Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ২৫ আগস্ট, ২০১৯ ১৭:৫৪

চোরের ৯ গ্রুপের ১১ সদস্য গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম:

চোরের ৯ গ্রুপের ১১ সদস্য গ্রেফতার

আন্তঃজেলা চোর গ্রুপের সদস্য সংখ্যা ৫০। তারা নয়টি গ্রুপে ভাগ হয়ে চুরি করে। এর মধ্যে ১১ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। দেশের বিভিন্ন এলাকায় গত ১২ বছর ধরে চুরি করে আসছে। 

রবিবার দুপুরে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) উপ-কমিশনারের (দক্ষিণ) কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সিএমপির উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) এসএম মেহেদী হাসান, সিএমপির অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) শাহ মুহাম্মদ আবদুর রউফ, সিনিয়র সহকারী কমিশনার (কোতোয়ালী জোন) নোবেল চাকমা ও অভিযান পরিচালনাকারী টিমের সদস্যরা।  

উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) এসএম মেহেদী হাসান বলেন, ‘আন্তঃজেলা চোর চক্রের ১১ সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের কাছ থেকে দুইটি এলজি, একটি লোহার কাটার, একটি লোহার রড ও চারটি কার্তুজ উদ্ধার করা হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘গত কয়েক মাসে কোতোয়ালী থানা এলাকায় পাঁচটি চুরির ঘটনা ঘটে। এসব ঘটনায় মামলা দায়ের হয় থানায়। সম্প্রতি একটি চুরির ঘটনায় মালিঙ্গা নামে এক চোরকে গ্রেফতারের পর আন্তঃজেলা চোর চক্রের ব্যাপারে তথ্য পাই। গত শনিবার রাতে লালদীঘির পাড়ের হোটেল তুনাজ্জিন থেকে এসব  চোরকে গ্রেফতার করা হয়। 

গ্রেফতারের পর পুলিশকে দেওয়া তাদের তথ্য মতে, তারা গত ১২ বছর ধরে ঢাকার গুলশান, মহাখালী, বাড্ডা, যাত্রাবাড়ী, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর, কুমিল্লা, সিলেট, মৌলভীবাজার, ময়মনসিংহ ও চট্টগ্রামে দীর্ঘদিন ধরে চুরি করে আসছে। যেখানে চুরি করতে যায়, ওই এলাকায় বিভিন্ন আবাসিক হোটেলে অবস্থান করে। ওই এলাকার শো-রুম, বড় কাপড়ের দোকান, বড় মুদির দোকান, বিভিন্ন ডিস্ট্রিবিউটর অফিস, বিকাশের দোকানসহ নগদ টাকা লেনদেন হয় বা রাতে ক্যাশে নগদ টাকা থাকে ওইসব প্রতিষ্ঠানকে টার্গেট করে তারা। দিনের বেলা ঘুরে ঘুরে টার্গেট নির্দিষ্ট করে রাতে চুরির কাজ করে।’

বিডি প্রতিদিন/মজুমদার


আপনার মন্তব্য