Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০১:১৭

সমস্যায় জর্জরিত পলাশী আজিমপুরের মানুষ

বাদল নূর

সমস্যায় জর্জরিত পলাশী আজিমপুরের মানুষ

তীব্র যানজট, মশার উপদ্রব, গ্যাস সংকট, দুর্গন্ধযুক্ত পানিসহ নানা সমস্যায় জর্জরিত ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ২৬ নম্বর ওয়ার্ডের মানুষ। সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে আজিমপুর কবরস্থানের সামনের সড়ক থেকে শুরু করে বাসস্ট্যান্ড পর্যন্ত  প্রতিদিনই তীব্র যানজট লেগে থাকে। বিশেষ করে সকালে এবং বিকাল থেকে শুরু করে রাত ১১টা পর্যন্ত উক্ত সড়কে যানজট তীব্র আকার ধারণ করে। রাস্তার পাশে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠায় এ সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে বলে জানিয়েছে এলাকার বাসিন্দারা।

এ ব্যাপারে লালবাগ পঞ্চায়েত কমিটির নির্বাহী সদস্য ইসলাম উদ্দিন বাবুল বলেন, ৮ নম্বর গলির ড্রেনেজ ব্যবস্থা খুবই করুণ। পুরনো ভারী স্ল্যাব দিয়ে ঢেকে রাখা হয়েছে ড্রেন। সুইপাররা এসব ঢাকনা সরিয়ে ড্রেন পরিষ্কার করতে পারে না। পুরো গলি ইঁদুরের বাসায় পরিণত হয়েছে। ময়লার গন্ধে থাকা দায়।

লালবাগ চৌরাস্তার মুখ থেকে শুরু করে আজাদ মহল্লা হয়ে গোরে শহীদ সড়ক, রসুলবাগ এলাকা, আজিমপুর কলোনি, পলাশী এলাকা নিয়ে গঠিত ২৬ নম্বর ওয়ার্ড। রসুলবাগে মসজিদের পাশের রাস্তা খানাখন্দে পরিণত হয়েছে। এতে পথচারীদের চলাচলে বিঘ্ন সৃষ্টি হচ্ছে। বিদ্যুৎ চলে গেলে এ রাস্তা পার হওয়া কঠিন হয়ে পড়ে বলে জানা গেছে। এলাকাবাসী জানিয়েছে সকাল ১০টা থেকে শুরু করে বেলা ২টা পর্যন্ত উক্ত ওয়ার্ডে গ্যাসের চাপ কম থাকে। ফলে সময়ের রান্না অসময়ে করতে  হয়। অনেকে পাশের হোটেল থেকে  সকালের নাস্তা কিনে খায়।

কয়েকজন বাসিন্দা জানিয়েছেন রসুলবাগ এলাকায় ভখাটেরা মাদক ব্যবসা করে। সন্ধ্যার পরে সড়কের পাশে বসে আড্ডার  ফাঁকে ফাঁকে তারা মেয়েদের দেখলে হাসি-তামাশা করে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর