শিরোনাম
প্রকাশ : ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৯:৩৭
আপডেট : ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২০:২৫
প্রিন্ট করুন printer

ছেলেকে নিয়ে বিতর্কের জবাব দিলেন শচীন!

অনলাইন ডেস্ক

ছেলেকে নিয়ে বিতর্কের জবাব দিলেন শচীন!
ছেলে অর্জুনের সাথে শচীন টেন্ডুলকার। ফাইল ছবি

বাবা শচীন টেন্ডুলকার। তাই ছেলে অর্জুন টেন্ডুলকার আইপিএলে খেলার সুযোগ পেয়েছেন। অর্জুনকে আইপিএল নিলামে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স দলে নেওয়ার পরই এমন সব কথা সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘুরতে থাকে। ২০ লাখ টাকায় মুম্বাই তাকে দলে নিয়েছে। 

এর আগে মুম্বাই দলে অর্জুন সুযোগ পাওয়ার পরও একই কথা শোনা যায়। বাবা ভারতীয় ক্রিকেটের কিংবদন্তি। তাই অর্জুনের যাত্রাপথ মসৃণ হচ্ছে বলে দাবি ছিল অনেকের। তবে এতদিন পর্যন্ত শচীন টেন্ডুলকার কখনও এসব নিয়ে পাল্টা কিছু বলেননি। তবে এবার পরোক্ষভাবে সমালোচকদের জবাব দিলেন তিনি। 

‘নেপোটিজম’ শব্দটা অর্জুনের নামের সঙ্গে ব্যবহার করছিলেন অনেকে। শচীন টেন্ডুলকার তাদের জন্য পরোক্ষ জবাব দিয়ে বললেন, ‘খেলার মাঠে একমাত্র একজন খেলোয়াড়ের পারফরম্যান্স দেখা হয়। এর বাইরে আর অন্য কোনো ব্যাপার প্রাধান্য পায় না। আমরা যখন ভারতীয় দলের ড্রেসিংরুমে প্রবেশ করতাম তখন কোথা থেকে আসছি, কার সঙ্গে সম্পর্ক আছে, দেশের কোন অংশ থেকে এসেছি, এসব কিছুই মাথায় থাকে না। ড্রেসিংরুমে প্রবেশ করার পর সবাই সমান। সেখানে পারফরম্যান্স ছাড়া আর কিছুই যাচাই করার ব্যাপার নেই।’

সম্প্রতি একটি ই-লার্নিং প্ল্যাটফর্মের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হওয়ার পর ভার্চুয়াল আলাপচারিতায় এসব কথা বলেন তিনি।

শচীন আরও বলেন, ‘ড্রেসিংরুমে একজন ক্রীড়াবিদ স্রেফ ব্যক্তি। এমন ব্যক্তি যে টিমে যোগ দিতে চায়, তার জন্য তাকে পারফর্ম করতে হবে। আমি দেশের বিভিন্ন অংশে বহু শিক্ষকের সঙ্গে মেশার সুযোগ পাই। তাদের থেকে আমিও রোজ কিছু না কিছু শিখি। সেসব শিক্ষা আমি বাস্তব জীবনে প্রয়োগ করার চেষ্টা করি।’

সূত্র: জি নিউজ, হিন্দুস্তান টাইমস 

বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০৬:০৪
প্রিন্ট করুন printer

পিসিবির প্রস্তাব ফিরিয়ে দিলেন হাফিজ

অনলাইন ডেস্ক

পিসিবির প্রস্তাব ফিরিয়ে দিলেন হাফিজ
ফাইল ছবি

আবারও আলোচনায় মোহাম্মদ হাফিজ ও পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি)। বোর্ডের চোখে হাফিজের বয়সটাই যেন বড় অযোগ্যতা। অথচ তিনি দলের অভিজ্ঞ খেলোয়াড়, পারফর্মও করছেন ভালো। এরপরও পাকিস্তান জাতীয় দলের বর্ষীয়ান এই ব্যাটসম্যানকে ‘সি’ ক্যাটাগরির চুক্তির প্রস্তাব দিয়েছে বোর্ড।

হাফিজ অবশ্য সরাসরিই জানিয়ে দিয়েছেন, তার চুক্তির দরকার নেই। ‘ক্রিকইনফো’র প্রতিবেদনে এসেছে, মূলত নিচের সারির চুক্তি প্রস্তাব করায়ই রাগ করে সেটা ফিরিয়ে দিয়েছেন পাকিস্তানি অলরাউন্ডার।

২০১৯ সালে বোর্ডের কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে বাদ পড়েন হাফিজ। কিন্তু চুক্তির বাইরে থাকার পরও সিনিয়র ক্রিকেটার হিসেবে সম্মান দেখিয়ে গত বছর তাকে ম্যাচপ্রতি ‘এ’ ক্যাটাগরির ফি দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় পিসিবি। হাফিজও টি-টোয়েন্টিতে বছরটা কাটিয়েছেন স্বপ্নের মতো। গত ১২ মাসে এই ফরমেটে ডেডিভ মালানের পর সবচেয়ে বেশি রান করেন এই ব্যাটসম্যান। মালানের রান ছিল ৩৮৬, হাফিজের ৩৩১।

সর্বশেষ ৯টি ইনিংসে করেছেন পাঁচটি হাফসেঞ্চুরি। এই সময়ে মাত্র দু’বার ২০ রানের কম স্কোরে আউট হয়েছেন হাফিজ। স্বভাবতই বয়স বিবেচনায় না আনলে তার ‘মূল্য’ বেশিই থাকার কথা পিসিবির কাছে।

কিন্তু বোর্ডের চুক্তিতে সেই প্রতিফলন দেখা গেল না। হাফিজকে ‘সি’ ক্যাটাগরির চুক্তির প্রস্তাব দেয়া হয়েছে এবং তিনি তা ফিরিয়ে দিয়েছেন। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে পিসিবির প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান বলেন, ‘হাফিজের সিদ্ধান্তে আমি হতাশ। তবে তার সিদ্ধান্তকে সম্মান জানাচ্ছি।’


বিডি প্রতিদিন/ ওয়াসিফ


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০৫:৫১
প্রিন্ট করুন printer

মেসির কাণ্ডে চমকে গেলেন প্রতিপক্ষের গোলরক্ষক

অনলাইন ডেস্ক

মেসির কাণ্ডে চমকে গেলেন প্রতিপক্ষের গোলরক্ষক
ফাইল ছবি

বর্তমান ফুটবলের অন্যতম সেরা তারকা লিওনেল মেসি। কে তাকে কাছে পেতে না চায়। প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়রাও বাদ নেই এই তালিকায়। বার্সেলোনার ম্যাচ হলেই খেলা শেষে একটি দৃশ্য দেখা যায়। মেসি তার জার্সি দিচ্ছেন প্রতিপক্ষের কোনো খেলোয়াড়কে।

বুধবার রাতে লা লিগায় এলচের বিপক্ষে খেলতে নামে কাতালান ক্লাবটি। ৩-০ গোলের দারুণ জয়ে মাঠ ছাড়ে তারা। মেসি নিজেও গোল করেছেন দুটি। খেলা শেষে দুই দলের খেলয়াড়রা হাঁটছেন ন্যু ক্যাম্পের ড্রেসিং রুমের দিকে। তখন এলচের গোলরক্ষক এডগার বাদিয়া মেসির কাছে জার্সি চান। মেসিও তার জার্সি দিতে কার্পণ্য করেননি। এর পরের দৃশ্য নিজেই হজম করতে পারেননি বাদিয়া।

জার্সি দেওয়ার পর মেসি এবার বাদিয়াকে বলেন তার জার্সি খুলে দিতে! এটা যেন নিজের কানকে বিশ্বাস করাতে পারেননি এলচের গোলরক্ষক। এরপর দ্রুত নিজের জার্সি খুলে দেন ফুটবল জাদুকরের হাতে।


বিডি প্রতিদিন/ ওয়াসিফ


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২১:১৪
প্রিন্ট করুন printer

দেড় দিনেই শেষ দিবা-রাত্রির টেস্ট! ১০ উইকেটের জয় ভারতের

অনলাইন ডেস্ক

দেড় দিনেই শেষ দিবা-রাত্রির টেস্ট! ১০ উইকেটের জয় ভারতের

আহমেদাবাদে সিরিজের তৃতীয় ডে-নাইট টেস্টে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ১০ উইকেটের বিশাল জয় পেয়েছে ভারত। দ্বিতীয় দিনের তৃতীয় সেশনের খেলা অনেকটা বাকি থাকতেই এ বিশাল জয় তুলে নিয়েছে স্বাগতিকরা। ১৯৩৫ সালের পর এটাই সবচেয়ে কম দৈর্ঘ্যের টেস্ট।

বৃহস্পতিবার গুজরাটের নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে টেস্টে ইংলিশদের ছুড়ে দেওয়া মাত্র ৪৯ রানের লক্ষ্য কোনো উইকেট না হারিয়েই পেরিয়ে যায় স্বাগতিকরা।

এর আগে প্রথম ইনিংসের মতো নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসেও ভারতীয় স্পিনে বিধ্বস্ত হয়েছে ইংল্যান্ড। অক্ষর প্যাটেল ও অশ্বিনের তোপে মাত্র ৮১ রানেই গুটিয়ে গেছে সফরকারীরা। টেস্টে ভারতের বিপক্ষে এটাই তাদের সর্বনিম্ন ইনিংস। এর আগে ১৯৭১ সালে ওভালে ১০১ রান করেছিল ইংলিশরা।  

শেষ পর্যন্ত ইংল্যান্ডের লিড দাঁড়ায় মাত্র ৪৮ রানে। আর রুটবাহিনীর এই দুর্দশার কারণ অশ্বিন ও অক্ষর। ইংল্যান্ডের দ্বিতীয় ইনিংসের প্রথম বলেই ওপেনার জ্যাক ক্রলিকে গোল্ডেন ডাক উপহার দেন অক্ষর। এক বল পরেই জনি বেয়ারস্টোকেও ডাক উপহার দেন এই বাঁহাতি স্পিনার। পরে ডম সিবলিকে ৭ রানে বিদায় করেন তিনি।

৩ উইকেট হারিয়ে ধুঁকতে থাকা ইংলিশদের আরও বিপদে ফেলে দেন অশ্বিন। বেন স্টোকসকে টেস্টে ১১বারের মতো নিজের শিকার বানান এই ডানহাতি ক্যারম বোলার। ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করতে থাকা রুট (১৯) বিদায় হন অক্ষরের বলে। এরপর ২ রানের ব্যবধান ওলে পোপ এবং আর্চারকে তুলে নিয়ে ৪০০ উইকেট মাইলফলকে পৌঁছান অশ্বিন।  

ভারতীয়দের মধ্যে চতুর্থ বোলার হিসেবে এবং সবমিলিয়ে দ্বিতীয় দ্রুততম সময়ে এই ক্লাবে প্রবেশ করলেন অশ্বিন। অশ্বিনের আগে ৪০০ বা তার বেশি উইকেট শিকার করা ভারতীয় বোলার-অনিল কুম্বলে (৬১৯), কপিল দেব (৪৩৪) এবং হরভজন সিং (৪১৭)। ৪০০ উইকেটের চূড়ায় দ্রুততম সময়ে পৌঁছানোর ক্ষেত্রে মুরালির পরেই এখন অশ্বিনের নাম শোভা পাচ্ছে। শ্রীলঙ্কার কিংবদন্তি স্পিনার মুরালি ৭২ টেস্টেই ওই উচ্চতায় পৌঁছান। অশ্বিনের লেগেছে ৭৭ টেস্ট।

অশ্বিনের মাইলফলক ছোঁয়ার ম্যাচে রেকর্ড গড়েছেন অক্ষর প্যাটেলও। প্রথমবারের মতো এক টেস্টে ১০ উইকেট পাওয়া এই স্পিনার পুরো ম্যাচে ৭০ রান খরচে তুলে নিয়েছেন ১১ (৬+৫) উইকেট, যা দিনরাতের টেস্টে এখন পর্যন্ত সেরা বোলিং ফিগার। ইংলিশদের শেষ উইকেটটি গেছে আরেক স্পিনার ওয়াশিংটন সুন্দর। অশ্বিন নেন ৪ উইকেট, দুই ইনিংস মিলিয়ে ৯ উইকেট।

ইংল্যান্ডের অধিনায়ক জো রুটের প্রথমবারের মতো ৫ উইকেট শিকারের কীর্তিতে ৩ উইকেটে ৯৯ রান থেকে দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরুর পর ১৪৫ রানেই থামে ভারতের ইনিংস। এই পার্টটাইম বোলার এক ইনিংসে ৫ উইকেট তুলে নেওয়া স্পিনারদের ক্ষেত্রে সবচেয়ে কম রান খরচ করেছেন। ৪ উইকেট নেন জ্যাক লিচ।

এর আগে ইংল্যান্ডের প্রথম ইনিংস শেষ হয় মাত্র ১১২ রানে।  

এ জয়ে ৪ ম্যাচের সিরিজে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে ভারত

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৯:৫২
প্রিন্ট করুন printer

ভারতীয় বিষাক্ত স্পিনে এবার ৮১ রানে অলআউট ইংল্যান্ড!

