শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০১:৩১

রাজধানীতে যুবক খুন

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজধানীর মোহাম্মদপুরে ছুরিকাঘাতে এক যুবক নিহত হয়েছেন। তার নাম শুভ সরকার (২৬)। গতকাল তার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

মোহাম্মদপুর থানার এসআই পবিত্র সরকার জানান, সোমবার রাত ১১টায় মোহাম্মদপুর রায়েরবাজারে অজ্ঞাত কয়েকজন তাকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। এরপর তাকে সোহরাওয়াদী হাসপাতালে  নেওয়া হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। প্রাথমিকভাবে জানা গেছে- মোবাইল নিয়ে দ্বন্দ্বের জের ধরে শুভ খুন হয়েছেন। তার গ্রামের বাড়ি শরিয়তপুরের পালং উপজেলায়। তবে তিনি কি করতেন তা এখনো জানা যায়নি।

 ১৯৭৯ সালে বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক কৃষি উন্নয়ন তহবিল (ইফাদ)-এর সদস্য পদপ্রাপ্তির পর থেকে বাংলাদেশে ইফাদের মোট ক্রমপুঞ্জিত বিনিয়োগের পরিমাণ ২ দশমিক ৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

বাংলাদেশের গ্রামীণ অর্থনীতি তথা দরিদ্র জনগোষ্ঠীর উন্নয়নের জন্য ইফাদ-এর গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। বাংলাদেশে ইফাদের কান্ট্রি প্রোগ্রামে অর্থায়নের পরিমাণ ৯৮৮ দশমিক ৮ মিলিয়ন ডলার। এর মধ্যে ইফাদের অবদান ৪১৫ দশমিক ৭৮ মিলিয়ন ডলার। বাংলাদেশ সরকারে অবদান ১৩৫ দশমিক ৯ মিলিয়ন ডলার। অবশিষ্ট অংশ অন্যান্য দাতা সংস্থার। ইফাদ এ পর্যন্ত বাংলাদেশের ৩৪টি প্রকল্পে ঋণ ও অনুদান সহায়তা প্রদান করেছে। এ বিনিয়োগের মাধ্যমে বাংলাদেশের গ্রামীণ অর্থনীতি তথা ১১ দশমিক ৭ মিলিয়ন পরিবার উপকৃত হয়েছে। ৩৪টি প্রকল্পের মধ্যে অদ্যাবধি ২৭টি প্রকল্প সমাপ্ত হয়েছে এবং বাকি ৭টি প্রকল্প কৃষি মন্ত্রণালয়, স্থানীয় সরকার বিভাগ, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগ, পানি সম্পদ মন্ত্রণালয় এবং অর্থ মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে বাস্তবায়িত হচ্ছে।

মন্ত্রী তার বক্তব্যে বিগত ১০ বছরে বাংলাদেশের অভূতপূর্ব উন্নয়ন বিশেষ করে কৃষি, শিল্প, বাণিজ্য ও সেবা খাতের উন্নয়নের বিষয়টি তুলে ধরেন। গ্রামীণ অর্থনীতি তথা কৃষি, গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়ন, জলবায়ু পরিবর্তন, নারীর ও ক্ষমতায়ন সংশ্লিষ্ট প্রকল্প সমূহে ইফাদের অনুদান সহায়তা তথা সহজ শর্তে ঋণ প্রদান, ভবিষ্যতে জলবায়ু চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার জন্য জিইএফ, জিসিএফ এবং অন্যান্য উন্নয়ন সহযোগী তহবিল থেকে বাংলাদেশে অর্থায়নের জন্য ইফাদকে অনুরোধ জানানো হয়। ঢাকার বাংলাদেশের কান্ট্রি অফিসের সাংগঠনিক কাঠামো কলেবর বৃদ্ধি এবং পর্যাপ্ত জনবল বৃদ্ধিপূর্বক বাংলাদেশে ইফাদের প্রকল্প সহায়তা বৃদ্ধির জন্য অনুরোধ করেন।

এই বিভাগের আরও খবর