শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২৩:২৭

এগিয়ে গেল রিয়াল

ক্রীড়া ডেস্ক

এগিয়ে গেল রিয়াল

ভিডিও এসিস্ট্যান্ট রেফারি (ভিএআর/ ভার) প্রথমবারের মতো ব্যবহৃত হচ্ছে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে। আর প্রথম ব্যবহারেই সুফল পেল বর্তমান চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদ। গত বুধবার উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শেষ ষোলোর প্রথম লিগে ডাচ ক্লাব আয়াক্সের মুখোমুখি হয়েছিল রিয়াল মাদ্রিদ। ইয়োহান ক্রুইফ অ্যারিনায় ম্যাচের ৩৭তম মিনিটেই এগিয়ে গিয়েছিল আয়াক্স। আর্জেন্টাইন ফুটবলার নিকোলাস তাগলিয়াফিকো সহজ একটা গোল করেন ডি বক্সের ভিতর থেকে। কিন্তু রেফারি দামির ভিএআরের সাহায্য নিয়ে অফসাইডের অজুহাতে গোলটা বাতিল করেন। স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলে রিয়াল মাদ্রিদ। সেই ম্যাচ লস ব্ল্যাঙ্কোসরা জিতে ২-১ ব্যবধানে। একই দিনে জয় পেয়েছে টটেনহ্যামও। তারা নিজেদের মাঠ ওয়েম্বলিতে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে জার্মান প্রতিপক্ষ বুরুসিয়া ডর্টমুন্ডকে। রিয়াল মাদ্রিদ তারুণ্যনির্ভর দল আয়াক্সের বিপক্ষে খেলতে নেমে বেশ বিপদেই পড়েছিল। প্রথমার্ধে রিয়াল মাদ্রিদেও চেয়ে ভালো খেলেছে আয়াক্সই। ভাগ্যের জোরেই বেঁচে যায় রিয়াল মাদ্রিদ। আয়াক্সের বেশ কিছু আক্রমণ রিয়ালের গোলবারে লেগে ফিরে আসে। ম্যাচজুড়ে রিয়ালের ১৩টা আক্রমণের বিপরীতে আয়াক্সের আক্রমণ ছিল ১৯টা। তাছাড়া বল দখলের লড়াইয়েও কিছুটা (৫১-৪৯) এগিয়ে ছিল আয়াক্স। তবে ভাগ্য সাহায্য করে রিয়ালকে। করিম বেনজেমা ম্যাচের ৬০তম মিনিটে ভিনিশাস জুনিয়রের এসিস্টে  গোল করে এগিয়ে দেন ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নদের। এরপর অবশ্য সমতায় ফিরেছিল আয়াক্স। ৭৫তম মিনিটে হাকিম জিয়েচ গোল করেন আয়াক্সের পক্ষে। তবে কারভাহালের এসিস্টে গোল করে রিয়াল মাদ্রিদকে জয় উপহার দেন মারকো আসেনসিও। এই জয়ে শেষ আটের পথে অনেকটাই এগিয়ে গেল রিয়াল মাদ্রিদ। দ্বিতীয় লেগে কেবল ড্র করলেই হবে। তবে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে আয়াক্সের পক্ষে জয় দূরে থাক ড্র করাটাই মুশকিল। গত ২৪ বছর ধরে রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে জয়হীন আয়াক্স!

এদিকে একইদিনে টটেনহ্যাম পাত্তাই দেয়নি জার্মান ক্লাব বুরুসিয়া ডর্টমুন্ডকে। ম্যাচের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত তেমন কোনো সুযোগই তৈরি করতে পারেনি ডর্টমুন্ড। দক্ষিণ কোরিয়ান সন হিয়াঙ মিন ৪৭তম মিনিটে গোল করে এগিয়ে দেন টটেনহ্যামকে। এরপর ৮৩তম মিনিটে ভারটনগেন এবং ৮৬তম মিনিটে ফার্নান্দো লরেন্ট গোল করলে টটেনহ্যামের বড় জয় নিশ্চিত হয়। দ্বিতীয় লেগটা কেবল আনুষ্ঠানিকতারই হয়ে থাকল হ্যারি কেইনদের জন্য! উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ আটে উঠতে কেবল একটা ড্র প্রয়োজন টটেনহ্যামের।


আপনার মন্তব্য