Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২৩:২২

দুই এক্সপ্রেসের সমতা

২৪৭-২৪৭

ক্রীড়া প্রতিবেদক

দুই এক্সপ্রেসের সমতা

দুই এক্সপ্রেসের সমতা! পাকিস্তানের শোয়েব আকতারের গতিময় বোলিংয়ে তাকে পিন্ডি এক্সপ্রেস বলা হতো। সেই এক্সপ্রেসের খ্যাতিও পেয়ে যান বাংলাদেশের মাশরাফি বিন মর্তুজা। নড়াইলের ছেলে বলে তার বোলিংয়ে গতি দেখে বলা হয় নড়াইল এক্সপ্রেস। যদিও গতি আগের চেয়ে কমে গেছে। তবু মাশরাফি একের পর এক উইকেট পেয়েই চলেছেন। ২০০১ সালে ওয়ানডে ক্রিকেটে তার অভিষেক। ১৭ বছরে ১৯১ ম্যাচে ২৪৭টি উইকেট দখল করেছেন। শনিবার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দ্বিতীয় উইকেট পাওয়ার পরই মাশরাফি ছুঁয়ে ফেললেন শোয়েব আকতারকে। পাকিস্তানের এই কিংবদন্তি বোলার অনেক আগেই অবসর নিয়েছেন। সেক্ষেত্রে মাশরাফি তাকে যে কোনো সময় টপকে যাবেন এ নিয়ে সংশয় নেই। হয়তো চলতি এশিয়া কাপেই টাইগার অধিনায়ক ২৫০ উইকেটের মাইল ফলক স্পর্শ করবেন। সামনেই তিনি স্পর্শ করতে পারেন ভারতের হয়ে প্রথম বিশ্বকাপ জেতা কপিল দেবকে। অবসর নেওয়া এই বোলারের ওয়ানডে ম্যাচে উইকেটের সংখ্যা ২৫৩। মাখায়া এনটিনি (২৬৬), জেমস অ্যান্ডারসন (২৬৯), হরভজন সিং (২৬৯), অ্যালান ডোনাল্ড (২৭২), জ্যাক ক্যালিস ২৭৩ উইকেট পেয়েছেন। আরও ছুটতে পারলে মাশরাফি দেখাও পেয়ে যেতে পারেন জহির খান (২৮২), সাকলায়েন মুশতাক (২৮৮), শেন ওয়ার্ন (২৯৩) কে। দুই এক্সপ্রেসের এখন সমতা। তাই মাশরাফি উইকেট প্রাপ্তির দিক দিয়ে কতদূর যাবেন সেটাই দেখার অপেক্ষা। ৩৫ পূর্ণ করা নড়াইল এক্সপ্রেস সামনের বিশ্বকাপেও খেলবেন তা অনেকটা নিশ্চিত বলা যায়। তাই মাশরাফি কোথায় গিয়ে থামবেন বলা মুশকিল। মাশরাফির মতো ক্রিকেটার বিশ্বে দ্বিতীয়টি নেই বললেই চলে। কতবার ইনজুরি ও অস্ত্রোপচার হয়েছে তার সেই হিসাব মেলানোটাই কঠিন হবে। এরপরও নড়াইল এক্সপ্রেস। অপ্রতিরোধ্য গতিতে এগিয়ে চলেছেন। অন্যরা হলে হয়তো খেলা ছেড়েই দিতেন।


আপনার মন্তব্য