শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ২৯ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৮ মার্চ, ২০২১ ২৩:৪৪

আপস করলে দেশ আফগানিস্তান হবে : বাংলাদেশ জাসদ

নিজস্ব প্রতিবেদক

হেফাজতে ইসলামের সঙ্গে সরকারের আপস-নীতি বাংলাদেশকে আফগানিস্তানের মতো রাষ্ট্রে পরিণত করতে পারে বলে মন্তব্য করেছে বাংলাদেশ জাসদ।

দলটির সভাপতি শরীফ নুরুল আম্বিয়া ও সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক প্রধান বিগত কয়েকদিন দেশের তপ্ত রাজনৈতিক পরিস্থিতি বিবেচনায় গতকাল এক বিবৃতিতে বলেন, আওয়ামী লীগের লুণ্ঠনবান্ধব কর্তৃত্বপরায়ণ রাজনীতি সচল রাখার জন্য ২০১৩ সালের শাপলাচত্বর ষড়যন্ত্রের পর হেফাজতিদের সঙ্গে সরকারের এই আপস-নীতি বাংলাদেশকে একটি সমৃদ্ধ রাষ্ট্রের বদলে আফগানিস্তানের মতো রাষ্ট্রে পরিণত করতে পারে। দেশে গত কয়েকদিন যে হতাহতের ঘটনা ঘটেছে তার দায় থেকে সরকার কোনোভাবেই মুক্ত নয়। আমরা সরকারকে হেফাজতিদের প্রশ্রয়দান বন্ধ করার দাবি জানাই এবং সমৃদ্ধ দেশ নির্মাণের স্বার্থে সব গণতান্ত্রিক শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানাই।

বিবৃতিতে তারা বলেন, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে আমন্ত্রিত মুক্তিযুদ্ধকালীন প্রধান বন্ধুরাষ্ট্রের সরকারপ্রধান নরেন্দ্র মোদির আগমনকে কেন্দ্র করে হেফাজতে ইসলাম ও কতিপয় সংগঠনের আগ্রাসী বিক্ষোভ কর্মসূচির ফলে দেশে বিভিন্ন স্থানে সংঘর্ষ ও মৃত্যুর মতো অবাঞ্ছিত ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনার জের এখনো অব্যাহত রয়েছে। জাতীয় উৎসবে আগত বিদেশি মেহমানদের স্বাগত জানানো শিষ্টাচারের মধ্যে পড়ে। কারও ভিন্নমত থাকলে জাতীয় উৎসব বিবেচনায় গৃহীত কর্মসূচি শান্তিপূর্ণ রাখা বাঞ্ছনীয় ছিল। কিন্তু কর্মসূচি প্রদানকারীরা আগ্রাসী ছিল। যার ফলে সাংঘর্ষিক পরিস্থিতির জন্ম হয়। প্রশাসনের ভিতর থেকে কোনো ইন্ধন বা যোগসাজশ ছিল কি না তা দেখার দায়িত্ব সরকারের। ইতিপূর্বে দেখা গেছে যে গোড়া এই সাম্প্রদায়িক শক্তি সমাজে ধর্মীয় বিদ্বেষ প্রচার করে, বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যসহ বিভিন্ন ভাস্কর্য ভাঙচুর করেছে ও নানা উছিলায় মুক্তিযুদ্ধের ভিত্তি ও মূল্যবোধের ওপর আক্রমণ চালাতে দ্বিধা করেনি। সরকারের প্রশ্রয়ে কওমি মাদ্রাসাভিত্তিক ধর্মীয় মৌলবাদীরা এ রকম কাজ করে চলেছে।

এই বিভাগের আরও খবর