অনলাইন ডেস্ক

ভারতীয় বিষাক্ত স্পিনে এবার ৮১ রানে অলআউট ইংল্যান্ড!

ভারতের আহমেদাবাদে শুরু হওয়া সিরিজের তৃতীয় ডে-নাইট টেস্টে প্রথম ইনিংসে অক্ষর প্যাটেলের ঘূর্ণি জাদুতে মাত্র ১১২ রানে গুটি গিয়েছিল সফরকারী ইংল্যান্ড। এবার দ্বিতীয় ইনিংসে মাত্র ৮১ রানে অলআউট ইংল্যান্ড!

বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে ইংল্যান্ড। ভারতীয় স্পিনার অক্ষর প্যাটেল এবং রবিচন্দ্রন অশ্বিনের ঘূর্ণিতে মাত্র ৮১ রানেই অলআউট হয়ে গেছে ইংল্যান্ড। এর ফলে ভারতের সামনে জয়ের জন্য লক্ষ্য দাঁড়িয়েছেন কেবল ৪৯ রানের।

বেন স্টোকস সর্বোচ্চ ২৫ রান করেন। ১৯ রান করেন জো রুট ও ১২ রান করেন অলি পোপ। এছাড়া আর কোনো ব্যাটসম্যানই দুই অংকের ঘর স্পর্শ করতে পারেননি। ৫ উইকেট নিয়েছেন অক্ষর, চারটি নিয়েছেন অশ্বিন এবং একটি নিয়েছেন ওয়াশিংটন সুন্দর।

এর আগে প্রথম ইনিংসে ইংলিশ স্পিনার জো রুটের বিষাক্ত স্পিনে ১৪৫ রানে অলআউট হয় ভারত। 

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ভারতের সংগ্রহ বিনা উইকেটে ১১ রান।

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৯:০৬
আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২১:১৮
প্রিন্ট করুন printer

ভক্তের কাণ্ড দেখে ভয়ে ছোটাছুটি কোহলির!

অনলাইন ডেস্ক

ভক্তের কাণ্ড দেখে ভয়ে ছোটাছুটি কোহলির!
বিরাট কোহলি। ফাইল ছবি

যেকোনো মাঠেই নিরাপত্তা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। বিশেষ করে যখন দুটি দেশের আন্তর্জাতিক স্তরের ক্রিকেটাররা খেলেন। ভারতে নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে খেলা চলাকালীন দর্শক মাঠে ঢুকে পড়ায় স্টেডিয়ামের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

বুধবার এই স্টেডিয়ামে ভারত-ইংল্যান্ড তৃতীয় টেস্ট ম্যাচকালীন এক ক্রিকেটভক্ত অনায়াসে ঢুকে পড়েন মাঠে।

সেই ভক্তের কাণ্ড দেখে রীতিমতো ভয় পেয়ে গেলেন বিরাট কোহলি। ওই ভক্তের কাণ্ড দেখে ততক্ষণে দুই দলের অন্য ক্রিকেটাররা বেশ অস্বস্তিতে পড়েছিলেন। নিরাপত্তারক্ষীরা অবশ্য তড়িঘড়ি সেই সমর্থককে মাঠ থেকে বের করে দেন।

প্রসঙ্গত, ভারতের আহমেদাবাদে শুরু হওয়া সিরিজের তৃতীয় ডে-নাইট টেস্টে প্রথম ইনিংসে অক্ষর প্যাটেলের ঘূর্ণি জাদুতে মাত্র ১১২ রানে গুটিয়ে যায় সফরকারী ইংল্যান্ড।

এদিকে, প্রথম ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে ইংলিশ স্পিনার জো রুটের বিষাক্ত স্পিনে ১৪৫ রান করেই অলআউট ভারত। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত দ্বিতীয় দিনের দ্বিতীয় ইনিংসে আজ বৃহস্পতিবার ৮০ রানে ৮ উইকেট হারিয়ে ব্যাটিং করছে ইংল্যান্ড।

বিডি প্রতিদিন/এমআই


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর