়াখালীর কুয়াকাটা দেশের একমাত্র সমুদ্রসৈকত, যেখান থেকে সাগরের বুক চিরে সূর্য উদয় হওয়ার পাশাপাশি সূর্যাস্তও দেখা যায়।  লেবুখালী সেতু চালু হলে যে কুয়াকাটায় পর্যটকদের হিড়িক পড়বে তা যেন আগেই বুঝতে পেরেছিল এ অঞ্চলের মানুষ। ফলে গত কয়েক বছরে গড়ে উঠেছে অসংখ্য আধুনিক মানের হোটেল, মোটেল ও রেস্ট হাউস। এসব হোটেল-মোটেলে দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের পাশাপাশি বিনিয়োগ করেছেন দেশের অনেক বড় ব্যবসায়ী ও শিল্পপতি।

খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, পদ্মা ও পায়রা সেতুকে সামনে রেখে পায়রা সমুদ্রবন্দর, গঙ্গামতী, কাউয়ারচর, কুয়াকাটাসহ বিভিন্ন পর্যটন এলাকায় গত তিন-চার বছরে অসংখ্য আধুনিক মানের হোটেল-মোটেল, শিল্পপ্রতিষ্ঠানসহ নানা স্থাপনা গড়ে উঠেছে। এখনো অনেক বড় বড় হোটেল নির্মাণাধীন। কিছু হোটেল নির্মাণ হচ্ছে শেয়ার বিক্রির মাধ্যমে। ফলে এ অঞ্চলে পর্যটনকেন্দ্রিক বিপুল কর্মসংস্থানের সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। সেতুটির কারণে দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের ভাগ্যের দুয়ার খুলে যাবে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

এই রকম আরও টপিক

সর্বশেষ খবর