শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১১ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ১১ অক্টোবর, ২০১৮ ০২:০৯

গয়ার বিষে নীল চম্পাবতী

সাংস্কৃতিক প্রতিবেদক

গয়ার বিষে নীল চম্পাবতী

নারীর প্রতি যুগ যুগ ধরে অত্যাচার আর নিপীড়ন করে আসছে পুরুষ। গল্প, উপন্যাস, নাটক ও সিনেমাতেও পুরুষশাসিত সমাজে নারীর প্রতি বৈষম্যের চিত্রগুলো তুলে ধরেছেন সাহিত্যিক ও নির্মাতারা। নারীর প্রতি পুরুষের অত্যাচারের চিত্র নিয়ে পল্লীকবি জসীমউদ্দীন রচনা করেন ‘বেদের মেয়ে’। আর পল্লীকবির এই অমর সৃষ্টি নিয়ে সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হক লিখেন নাটক ‘চম্পাবতী’। আর এই নাটকটি মঞ্চে এনেছে শব্দ নাট্যচর্চা কেন্দ্র। শিল্পকলা একাডেমিতে চলমান ‘গঙ্গা-যমুনা নাট্য ও সাংস্কৃতিক’ উৎসবের ষষ্ঠ দিন গতকাল সন্ধ্যায় জাতীয় নাট্যশালার পরীক্ষণ থিয়েটার হলে মঞ্চায়ন হয় নাটকটি। গয়া বাইদার সুন্দরী রূপবতী স্ত্রী চম্পাবতী। নানা ঘাটে  নৌকা ভিড়িয়ে সাপ খেলা দেখিয়ে সংসার চালায় বেদের দল। একসময় তারা এসে নৌকা ভিড়ায় পদ্মার পাড়ে। বেদে বহর থেকে নেমে চম্পাবতী গ্রামের ভিতরে যায় সাপ খেলা দেখাতে। দেখা হয় ওই গ্রামের মোড়লের চামচা মাইনকার সঙ্গে। তিনি মোড়লকে গ্রামে বেদের দল আসার খবর দেন। সেই সঙ্গে ইনিয়ে বিনিয়ে চম্পাবতীর রূপের বর্ণনা দেন মোড়লকে। চম্পাবতী তার স্বামী গয়া বাইদাসহ কয়েকজন বাইদানিকে নিয়ে সাপ খেলা দেখায় মোড়লকে। মোড়লের লোলুপ দৃষ্টি পড়ে চম্পাবতীর ওপর। তিনি চম্পাবতীকে তার কাছে রেখে যেতে বলেন।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর