শিরোনাম
প্রকাশ : ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯ ২০:১৮
আপডেট : ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯ ২০:৪৪

বুদ্ধিজীবী খুনী পলাতক ঘাতকদের দেশে ফিরিয়ে আনতে হবে : মেয়র নাছির

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

বুদ্ধিজীবী খুনী পলাতক ঘাতকদের দেশে ফিরিয়ে আনতে হবে : মেয়র নাছির

শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, জাতিকে মেধাশূন্য করতে যারা বুদ্ধিজীবীদের হত্যা করেছে, সেইসব কুলাঙ্গারদের যারা পলাতক তাদের দেশে ফিরিয়ে এনে বিচার করতে হবে।

শনিবার সকাল সাড়ে ৯টায় সিটি মেয়র পাহাড়তলী বধ্যভূমিতে গিয়ে শহীদ বেদিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষ মেয়র এসব কথা বলেন। এসময় চসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সামশুদ্দোহা, কাউন্সিলরসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

মেয়র বলেন, বাঙালি জাতিকে মেধাশূন্য করতে ১৪ ডিসেম্বর বুদ্ধিজীবীদের হত্যা করা হয়েছিল। মেধাবী সন্তানদের হত্যা করাই বর্বর পাকিস্তানী এবং তাদের দোসরদের প্রধান লক্ষ্য ছিল। তারা জানত যে, একটি দেশের সামগ্রিক মেধা ধ্বংস হয়ে গেলে সেই দেশের সকল উন্নয়নের অগ্রযাত্রা ব্যাহত হয়। ৭১ সালে মার্চ মাস থেকে ১৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী এবং তাদের দোসর রাজাকার, আল-বদরদের নিয়ে বেছে বেছে এদেশের নেতৃত্বদানকারী ডাক্তার, শিক্ষক, সাংবাদিক, লেখক, মুক্তিযোদ্ধা ও প্রকৌশলী সহ হাজার হাজার মেধাবী সূর্য সন্তানদেরকে নির্বিচারে  হত্যা করেছে।

এর আগে শুক্রবার রাত ১২টার পর চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শহীদ বুদ্ধিজীবীদের প্রতি ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের (সিইউজে) সাংবাদিকসহ নেতৃবৃন্দ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়নের সভাপতি নাজিমুদ্দীণ শ্যামল, সাধারণ সম্পাদক হাসান ফেরদৌস, বিএফইউজে যুগ্মসচিব কাজী মহসিন, সিইউজে যুগ্ম সম্পাদক সবুর শুভ, প্রেস ক্লাবের নির্বাহী সদস্য ম. শামসুল ইসলাম, স. ম. ইব্রাহিম প্রমুখ।

শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন সংগঠন নানা কর্মসূচি পালন করেছে। শনিবার সকালে থিয়েটার ইনস্টিটিউট চত্বরে জমায়েত শেষে মহানগর আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

এ দিকে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের উদ্যোগে সকালে প্রেস ক্লাব ভবনের সামনে জাতীয় পতাকা ও কালো পতাকা উত্তোলন করা হয়। চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন ও জেলা শিল্পকলা একাডেমির যৌথ উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হয় শহীদ বুদ্দিজীবী স্মরণানুষ্ঠান। আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান বৃহত্তর চট্টগ্রামের উদ্যোগে বিকাল ৪টায় চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব প্রাঙ্গণে আলোক প্রজ্বলন ও আলোচনা সভা আয়োজন করা হয়েছে। থিয়েটার ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে বিকাল সাড়ে ৫টায় আয়োজন করা হয়েছে দৃষ্টি চট্টগ্রামের ‘মুক্তির কথা শুনি’। সকাল ৮টায় চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ অধ্যক্ষের কার্যালয় প্রাঙ্গণে কালো পতাকা ও জাতীয় পতাকা উত্তোলন করে ১ মিনিট নীরবতা পালনের মাধ্যমে দিবসের কর্মসূচি উদ্বোধন করেন অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ শামীম হাসান। পরে শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্মৃতিচারণ করে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন


আপনার মন্তব্য

close