শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২৩:১৮

ঢাকায় বসুন্ধরা কিংস, সিলেটে শেখ রাসেলের ম্যাচ

ক্রীড়া প্রতিবেদক

ঢাকায় বসুন্ধরা কিংস, সিলেটে শেখ রাসেলের ম্যাচ

১৮ জানুয়ারি উদ্বোধনী ম্যাচে শেখ জামালকে হারানোর পর ফেভারিট বসুন্ধরা কিংস ঢাকায় আর কোনো ম্যাচ খেলেনি।  নিজ ভেন্যু নীলফামারী শেখ কামাল স্টেডিয়াম, গোপালগঞ্জ শেখ ফজলুল হক মনি স্টেডিয়াম ও নোয়াখালী শহীদ ভুলু  স্টেডিয়ামে ছয় ম্যাচ খেলে আজ আবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে নামছে শিরোপা প্রত্যাশী বসুন্ধরা কিংস। প্রতিপক্ষ গোপীবাগের ব্রাদার্স ইউনিয়ন। অন্যদিকে আরেক ফেভারিট দল শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের ম্যাচ আজ। সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে নিজ ভেন্যুতে তাদের প্রতিপক্ষ নবাগত নোফেল স্পোর্টিং।

এবার বাংলাদেশ প্রিমিয়ার ফুটবল লিগে বসুন্ধরা কিংস, শেখ রাসেল ও ঢাকা আবাহনীর শিরোপা জয়ের উজ্জ্বল সম্ভাবনা রয়েছে। বড় কোনো অঘটনা না ঘটলে চ্যাম্পিয়নের দৌড়ে তিন দলেরই টিকে থাকার কথা। আবাহনী হেরেছে। এই দুই দলেরই কাছে। বসুন্ধরা কিংস আর শেখ রাসেল এখন পর্যন্ত কোনো ম্যাচে হারেনি।

টিম বিজেএমসির সঙ্গে ড্র করে ৭ ম্যাচে কিংসের সংগ্রহ ১৯ পয়েন্ট। শেখ রাসেল ড্র করেছে সাইফ ও শেখ জামালের সঙ্গে। ৭ ম্যাচে তাদের সংগ্রহ ১৭ পয়েন্ট।

ব্রাদার্স ইউনিয়ন ফুটবলে ঐতিহ্যবাহী দল। লিগ ছাড়াও বেশ কটি ট্রফি জেতার কৃতিত্ব রয়েছে। এক সময়ে তৃতীয় শক্তি বলেই পরিচিত ছিল। অনেক তারকা খেলোয়াড়ও বের হয়েছে। সেই ব্রাদার্স এখন অতীত স্মৃতিই বলা যায়। ৭ ম্যাচে ৩ পয়েন্ট নিয়ে লিগে তাদের অবস্থান আপাতত সবার নিচে। সেখানে কিনা কিংসের ১৯। এতেই দুই দলের শক্তির পার্থক্য ফুটে ওঠে। দল যতই দুর্বল হোক না কেন কলিনড্রেসরা আজ সতর্ক হয়ে মাঠে নামবে।

শিরোপার জন্য বসুন্ধরার কাছে এখন প্রতিটি ম্যাচই গুরুত্বপূর্ণ।

ঘরের মাঠে শেখ রাসেলের প্রতিপক্ষ নোফেলও অপেক্ষাকৃত দুর্বল দল। ৭ ম্যাচে ৫ পয়েন্ট পেয়ে তারাও রেলিগেশনের ফাঁদে আটকে গেছে। এমন ম্যাচে রাফায়েলদের সহজে জেতার কথা।

আগের ম্যাচে চ্যাম্পিয়ন আবাহনীকে হারিয়ে উজ্জীবিত হয়ে মাঠে নামবে রাসেল। তবু কোচ সাইফুল বারী টিটুর কথা, ‘সেরাটা খেলতেই হবে। এগিয়ে যেতে হবে আমাদের।’


আপনার মন্তব্য