শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৩ এপ্রিল, ২০২১ ২৩:১৮

অ্যানফিল্ডে রেডদের ‘রিয়াল’ পরীক্ষা

ক্রীড়া ডেস্ক

অ্যানফিল্ডে রেডদের ‘রিয়াল’ পরীক্ষা
Google News

দুই বছর আগের ঘটনা। উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে এক মহাকাব্য রচনা করেছিল লিভারপুল। সেমিফাইনালের প্রথম লেগে ন্যু ক্যাম্পে মেসি-সুয়ারেজের দাপটে অলরেডরা হেরেছিল ৩-০ গোলে। দ্বিতীয় লেগে অন্তত ৪-০ গোলের জয় প্রয়োজন ছিল জার্গেন ক্লপের শিষ্যদের। অ্যানফিল্ডে বার্সেলোনার জালে গুনে গুনে চারটা গোলই দেয় লিভারপুল। ২টি করে গোল করেন অরিগি ও উইনালডাম। সেমিফাইনালে মহাকাব্য রচনা করে সেবার কেবল ফাইনালই খেলেনি লিভারপুল, চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপাও জয় করে।

আজও কী একটি মহাকাব্য রচনা করবে লিভারপুল! অ্যানফিল্ডে রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে অবশ্য এত বড় ব্যবধানের জয় প্রয়োজন নেই অলরেডদের। ২-০ গোলে জিতলেই হবে। চ্যাম্পিয়ন্স লিগ কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম লেগে রিয়ালের মাঠে ৩-১ গোলে হেরেছে জার্গেন ক্লপের শিষ্যরা। ঘরের মাঠে ২-০ গোলে জিতলে অ্যাওয়ে গোলের সুবিধা নিয়ে সেমিফাইনালে পৌঁছে যাবে লিভারপুল।

একদিকে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের মাস্টার মাইন্ডখ্যাত জিনেদিন জিদান। অন্যদিকে জার্গেন ক্লপ। দুজনই কোচ হিসেবে দারুণ। দুই দলের ট্যাকটিকস অনেকটা কাছাকাছি। বল দখল নিয়ে কারও তেমন মাথাব্যথা নেই। গোলমুখী আক্রমণে বিশ্বাসী দুজনেই। প্রতিপক্ষকে গতি দিয়ে কুপোকাত করতে সক্ষম রিয়াল মাদ্রিদ ও লিভারপুল। তবে রিয়াল মাদ্রিদ দারুণ ফর্মে আছে। গত সপ্তাহে লিভারপুলকে হারিয়েছে ঘরের মাঠে। এরপর দিন কয়েক আগে এল ক্ল্যাসিকোর লড়াইয়ে চির প্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনাকে হারিয়েছে। অথচ দলে নেই সার্জিও রামোস ও রাফায়েল ভারানের মতো গুরুত্বপূর্ণ তারকা ফুটবলার। করিম বেনজেমার অভিজ্ঞতা এবং ভিনিসিউসের দুরন্ত গতিতে ছুটে চলছে রিয়াল মাদ্রিদ। তাদেরকে বেশ ভালোই সঙ্গ দিচ্ছেন টনি ক্রুজ, লুকা মডরিচরা। অন্যদিকে লিভারপুল গত সপ্তাহে রিয়াল মাদ্রিদের কাছে হারলেও ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে আর্সেনালকে হারিয়েছে। দিন কয়েক আগে জিতেছে অ্যাস্টন ভিলার বিপক্ষে। দলের তারকা ফুটবলার মোহাম্মদ সালাহ আছেন দারুণ ফর্মে।

লিভারপুল কোচ জার্গেন ক্লপ বলছেন, ‘বার্সেলোনার বিপক্ষে আমরা জিতেছিলাম স্টেডিয়াম ভর্তি দর্শকের সমর্থন নিয়ে। এবার আমাদেরকে তা করতে হবে দর্শক ছাড়া।’ রিয়ালের বিপক্ষে ২-০ গোলে জেতাও বেশ কঠিন হবে বলে মনে করেন তিনি। জিনেদিন জিদানের দল অবশ্য নির্ভার থেকেই আজ লিভারপুলের মাঠে যাচ্ছে। টনি ক্রুজকে কেন্দ্র করে শক্তিশালী মিডফিল্ড সাজিয়েছেন জিদান। কোচের ফুটবল দর্শনের সঙ্গে একমত শিষ্যরাও। ব্রাজিলিয়ান তারকা কাসেমিরো বলেছেন, ‘আমাদের দলটা এমন, টনি ক্রুজ চাইলে খেলার গতি বাড়ে। সে চাইলে খেলার গতি কমে।’ মাঝ মাঠের নিয়ন্ত্রণটা নিজেদের হাতে রেখেই ম্যাচ খেলে সফল হতে চান জিদান।

কঠিন এক ম্যাচের অপেক্ষায় আছেন দর্শকরা। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে লিভারপুল ৬বারের চ্যাম্পিয়ন। রিয়াল মাদ্রিদ ১৩বার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে।

 পাশাপাশি রানার্সআপ হয়েছে ৩বার। ইউরোপিয়ান ক্লাব ফুটবলের শীর্ষ প্রতিযোগিতায় দুটি ক্লাবেরই আছে গৌরবজনক অতীত। দেখা যাক, সেই গৌরবের মুকুটে আরও একটা পালক কারা যোগ করে!

এদিকে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে আজ জার্মান ক্লাব বুরুসিয়া ডর্টমুন্ডের মাঠে খেলতে যাচ্ছে পেপ গার্ডিওলার দল ম্যানচেস্টার সিটি। ইতিহাদ স্টেডিয়ামে কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম লেগে ২-১ গোলে জয় পেয়েছিল ম্যানসিটি। সেমিফাইনাল খেলতে হলে আজ অন্তত ড্র করতে হবে ম্যানসিটিকে। ডর্টমুন্ড ১-০ গোলে জিতলেই সেমিফাইনাল খেলবে অ্যাওয়ে গোলের সুবিধা নিয়ে।