Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১২ জুলাই, ২০১৯ ২১:৫৯
আপডেট : ১২ জুলাই, ২০১৯ ২২:৫৮

বগুড়া-ঢাকা রুটে ফের চালুর অপেক্ষায় বিআরটিসি

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া

বগুড়া-ঢাকা রুটে ফের চালুর অপেক্ষায় বিআরটিসি
ফাইল ছবি

দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর বহুল প্রত্যাশিত বিআরটিসি যাত্রী পরিবহন সেবা বগুড়া থেকে ঢাকা রুটে চালু হচ্ছে। ঢাকা রুটে বাস চলাচল ছাড়াও যাত্রী সেবার মান উন্নয়নে বিআরটিসি বগুড়া বাস ডিপো বেশকিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। গৃহীত পদক্ষেপগুলো বাস্তবায়ন হলে বগুড়ার যাত্রীরা ভাল সেবা পাবেন বলে আশা করা হচ্ছে। 

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্পোরেশন (বিআরটিসি) বগুড়া বাস ডিপো সূত্রে জানা গেছে, একসময় বগুড়া থেকে ঢাকা এবং ঢাকা থেকে বগুড়া পর্যন্ত রুটে বিআরটিসির যাত্রীসেবা জনপ্রিয় ছিল। বেসরকারি পরিবহন মালিক ও শ্রমিকদের নানা জটিলতায় রুটটি বন্ধ হয়ে যায়। এরপর বিআরটিসির কিছু অসাধু কর্মকর্তা, রাজনৈতিক শক্তি ও প্রাইভেট সেক্টরের পরস্পর যোগসাজসে আর চালু হয়নি এ রুটটি। ফলে প্রাইভেট পরিবহন সেক্টরের কাছে দীর্ঘদিন যাবৎ এ রুটের যাত্রীরা অযৌক্তিক ভাড়া বৃদ্ধি, কাঙ্ক্ষিত সেবা না পাওয়াসহ নানাভাবে জিম্মি রয়েছেন। তাই যাত্রীদের সেবার কথা বিবেচনা করে বিআরটিসি বগুড়া বাস ডিপো বন্ধ এ রুটটি আবারো চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এ ছাড়া বগুড়া টু বেনাপোল নতুন রুট অথবা বগুড়া টু গোপালগঞ্জ রুটে ডাবল যাত্রীসেবা দেবে বিআরটিসি। বর্তমানে বগুড়া টু গোপালগঞ্জ রুটে শুধু রাতে একটি বাস সার্ভিস চালু রয়েছে। তাই নতুন করে দিনের বেলাতেও বাস সার্ভিস চালু করা হবে। এ লক্ষ্যে বগুড়া ডিপোর কারখানায় পুরাতন কিছু বাস মেরামত করা হচ্ছে। এ ছাড়া শিগগিরই নতুন বাস বরাদ্দ পাওয়ার কথাও রয়েছে। একই সাথে বাসের ভেতরে ও বাহিরে রং করে যাত্রীদের একটি ভাল পরিবেশ দেয়ার প্রস্তাবনাও করা হয়েছে। বগুড়ার ঢাকাগামী যাত্রীরা মনে করেন এ রুটে বিআরটিসির যাত্রী সেবা প্রাইভেট পরিবহনের হাত থেকে কিছুটা হলেও মুক্তি মিলবে। 

বিআরটিসি বগুড়া বাস ডিপো ম্যানেজার (অপারেশন) ওমর ফারুক জানান, নতুন বাসপ্রাপ্তি ও পুরাতন বাস মেরামত করে যাত্রী সেবার মান বাড়ানোর পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। দিনক্ষণ ঠিক না হলেও কিছু নতুন বাস বরাদ্দ পাওয়ার বিষয়টি চলমান রয়েছে। পাওয়া মাত্রই বগুড়া থেকে ঢাকা রুটে বাস চলাচল করবে। বগুড়া ডিপোর গ্যারেজে অকেজো অবস্থায় পড়ে থাকা বাসগুলো চলাচল উপযোগী করে রাস্তায় নামানো হবে। রাস্তায় যেন গাড়ি বিকল হয়ে না পড়ে এবং যাত্রীরা যেন উন্নত সেবা পান সে দিকটি সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। বগুড়া ডিপো থেকে কোনো যাত্রীই যেন হয়রানি বা তথ্য পাওয়া থেকে বিরত না থাকে সে বিষয়েও নজর দেয়া হবে। 

বিডি প্রতিদিন/এনায়েত করিম


আপনার মন্তব্য