শিরোনাম
প্রকাশ : ১৯ জানুয়ারি, ২০২১ ২৩:২৮
আপডেট : ১৯ জানুয়ারি, ২০২১ ২৩:৪৭
প্রিন্ট করুন printer

৯০ ভরি স্বর্ণ লুট: মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালকসহ গ্রেফতার ৩

নিজস্ব প্রতিবেদক

৯০ ভরি স্বর্ণ লুট: মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালকসহ গ্রেফতার ৩
এস এম সাকিব হোসেন

ডিবি পুলিশ পরিচয়ে ৯০ ভরি সোনা লুটের অভিযোগে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের একজন কর্মকর্তা ও তার দুই সহযোগীকে গ্রেফতার করেছে কোতোয়ালি থানা পুলিশ। মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারী) ওই কর্মকর্তা ও তার দুই সহযোগীকে আদালতের নির্দেশে তিন দিনের রিমান্ডে পেয়েছে পুলিশ।

গ্রেফতার হওয়া কর্মকর্তার নাম এস এম সাকিব হোসেন। তিনি মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের মুন্সিগঞ্জ জেলা শাখার সহকারী পরিচালক। তার অপর দুই সহযোগী হলেন কনস্টেবল আমিনুল ইসলাম ও সোর্স হারুন। 

এস এম সাকিব হোসেন ৩৪তম বিসিএসে নন-ক্যাডার কর্মকর্তা হিসেবে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরে নিয়োগ পান। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ছিলেন। যশোরের ছেলে সাকিব থাকতেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু হলে। তিনি হল শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ছিলেন বলে জানা গেছে।

ঢাকা মহানগর পুলিশের যুগ্ম কমিশনার (ক্রাইম) শাহ আবিদ হোসেন মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা গ্রেফতারের খবর নিশ্চিত করেছেন। এর চেয়ে বেশি কোনো তথ্য তিনি দিতে অপরাগতা প্রকাশ করেন। অন্যদিকে, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের কাছ থেকে আনুষ্ঠানিক কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

পুলিশ সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, গত ৭ জানুয়ারি সাকিব হোসেন, কনস্টেবল আমিনুল ইসলাম ও সোর্স হারুন রাজধানীর জিন্দাবাহার লেনের একটি সোনার দোকানে যান। ডিবি পরিচয়ে তারা ওই দোকানের মালিককে তুলে নিয়ে যান এবং ৯০ ভরি সোনা লুট করেন। এ ঘটনায় ১২ জানুয়ারি কোতোয়ালি থানায় ভুক্তভোগী স্বর্ণ ব্যবসায়ী মামলা করেন। 

পুলিশ প্রথমে দোকানের একজন কর্মচারীসহ দুইজনকে গ্রেপ্তার করে। সোমবার (১৮ জানুয়ারী) তারা স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। ওই জবানবন্দিতে তারা লুটের ঘটনায় সাকিব হোসেনের সম্পৃক্ততার কথা জানান। তাদের জবানবন্দির ভিত্তিতে সোমবার পুরান ঢাকা থেকে গ্রেফতার করা হয় সাকিব হোসেনকে।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর সূত্র বলছে, সাকিব হোসেন নবীন কর্মকর্তা হলেও দাপটের সঙ্গে চলতেন, কনস্টেবল আমিনুল ইসলামও কাউকে বিশেষ পাত্তা দিতেন না।

 

বিডি-প্রতিদিন/সিফাত আব্দুল্লাহ 


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর