শিরোনাম
প্রকাশ : ২ জুলাই, ২০২০ ১৪:৩৮

পিতার সাথে শত্রুতার জের ধরে ৫ বছরের পুত্রকে নির্মমভাবে হত্যা

শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি

পিতার সাথে শত্রুতার জের ধরে ৫ বছরের পুত্রকে নির্মমভাবে হত্যা
ইউনুছ

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে পাঁচ বছরের শিশু রিমনকে হত্যার রহস্য উন্মোচন করেছে পুলিশ। এ ঘটনার আটক বিলাশছড়া চা বাগানের ইউনুছ উল্লাহ গত বুধবার আদলতে এ হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করে জবানবন্দী দিয়েছে।

সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার আশরাফুজ্জামান জানান, বিলাশছড়া চা বাগানের সিএনজি আটো রিক্সাচালক শিবু লাল গড়ের অটোরিক্সার ব্যাটারি চুরি করে নেয় একই বাগানের ইউনুছ উল্লাহ। এ ঘটনায় ইউনুছের সঙ্গে শিবু গড়ের সম্পর্কের অবনতি ঘটে। স্থানীয়ভাবে বিচার সালিশে ইউনুছ উল্লাকে ব্যাটারি চুরির দায়ে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। কিন্তু ইউনুছ উল্লাহ জরিমানার টাকা দিতে অস্বীকার করে। এ নিয়ে শিবুর সঙ্গে ইউনুছের মনোমালিন্য বাড়তে থাকে। শিবু ইউনুছকে জানিয়ে দেয় টাকা না পেলে সে মামলা করবে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে ইউনুছ।

গত মঙ্গলবার দুপুরে শিবু গড়ের শিশু সন্তান রিমন গড় পাশের বাড়ি থেকে দুধ আনতে গেলে ছড়ার পাশে ইউনুছ উল্লাহর সাথে তার দেখা হয়। এসময় ইউনুছ উল্লাহ রিমনকে ময়না পাখির বাচ্চা দেওয়ার কথা বলে চা বাগানের ৪ নং সেকশনের ছড়ার পাশে নিয়ে গিয়ে গলায় দা দিয়ে কোপ  দেয়। পরে মৃত্যু নিশ্চিত করে রিমনের দেহ ছড়ার নিচে ঝোঁপের মধ্যে ফেলে চলে যায় ইউনুছ।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বাগানের ৪নং সেকশনের ছড়ার পাশ থেকে রিমনের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ওই দিনই রাতেই রিমনের বাবা অজ্ঞাত আসামিকে অভিযুক্ত করে থানায় মামলা করেন।

এএসপি আশরাফুজ্জানান বলেন, লাশ উদ্ধারের পর থেকেই আমরা এ হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটনে মাঠে নেমেছিলাম। সন্দেহজনকভাবে ইউনুছকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদের পর সে এই হত্যার কথা শিকার করে আদালতে জবানবন্দী দেয়। ইউনুছ ওই বাগানে চকিদারের চাকরি করতো। আটক করার সময় হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত দা তার হাতেই ছিল।  

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর