শিরোনাম
প্রকাশ : ১১ এপ্রিল, ২০২১ ২২:০৪
প্রিন্ট করুন printer

ধর্ষণ ও আপত্তিকর ভিডিও ধারণ করে মুক্তিপণ দাবি, গ্রেফতার ৪

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম:

ধর্ষণ ও আপত্তিকর ভিডিও ধারণ করে মুক্তিপণ দাবি, গ্রেফতার ৪
Google News

চট্টগ্রাম নগরীতে নগরীতে এক কিশোরীকে অপহরণ করে ধর্ষণের পর জিম্মি করে টাকা দাবির ঘটনায় চার জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পুলিশ জানিয়েছে, নগরীতে সংঘবদ্ধ এই চক্রটি চক্র কিশোরী-তরুণীদের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে তাদের আকবর শাহ এলাকায় দুর্গম পাহাড়ে বেড়াতে নিয়ে যায়। সেখানে আটকে রেখে তাদের ধর্ষণ করে এবং সেটা ভিডিও করে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে টাকা আদায় করে। এই চক্রের চারজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

গ্রেফতার চারজন হলো- কালু মিয়া প্রকাশ রাজু (১৯), সোহেল মিয়া (১৯), দুলাল বাবুর্চি (৩৭) এবং তারেক আকবর (১৯)।

পুলিশ জানায়, গত শুক্রবার নগরীর কোতোয়ালী থানার রহমতগঞ্জ এলাকা থেকে এক কিশোরীকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ ও মুক্তিপণ দাবির একটি অভিযোগ পাবার পর এই চক্রের সন্ধান পাওয়া গেছে।

নগর পুলিশের কোতোয়ালী জোনের সহকারী কমিশনার নোবেল চাকমা বলেন, ‘গ্রেফতার চারজন একটি সংঘবদ্ধ চক্রের সদস্য। তারা ছিনতাইসহ বিভিন্ন অপরাধে জড়িত। কিন্তু সম্প্রতি তারা নতুন ধরনের অপরাধের কৌশল বের করেছে। তারা ফেসবুকে অথবা মোবাইলে কথাবার্তা বলে কিশোরি-তরুণীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। কয়েকদিন পর বেড়ানোর নামে তাকে আকবর শাহ এলাকায় একটি নির্জন পাহাড়ে নিয়ে যায়। সেখানে নিয়ে তাকে ধর্ষণ করে আবার এর ভিডিও ধারণ করে। তারপর সেটা ছড়িয়ে দেওয়ার ‍হুমকি দিয়ে টাকা দাবি করে।’

কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ নেজাম উদ্দিন বলেন, ‘ঘটনার শিকার কিশোরীকে একই প্রক্রিয়ায় প্রেমের ফাঁদে ফেলে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে শাপলা আবাসিক এলাকার একটি বাসায় নিয়ে তাকে আটকে রাখা হয়। আপত্তিকর ভিডিও ধারণ করে এবং মুক্তিপণ হিসেবে তার ভাই-বোনের কাছে পাঁচ লাখ টাকা দাবি করা হয়। পরে আবার কথিত প্রেমিক কালু তাকে ধর্ষণও করে। কোনোমতে তাদের কাছ থেকে ছাড়া পেয়ে ওই কিশোরী কোতোয়ালী থানায় এসে মামলা দায়ের করেন। এরপর ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে চার অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। 

বিডি প্রতিদিন/ মজুমদার