শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২৩:১৫

সেই পলাশের চাঁদাবাজি নিয়ে মুখ খুলেছে শ্রমিকরা

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

সেই পলাশের চাঁদাবাজি নিয়ে মুখ খুলেছে শ্রমিকরা

নারায়ণঞ্জের কেন্দ্রীয় শ্রমিক লীগ নেতা কাউসার আহম্মেদ পলাশের চাঁদাবাজির বিরুদ্ধে অবশেষে মুখ খুলেছে শ্রমিকরা। গত ৬ মে বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকার প্রথম পাতায় শ্রমিক লীগের এই নেতার নানা অপকর্ম নিয়ে ‘এক পলাশেই সর্বনাশ’ একটি প্রতিবেদন প্রকাশ হয়। এর পরেই একের পর এক বের হয়ে আসতে থাকে পলাশের চাঁদাবাজির নানা তথ্য। গতকাল সদর উপজেলার ফতুল্লার সিসিল কমিউনিটি সেন্টারে কুতুবপুর ইউনিয়নের ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা (ইজিবাইক) মালিক ও শ্রমিকরা পলাশের চাঁদাবাজির বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করে। সেখানে তারা অভিযোগ করেন, অটোরিকশা (ইজিবাইক) থেকে নানা অজুহাতে জাতীয় শ্রমিক লীগের শ্রমিক উন্নয়ন ও কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক কাউসার আহাম্মেদ পলাশের নেতৃত্বে বছরে ৫৭ লাখ টাকা চাঁদা তুলে নিচ্ছে। চাঁদাবাজির প্রতিবাদ করলে কিংবা চাঁদা দিতে দেরি হলে শ্রমিকদের ওপর নেমে আসে নির্যাতনের খড়গ। সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন অটোরিকশা মালিক মাহবুবুর রহমান, শফিকুল ইসলাম, আক্তার হোসেন ঝন্টু, মো. জুয়েল, আলী আকবর, মো. বাবুল, ইলিয়াসউদ্দিন কাজী, আবদুল কুদ্দুস, শোয়েব, আবুল হাশেম, আবদুস সামাদ, আবদুল মান্নান, প্রতিবন্ধী শ্রমিক জাহাঙ্গীর প্রমুখ। পরে শ্রমিকরা পাগলা জালকুড়ি সড়কে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। এ বিষয়ে কাউসার আহাম্মেদ পলাশ গণমাধ্যমকে জানান, চাঁদাবাজির অভিযোগ সত্য নয়। যদি এ ধরনের কোনো প্রমাণ থেকে থাকে তাহলে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হোক। ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা মালিক শ্রমিক সংগ্রাম পরিষদ একটি স্বাধীন সংগঠন। এখানে কোনো চাঁদাবাজি হয় না।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর