শিরোনাম
প্রকাশ : ১ ডিসেম্বর, ২০২০ ২০:০৬
প্রিন্ট করুন printer

আগামী বর্ষার আগেই দক্ষিণ সিটির খাল দখলমুক্ত করব: তাপস

অনলাইন ডেস্ক

আগামী বর্ষার আগেই দক্ষিণ সিটির খাল দখলমুক্ত করব: তাপস
ফাইল ছবি

আগামী বর্ষা মৌসুমের আগেই ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) আওতায় থাকা সব খাল দখলমুক্ত করবেন বলে জানিয়েছেন মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস। আজ মঙ্গলবার দুপুরে শ্যামপুর খাল পরিদর্শনে গিয়ে সাংবাদিকদের এ কথা জানান তিনি।

ডিএসসিসির মেয়র বলেন, ‘কিছুদিন আগেই স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় থেকে মাননীয় মন্ত্রীর নেতৃত্বে সভার মাধ্যমে ওয়াসা থেকে ঢাকা সিটি করপোরেশন উত্তর ও দক্ষিণকে খালের দায়িত্ব দিয়ে দেওয়া হয়েছে। তাই ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের আওতায় যে ১১টি খাল রয়েছে, সেগুলো পুনরুদ্ধার, রক্ষণাবেক্ষণ ও পরিষ্কার–পরিচ্ছন্নতার কাজগুলো আমরা আরম্ভ করেছি।’

‘ঢাকা শহরে জলাবদ্ধতার একটি মূল কারণ হলো, ঢাকার মধ্য দিয়ে যে খালগুলো প্রবাহিত, সেগুলো দীর্ঘদিন ধরে বদ্ধ হয়ে গেছে। ভূমিদস্যুরা যেমনি এগুলো দখল করেছে, তেমনি এগুলো সঠিকভাবে রক্ষণাবেক্ষণ হয়নি।’ 

শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন, ‘খাল পুনরুদ্ধারে আমরা স্বল্প ও দীর্ঘমেয়াদি কার্যক্রম হাতে নিচ্ছি। স্বল্পমেয়াদি কার্যক্রম আমরা নিজ অর্থায়নে আরম্ভ করে দিচ্ছি। ক্যাডেস্ট্রাল সার্ভে (সিএস) দেখে আমরা সীমানা নির্ধারণ করব। খালগুলো দখলমুক্ত করব।’

তিনি বলেন, ‘আগামী দুই বছরের মধ্যে প্রাথমিক কাজটি সম্পন্ন করতে পারলে ঢাকাবাসীকে আমরা জলাবদ্ধ থেকে মুক্তি দিতে পারব। ‌যাতে এটা ধরে রাখা যায়, এ জন্য দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনার মাধ্যমে আমরা পূর্ণাঙ্গ কাজটি সম্পন্ন করব।’

পরিদর্শনকালে অন্যদের মধ্যে ঢাকা-৪ আসনের সংসদ সদস্য সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এবিএম আমিন উল্লাহ নুরী, প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা এয়ার কমডোর মো. বদরুল আমিন, প্রধান প্রকৌশলী রেজাউর রহমান, সচিব আকরামুজ্জামান, স্থানীয় কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত আসনের মহিলা কাউন্সিলর, প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা রাসেল সাবরিন, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা আরিফুল হক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। 

বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ

  


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর