শিরোনাম
প্রকাশ : ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১৯:৫১
আপডেট : ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ২০:২০

বিশ্বনাথে এক লাফে দ্বিগুণ পিয়াজের দাম!

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি

বিশ্বনাথে এক লাফে দ্বিগুণ পিয়াজের দাম!

ভারত রপ্তানি বন্ধ করে দেয়ার সঙ্গে সঙ্গে সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলায় এক লাফে দিগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে পিয়াজের দাম। আজ মঙ্গলবার সকালেও বিশ্বনাথের বাজারে ৪০ টাকায় বিক্রি হয় প্রতি কেজি পিয়াজ। কিন্তু বিকেলে হঠাৎ কেজি প্রতি দাম বেড়ে দাঁড়ায় ৮০-৯০ টাকায়। 

বিক্রেতারা ইচ্ছে মতো হাঁকেন পিয়াজের দাম। একেক দোকানে একেক মূল্য। এ দিকে আরও মূল্য বৃদ্ধির আশঙ্কায় প্রয়োজনের অধিক পিয়াজও কিনতে দেখা গেছে ক্রেতাদের।

সন্ধ্যায় সরেজমিন বাজার ঘুরে দেখা গেছে, পাইকারি ও খুচরা দোকানগুলোতে যার যার ইচ্ছে মতো মূল্যে পিয়াজ বিক্রি করছেন ব্যবসায়ীরা। কেউ ৭০ টাকা, ৮০ টাকা, কেউবা বিক্রি করছেন ৯০ টাকায়। কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে কেন দ্বিগুণ দাম চাওয়া হচ্ছে জানতে চাইলে কোনো যৌক্তিক ব্যাখ্যা দিতে পারেননি ব্যবসায়ীরা। হঠাৎ দাম বাড়ায় ক্ষুব্ধ ক্রেতারাও। তাদের দাবি পিয়াজ নিয়ে ফের নতুন কারসাজি শুরু হয়েছে।

পিয়াজ কিনতে আসা ইকবাল হোসেন বলেন, আমরা সাধারণ মানুষ ‘বলির পাঠা’। সুযোগ পেলে যে যেমন পারছে দাম বাড়িয়ে দিচ্ছে। কেউ যেন দেখার নেই।

বিশ্বনাথ পুরানবাজার আল-জয়নাল স্টোরের পাইকারি দোকানী বেলাল আহমদ জানান, সিলেটের আড়তে ৫০ টাকায় পিয়াজ কিনে এনে যারা বিশ্বনাথে ৯০ টাকায় বিক্রি করছেন তারা অন্যায় করছেন। ক্রেতাদের সাথে এমন অত্যাচার সমীচীন নয়।

এ বিষয়ে কথা হলে বিশ্বনাথ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বর্ণালী পাল ‘বাংলাদেশ প্রতিদিন’কে বলেন, ক্রয় মূল্যের নির্দিষ্ট পরিমাণ হারের বাহিরে কেউ বিক্রি করলে আমরা ব্যবস্থা নেবো। বাজার স্থিতিশীল রাখতে আগামীকাল (১৬ সেপ্টেম্বর) ভ্রাম্যমাণ আদালতও পরিচালনা করা হবে।

বিডি প্রতিদিন/আবু জাফর


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর