শিরোনাম
২১ অক্টোবর, ২০২১ ১৭:০৪

সিলেটে ছাত্রলীগকর্মীর ছুরিকাঘাতে কলেজছাত্র খুন

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিলেট

সিলেটে ছাত্রলীগকর্মীর ছুরিকাঘাতে কলেজছাত্র খুন

নিহত কলেজছাত্র আরিফুল ইসলাম রাহাত

সিলেটে প্রকাশ্যে ছুরিকাঘাতে দক্ষিণ সুরমা সরকারি কলেজ ক্যাম্পাসে প্রাণ হারিয়েছেন এক ছাত্র। ছুরিকাঘাতে খুনের ঘটনায় অভিযোগের আঙ্গুল উঠেছে এক ছাত্রলীগকর্মীর দিকে। সামসুদ্দোহা সাদী নামের ওই ছাত্রলীগকর্মী একই কলেজের সাবেক শিক্ষার্থী। বখাটেপনার কারণে তাকে একবার কলেজ থেকে বের করে দেয়া হয়েছিল। 

আজ বৃহস্পতিবার দুপুর সোয়া ১২টার দিকে সিলেটের দক্ষিণ সুরমা কলেজের প্রধান ফটকের ভেতরে এ ঘটনা ঘটে। হত্যাকাণ্ডের ঘটনার পর কলেজের পাঠদান তিনদিনের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। খুনিদের গ্রেফতারে ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দিয়েছেন কলেজ কর্তৃপক্ষ।

নিহত শিক্ষার্থী আরিফুল ইসলাম রাহাত (১৮) দক্ষিণ সুরমা উপজেলার পুরাতন তেতলি এলাকার সুরমান আলীর ছেলে ও দক্ষিণ সুরমা সরকারি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র। অভিযুক্ত ছাত্রলীগকর্মী সামসুদ্দোহা সাদী ছাত্রলীগ কাশ্মির গ্রুপের কর্মী ও তার বাড়ি মোলাবাজার থানার সিলাম এলাকায়। 

নিহত রাহাতের চাচাতো ভাই রাফি জানান, দক্ষিণ সুরমা সরকারি কলেজের প্রধান ফটকের ভেতরে ছাত্রলীগকর্মী সাদি ও তার এক সহযোগী মোটরসাইকেলে আসেন। এসময় তারা আরিফুল ইসলাম রাহাতকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যান। পরে কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও স্থানীয় লোকজন রাহাতকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। 

হত্যাকাণ্ডের পর বিক্ষুব্ধ জনতা আজ বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে দক্ষিণ সুরমার চন্ডিপুলে সিলেট-ঢাকা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করেন। আধঘণ্টা অবরোধের পর পুলিশ হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতারে আশ্বাস দিলে তারা অবরোধ তুলে নেন।

এদিকে, হত্যাকাণ্ডের পর দক্ষিণ সুরমা সরকারি কলেজে তিনদিনের জন্য পাঠদান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। তবে ওই সময়ে নির্ধারিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন কলেজের অধ্যক্ষ শামসুল ইসলাম। অধ্যক্ষ জানান, যার বিরুদ্ধে ছুরিকাঘাতের অভিযোগ ওঠেছে সেই সাদিকে বখাটেপনার কারণে একবার কলেজ থেকে বের করে দেয়া হয়েছিল। রাহাত খুনের ঘটনায় যে বা যারা জড়িত তাদের অবশ্যই কঠোর শাস্তির আওতায় আনতে হবে।

তিনি খুনিদের গ্রেফতারে পুলিশ প্রশাসনকে ২৪ ঘণ্টার সময় বেধে দেন। হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় কলেজের পক্ষ থেকে ৩ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আগামী তিন কার্যদিবসের মধ্যে কমিটি তাদের প্রতিবেদন দাখিল করবে। দক্ষিণ সুরমা থানার ওসি কামরুল হাসান তালুকদার জানান, হত্যাকাণ্ডের ঘটনার পর থেকে পুলিশ জড়িতদের চিহ্নিত ও গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছে। যে বা যারা এই ঘটনা ঘটিয়েছে তারা কোনভাবেই রেহাই পাবে না বলে জানিয়েছেন তিনি। 

বিডি প্রতিদিন/আবু জাফর

সর্বশেষ খবর