৬ অক্টোবর, ২০২১ ১৭:০৯

রংপুর বিভাগে ৫ হাজার ১৮৯ মণ্ডপে দুর্গাপূজা

নিজস্ব প্রতিবেদক, রংপুর

রংপুর বিভাগে ৫ হাজার ১৮৯ মণ্ডপে দুর্গাপূজা

হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গোৎসবের মহালয়ার মধ্য দিয়ে বুধবার থেকে শুরু হয়েছে পূজার আনুষ্ঠানিকতা। পূজা উপলক্ষে যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। এ বছর রংপুর বিভাগে ৫ হাজার ১৮৯টি মণ্ডপে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

এর মধ্যে ২ হাজার ৬১৭টি পূজা মণ্ডপ গুরুত্বপূর্ণ ও অধিক গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। আর এর মধ্যে এক হাজার ৩১১ পূজা মণ্ডপ অধিক ঝুঁকিপূর্ণ (অধিক গুরুত্বপূর্ণ) বলে চিহ্নিত করা হয়েছে। এছাড়া গুরুত্বপূর্ণ (ঝুঁকিপূর্ণ) চিহ্নিত করা হয়েছে ১ হাজার ৩০৬ টি। সাধারণ মণ্ডপ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে ২ হাজার ৫৭২টি। এসব পূজা মণ্ডপে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় র‌্যাব, পুলিশের পাশাপশি ৩০ হাজারের বেশি আনসার সদস্য দায়িত্ব পালন করবেন।

এদিকে, ঢাকার পরে দেশের মধ্যে প্রথম মহালয়া অনুষ্ঠান হয়েছে রংপুরের ডিমলা রাজ দেবোত্তর এস্টেট কালী মন্দিরে। মহালয়া অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্য।

রংপুর ডিআইজি অফিস সূত্রে জানা গেছে, এই বিভাগের মধ্যে দিনাজপুরে সবচেয়ে বেশি স্থানে পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে এবং সবচেয়ে কম পূজা মণ্ডপ পঞ্চগড় জেলায়। রংপুর জেলায় মোট পূজা মণ্ডপ ৭৪৭টি, গাইবান্ধা জেলায় ৬০৬, কুড়িগ্রামে ৫৩২, লালমনিরহাটে ৪৫০টি নীলফামারীতে ৮৫৪টি, দিনাজপুরে ১ হাজার ২৬০টি। ঠাকুরগাওয়ে ৪৫৭টি, পঞ্চগড় জেলায় ২৮৩টি মণ্ডপে পূজা অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া রংপুর মেট্রোপলিটন এলাকায় প্রায় ১৬০ পূজা মণ্ডপে পূজা অনুষ্ঠিত হবে।

রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি’র কার্যালয়ের এসএসপি জাহিদ হোসেন বলেন, দুর্গাপূজা শান্তিপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠানের লক্ষে যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে।

বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সিনিয়র সহসভাপতি সুশান্ত ভৌমিক বলেন, মহামারি করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবজনিত কারণে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পূজা মণ্ডপে উপস্থিত সকলেকে মাস্ক ও মন্দিরে প্রবেশ পথে হাত ধোয়ার জন্য পানি, সাবান ও স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

বিডি প্রতিদিন/এমআই

এই রকম আরও টপিক

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর