শিরোনাম
প্রকাশ : ৩ মার্চ, ২০২১ ০২:১৭
প্রিন্ট করুন printer

চ্যানেল টোয়েন্টিফোর'র প্রতিবেদন

প্রধানমন্ত্রীর প্রকল্পে দুর্নীতি: বেরোবির ভিসির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ

অনলাইন ডেস্ক


প্রধানমন্ত্রীর প্রকল্পে দুর্নীতি: বেরোবির ভিসির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ
ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ

প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উন্নয়ন প্রকল্পে অনিয়মের সরাসরি প্রমাণ মিলেছে রংপুরের বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহর বিরুদ্ধে। সেই সাথে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন তদন্তে অনিয়ম ও চুক্তি ভঙ্গের অভিযোগে ভিসি ও প্রকল্প সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ করেছে। যদিও এই বিষয়টি ষড়যন্ত্র ও দুরভিসন্ধিমুলক বলে দাবি অভিযুক্ত উপাচার্যের।

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়। প্রতিষ্ঠার পর থেকে নানা প্রতিকূলতায় সাধারণ মানুষ তো বটেই বিশ্ববিদ্যালয়টির শিক্ষক আর শিক্ষার্থীরাও নাখোশ। সরকারের সুনজর থাকলেও এর উন্নয়ন থেমে আছে যোগ্য নেতৃত্বের অভাবে।

বিশ্ববিদ্যালয়টিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে সাড়ে ৪৮ কোটি টাকা বরাদ্দে ১০ তলা ছাত্রী হল নির্মাণ শুরু হয় ২০১৭ সালে। কিন্তু বর্তমান উপচার্য, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ দায়িত্বে আসলে চার তলা তৈরি হবার পর বন্ধ হয়ে যায় কাজ। 

অন্যদুটি বড় প্রকল্প ড. ওয়াজেদ মিয়া গবেষণা ইনস্টিটিউটের ১০ তলা ভবন ও স্বাধীনতা স্মারকের কাজও অর্ধেক শেষ হয়নি। ইতিমধ্যে প্রকল্পের ব্যয় বেড়ে দ্বিগুন হয়েছে। এসব প্রকল্প ঘিরে বর্তমান উপচার্যের অনিয়মের অভিযোগ নিয়ে তদন্ত শুরু করে ইউজিসি। এ নিয়ে গঠিত দুটি আলাদা কমিটি প্রকল্পে অনিয়মের অভিযোগের সত্যতা পেয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরাও ভিসির স্বেচ্ছাচারিতায় ক্ষুব্ধ।

তবে যার বিরুদ্ধে এত অভিযোগ তার দাবি কোন অনিয়ম হয়নি। এধরনের অনৈতিক কাজের জন্য সংশ্লিষ্ট ব্যাক্তিদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা  গ্রহনের সুপারিশ করেছে ইউজিসির তদন্ত কমিটি।


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ সিফাত


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর