শিরোনাম
প্রকাশ : ২৮ জানুয়ারি, ২০২০ ২০:১৩

হাবিপ্রবির প্রশাসনিক ভবনের তালা খুলে দিল ছাত্রলীগ

দিনাজপুর প্রতিনিধি:

হাবিপ্রবির প্রশাসনিক ভবনের তালা খুলে দিল ছাত্রলীগ

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনের আশ্বাসে দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের তালা খুলে দিয়েছে ছাত্রলীগ। মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে প্রশাসনিক কার্যক্রম স্বাভাবিক হয়েছে। 

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রফেসর ডা. ফজলুল হক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এর আগে সোমবার রাতে দাবি মেনে নেওয়ার আশ্বাসে আন্দোলন স্থগিত করে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

হাবিপ্রবির রেজিস্ট্রার প্রফেসর ডা. মো. ফজলুল হক জানান, ছাত্রলীগের দাবি-দাওয়ার বিষয়ে আশ্বাস দেওয়ার পর সোমবার সন্ধ্যায় তালা খুলে দেয় ছাত্রলীগ। ফলে মঙ্গলবার সকাল থেকেই বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক কার্যক্রম শুরু হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব ওয়েব সাইটে যে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়েছিল, তার কিছু সংশোধন এবং নতুন করে পদসংখ্যা বাড়ানোর জন্য তাদের আশ্বাস দেওয়া হয়েছে।

তিনি জানান, ছাত্র নেতারা যে দাবিগুলি করেছেন সেগুলো যৌক্তিক কিন্তু চাইলে একবারে তা সমাধান করা সম্ভব নয়। যেগুলো দ্রুত সময়ে সমাধান করা সম্ভব সেগুলো করার চেষ্টা করা হচ্ছে। সোমবার বিকালের মধ্যেই আন্দোলনকারীদের দাবি অনুযায়ী লাইবেরিয়ান পদে শিক্ষক প্রফেসর ড. রেজাউল করিমকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। যৌথভাবে ওরিয়েনটেশন না হলেও বিভাগ অনুযায়ী ওরিয়েনটেশন শুরু হয়েছে।

জানা যায়, গত রবিবার সন্ধ্যা থেকে আন্দোলন শুরু হয়। বিভিন্ন পদে ৭০ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়োগের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব ওয়েবসাইটে একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের ঘটনার পর তাৎক্ষণিকভাবে আন্দোলনে নামে ছাত্রলীগ। প্রশাসনিক ভবনে তালা দিয়ে রেজিস্ট্রার, প্রক্টর এবং উপদেষ্টাসহ বিভিন্ন দ্বায়িত্বশীল শিক্ষকদের অবরুদ্ধ করে রাখা হয়। পরে আলোচনার মাধ্যমে সমাধানের আশ্বাসে তারা মুক্ত হয়। কিন্তু আলোচনায় না বসায় সোমবার সকালে আবার তালা ঝুলিয়ে দেয় ছাত্রলীগ। পরে ১১দফা দাবিতে ছাত্রলীগের আন্দোলনে বিশ্ববিদ্যালয়ে অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়। বন্ধ হয়ে যায় প্রশাসনিক সকল কার্যক্রম। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে মোতায়েন করা হয় পুলিশ।

বিডি প্রতিদিন/হিমেল 


আপনার মন্তব্য